১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

এ্যাডিলেডে বিপদে নিউজিল্যান্ড

  • ঐতিহাসিক দিবারাত্রির টেস্ট

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ এ্যাডিলেডে ঐতিহাসিক দিবারাত্রির টেস্টের দু’দিন যেতেই বিপদের মুখে সফরকারী নিউজিল্যান্ড। প্রথম ইনিংসে ২০২ রানে গুটিয়ে যাওয়ার পর দ্বিতীয় ইনিংসে স্কোর বোর্ডে ১১৬ রান যোগ করতে৬ ৫ উইকেট হারিয়ে বসেছে ব্রেন্ডন ম্যাককুলামের দল। সব মিলিয়ে অতিথিদের লিড মাত্র ৯৪ রানের। শেষ স্বীকৃত ব্যাটসম্যান বলতে ক্রিজে থাকা উইকেটরক্ষক বিজে ওয়াটলিং ৭। ব্যক্তিগত ১৩ রান নিয়ে তার সঙ্গে আছেন মিচেল স্যান্টনার। এর আগে অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথ ও পিটার নেভিলের দৃঢ়তাপূর্ণ দুই হাফ সেঞ্চুরির সৌজন্যে ২২৪ রানে অলআউট হয় স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়া। ফ্লাডলাইটের আলোয় গোলাপি বলের এই শেষ ম্যাচটা দু’দলের জন্যই গুরুত্বপূর্ণ, বিশেষ করে কিউদের। কারণ দুই টেস্টের সিরিজে ইতোমধ্যে ১-০তে এগিয়ে অস্ট্রেলিয়া।

২ উইকেটে ৫৪ রান নিয়ে শনিবার দ্বিতীয় দিনের খেলা শুরু করে অসিরা। বাকি ৮ উইকেট হারিয়ে এদিন প্রথম ইনিংসে আর ১৭০ রান যোগ করে স্মিথের দল। এক পর্যায়ে ৮০ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে চরম বিপদে পড়ে স্বাগতিকরা। তখন ত্রাণকর্তা হয়ে আবির্ভূত হন স্মিথ ও উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান পিটার নেভিল। তৃতীয় উইকেটে এ্যাডাম ভোগসকে নিয়ে ২৯ রান যোগ করেন স্মিথ। ১৩ রান করে ভোগস ফেরার পর আরও একবার ধাক্কা খায় অস্ট্রেলিয়া। ব্যক্তিগত ২ ও ৪ রানে সাজঘরে দুই ভাই শন মার্শ ও মিচেল মার্শ। স্রোতের বিপরীতে আশা জাগানিয়া এক ইনিংস খেলেন স্মিথ। ১১৪ বলে ৫ চারের সাহায্যে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৫৩ রান করেন অসিদের সময়ের সেরা এই ব্যাটসম্যান। স্পিনার মার্ক ক্রেইগের অবিশ্বাস্য টার্ন করানো এক ডেলিভারিতে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন অধিনায়ক।

অষ্টম ব্যাটসম্যান হিসেবে জস হ্যাজলউড যখন আউট হন অস্ট্রেলিয়ার ভা-ারে তখন মোটে ১১৬ রান। মনে হচ্ছিল সহসা গুটিয়ে গিয়ে উল্টো প্রতিপক্ষ নিউজিল্যান্ডকে লিড পাইয়ে দেবে অসিরা! কিন্তু দলকে অবিশ্বাস্যভাবে ম্যাচে ফিরিয়ে আনেন সাত নম্বরে নামা পিটার নেভিল। শেষ দিকে তাকে দুর্দান্ত দুই জুটিতে সহায়তা করেন নাথান লেয়ন (৩৪) ও মিচেল স্টার্ক (২৪)। নবম উইকেটে মাত্র ১৫ ওভারে মহামূল্যবান ৭৪ রান যোগ করেন নেভিল ও লেয়ন! দশ নম্বর ও শেষ জুটিতে আরও ৩৪Ñ যা অস্ট্রেলিয়াকে দুই শ’ পেরোতে সাহায্য করে। ৬৬ রানের অসাধারণ ইনিংস উপহার দেন নেভিল। কিউইদের হয়ে ডগ ব্রেসওয়েল ৩, ট্রেন্ট বোল্ট ও মার্ক ক্রেইগ নেন ২টি করে উইকেট।

জবাবে অসিদের শাঁড়াসি বোলিংয়ের মুখে দ্বিতীয় ইনিংসের শুরু থেকেই উইকেট হারায় নিউজিল্যান্ড। ৯৮ রানে শীর্ষ পাঁচ ব্যাটসম্যানকে হারিয়ে কার্যত চরম বিপদে অতিথিরা। ৩টি করে উইকেট নেন হ্যাজলউড ও মিচেল মার্শ।