২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

আজ ফুটবলারদের রিপোর্টিং

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ আর এক মাসও বাকি নেই। তারপরেই ভারতের কেরালায় অনুষ্ঠিত হবে ‘সাফ সুজুকি কাপ’, যাকে বলা হয় ‘দক্ষিণ এশিয়ার বিশ্বকাপ’ হিসেবে। আসন্ন একাদশ সাফ ফুটবলে বাংলাদেশ পড়েছে ‘বি’ গ্রুপে। তাদের সঙ্গে আছে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন আফগানিস্তান, মালদ্বীপ এবং ভুটান। বাংলাদেশের গ্রুপ ম্যাচগুলো হচ্ছে ২৪ ডিসেম্বর আফগানিস্তান, ২৬ ডিসেম্বর মালদ্বীপ এবং ২৮ ডিসেম্বর ভুটানের বিরুদ্ধে। সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ উপলক্ষে শনিবার বাফুফে ভবনে নতুন কোচ মারুফুল হকের উপস্থিতিতে ঘোষণা করা হয় বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলের প্রাথমিক দল। আজ রবিবার বেলা ১২টায় ফুটবলারদের রিপোর্ট করতে হবে দলের ম্যানেজার আমিরুল ইসলাম বাবুর কাছে। তারপরই দল নিয়ে কোচ মারুফুল চলে যাবেন সাভারের জিরানির বিকেএসপিতে। সেখানে শুধু শারীরিক নয়, মানসিক স্কিলেরও ট্রেনিং করানো হবে।

বলতে গেলে বিশ্বকাপ বাছাইয়ের দলটাকেই ধরে রেখেছেন মারুফ। বিশ্বকাপ বাছাইয়ের দল থেকে বাদ পড়েছেন ইমন বাবু। চীনের টুর্নামেন্ট খেলা দল থেকে বাদ পড়েছেন তকলিস আহমদে, শাহেদুল আলম। নতুন করে ফিরেছেন জাহিদ হোসেন, জাহিদ হাসান এমিলি, আতিকুর রহমান মিশু আর রেজাউল করিম। ম্যাচে গোল পেতে স্ট্রাইকারের ভূমিকা সবচেয়ে বেশি। কিন্তু বাংলাদেশের ফরোয়ার্ড পজিশনে দুর্বলতা প্রকট। এমিলির পর আর তেমন কোন ভাল স্ট্রাইকার নেই। এ প্রসঙ্গে মারুফুল বলেন, ‘স্ট্রাইকার সমস্যাটা আমাদের দীর্ঘদিনের। আগে যেখানেই কাজ করেছি আমার পরিকল্পনাটা হয়েছে মিডফিল্ড ভিত্তিক। অধিকাংশ সময় মিডফিল্ডাররাই ম্যাচটা বের করে এনেছে। জাতীয় দলেও সেটিই হবে।’

সাফের নিয়ম অনুযায়ী চূড়ান্ত দল হবে ২০ জনের। যেখানে ৩ গোলরক্ষক থাকতে হবে। তাই প্রাথমিক দল থেকে বাদ পড়বেন ৮ জন। আজ থেকে বিকেএসপিতে শুরু হবে ক্যাম্প। প্রথম দু’দিন খেলোয়াড়দের রিকভারি হবে। এরপর দলের সমন্বয় আর ফিটনেসের ঘাটতিগুলো পুষিয়ে নিতে প্রথম ১৫ দিন বিল্ডআপ ট্রেনিং করাবেন মারুফুল। প্রথম এক সপ্তাহ দুই সেশন করে শুরু হবে। তারপর দল ছোট করে আনা হবে। এরপর থেকে এক সেশন করে সাফের আগ পর্যন্ত অনুশীলন চলবে বলে জানিয়েছেন মারুফুল হক।

কিছুদিন আগে মারুফুল হক তার মতামত জানিয়েছিলেন। দুই উইংয়ে জাহিদ আর জুয়েল রানাকে খেলাতে পারলে বাংলাদেশ জাতীয় দলের ভাল ফল করা সম্ভব। এবার সুযোগটা এসেছে তার। জানালেন, ‘ইনজুরি রিকভারি করে দলে ফিরেছে জাহিদ। দু’দিন ধরে জুয়েল রানাও তার অধীনে ট্রেনিং করেছে। তাই এই দুই উইংয়ে ভর করে ভাল কিছু আসতেও পারে বাংলাদেশের।’

যদিও চীনে স্ট্রাইকার তকলিসের গোলে একমাত্র জয়টি পেয়েছে বাংলাদেশ। কিন্তু সাফের দলে সে নেই। কারণটা কি? জানতে চাইলে মারুফুল বলেছেন, ‘আমার কাছে একেকটা দিন এখন একেকটা বছর। ট্রায়ালের সুযোগ নেই। তকলিসের সঙ্গে কাজ করার অভিজ্ঞতা রয়েছে আমার। যাদের নিয়েছি তাদের তকলিসের থেকে ভাল মনে হয়েছে। তার বয়স কম। জাতীয় দলের দরজা তার জন্য খোলা আছে।’

বাংলাদেশ প্রাথমিক দল ॥ মামুনুল, শাহেদুল, মাজহারুল, জামাল, ইয়াসিন, ইয়ামিন, রায়হান, মোনায়েম, নাসির উদ্দিন, সোহেল রানা, রনি, কেষ্ট, রাসেল, জাহিদ, এমিলি, হেমন্ত, তপু, মিশু, ওয়ালী, রেজাউল, আশরাফুল, জনি, জুয়েল, নাসিরুল, কোমল, সজীব, ফয়সাল, জীবন।

নির্বাচিত সংবাদ