২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

‘স্যাটানিক ভার্সেস’ নিষিদ্ধ করা ভুল ছিল ॥ চিদম্বরম

  • ত্রুটি স্বীকার করতেই ২৭ বছর, সংশোধনে কত সময় লাগবে, কটাক্ষ রুশদির

সালমান রুশদির বিতর্কিত উপন্যাস ‘স্যাটানিক ভার্সেস’ ভারতে নিষিদ্ধ হওয়ার ২৭ বছর পর দেশটির সাবেক অর্থমন্ত্রী পি চিদম্বরম শনিবার বলেছেন, রাজীব গান্ধী সরকারের নেয়া ওই সিদ্ধান্ত ভুল ছিল। চিদম্বরমের বক্তব্যের পর টুইটে তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় রুশদি লিখেছেন, ভুল স্বীকার করতেই ২৭ বছর, তাহলে সংশোধনে কত সময় লাগবে। খবর ওয়েবসাইটের।

দিল্লীতে ‘টাইমস লিটফেস্ট’র আলোচনায় অংশ নিয়ে চিদম্বরম বলেন, আমার বলতে দ্বিধা নেই, সালমান রুশদির বইটি নিষিদ্ধ করা ভুল ছিল। চিদম্বরম ১৯৮৬-৮৯ সময়ে রাজীব গান্ধী সরকারের স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী ছিলেন। মনমোহন সিংয়ের মন্ত্রিসভায়ও প্রথমদিকে একই দায়িত্বে ছিলেন তিনি। পরে তাকে অর্থমন্ত্রী করা হয়। ১৯৮৮ সালে রুশদির চতুর্থ উপন্যাস ‘স্যাটানিক ভার্সেস’ প্রকাশিত হলে মুসলিমদের মধ্যে ক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে। ভারতীয় বংশোদ্ভূত এ ব্রিটিশ লেখকের মৃত্যুদ-ের ফতোয়া ঘোষণা করেন ইরানের সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা আয়াতুল্লাহ খোমেনি। অন্য অনেক দেশের মতো ভারত সরকারও সে সময় স্থানীয় বাজারে বইটি নিষিদ্ধ করে। চিদম্বরম মনে করেন, ১৯৮০ সালে ইন্দিরা গান্ধী সরকারের জরুরী অবস্থা জারির সিদ্ধান্তও ভুল ছিল। এতদিন পর কেন সেই ভুল স্বীকার, এমন প্রশ্নে ভারতীয় কংগ্রেসের এই নেতা বলেন, তখন যদি আমাকে এ প্রশ্ন করা হতো, তাহলে তখনও আমি একই কথা বলতাম। বর্তমানে ভারতে অসহিষ্ণুতা বেড়ে যাওয়ার কথা স্বীকার করলেও ধীরে ধীরে তা কমে আসবে বলে আশাবাদী চিদম্বরম। কারও নাম প্রকাশ না করে রুশদি তার টুইটে কটাক্ষ করে প্রশ্ন তুলেছেন, এত বিলম্বে বোধোদয় হল? বোধাদয় হতে লেগে গেল পাক্কা ২৭টা বছর! তা হলে আরও কত কত বছর লাগবে সেই ভুল শুধরে নিতে?