২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

পৌর নির্বাচনের তফসিল প্রশ্নে ইসির চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত আজ

বিশেষ প্রতিনিধি ॥ আইনী বাধ্যবাধকতার কারণে পৌরসভায় ভোট ৩০ ডিসেম্বর থেকে পেছাতে রাজি না হলেও কয়েকটি রাজনৈতিক দলের কিছু দাবির প্রেক্ষাপটে সোমবার এই বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। রবিবার আওয়ামী লীগ, বিএনপিসহ কয়েকটি রাজনৈতিক দলের প্রতিনিধি দলের সঙ্গে আলোচনার পর বিকেলে প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী রকিবউদ্দীন আহমদ সাংবাদিকদের এ কথা জানান।

এ প্রসঙ্গে সিইসি বলেন, আইনের প্রতি শ্রদ্ধা রেখেই ডিসেম্বরের মধ্যে ২৩৬ পৌরসভায় ৩০ ডিসেম্বর ভোট করা হচ্ছে। যথেষ্ট সময় রেখেছি, যথেষ্ট সময় দেয়া হয়েছে। তবে ৩০ ডিসেম্বর ভোট করার লাস্ট চান্স (শেষ সুযোগ)। যদি ৩০ ডিসেম্বর ভোট করতে না পারি তা হলে আইন ভঙ্গ হয়ে যাবে। ভোট যদি পেছাতে না পারি, তার কারণ কী তা জানিয়ে দেব আমরা।

৩০ ডিসেম্বর ভোটের দিন রেখে নির্বাচন কমিশন তফসিল ঘোষণার পর বিএনপি ভোট পেছানোর দাবি তোলে। তফসিল পুনর্বিন্যাসের দাবি জানায় প্রধান বিরোধী দল জাতীয় পার্টি ও ক্ষমতাসীন জোটের অন্যতম শরিক ওয়ার্কার্স পার্টিও। রবিবার আওয়ামী লীগ, বিএনপি ও জাতীয় পার্টির প্রতিনিধি দল ইসিতে গিয়ে প্রধান নির্বাচন কমিশনারের সঙ্গে দেখা করে বিভিন্ন দাবি-দাওয়া পেশ করেছে।

তিনটি রাজনৈতিক দলের প্রতিনিধি দলের সঙ্গে বৈঠকের বিষয়ে প্রধান নির্বাচন কমিশনার সাংবাদিদের বলেন, আমরা সবার কথা শুনেছি। নিবন্ধিত দলগুলো যেসব দাবি করেন তা গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করা হয়। অন্য নির্বাচন কমিশনারদের সঙ্গে সোমবার আলোচনা করে এ ব্যাপারে আমরা আমাদের সিদ্ধান্তের কথা জানানো হবে। ভোট পেছানোর সমস্যা তুলে ধরে তিনি বলেন, জানুয়ারি ও ফেব্রুয়ারিতে হালনাগাদ তালিকা প্রকাশ, বিশ্ব এজতেমা ও পরীক্ষার কারণে ডিসেম্বরে ভোট করার বাধ্যবাদকতার বিষয়টি সবার জানা। যদি ৩০ ডিসেম্বর ভোট করতে পারি, তা হবে লাস্ট চ্যান্স।

নেতাকর্মীদের মুক্তি দিতে বিএনপি নেতাদের দাবি প্রসঙ্গে সিইসি বলেন, এটা আইনী বিষয়। আদালত রয়েছে এ সংক্রান্ত বিষয় দেখতে। আদালত যা নির্দেশনা দেবে, তা মানতে বাধ্য। তবে কাউকে অযথা যেন হয়রানি না করে, কেউ যদি হয়রানির শিকার না হয়- সে ব্যাপারে সংশ্লিষ্টদের প্রতি আমার আহ্বান থাকবে।

এমপিদের প্রচারের সুযোগ দিতে আওয়ামী লীগ ও জাতীয় পার্টির নেতাদের দাবির বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে সিইসি কাজী রকিবউদ্দীন আহমদ বলেন, সার্বিক বিষয়ে কমিশনের সঙ্গে আলোচনা করতে হবে। তারপর কমিশনের সভায় সিদ্ধান্ত নিয়ে জানানো হবে।

আরও ৬টি দলের প্রত্যয়নকারীর নাম জমা ॥ বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি, খেলাফত মজলিস, বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশন, এলডিপি ও বাসদ রবিবার পৌর মেয়র পদে প্রত্যয়নকারী ব্যক্তির তালিকা জমা দিয়েছে। এ নিয়ে ১৮টি দল নির্বাচনে অংশ নেয়ার কথা জানিয়েছে। বর্তমানে ৪০টি নিবন্ধিত দল রয়েছে। ইসি সূত্রে জানা গেছে, এখন পর্যন্ত কোন দল কেন্দ্রের বাইরে ক্ষমতাপ্রাপ্ত ব্যক্তি নির্বাচন করেনি। সেক্ষেত্রে সভাপতি বা সাধারণ সম্পাদকের মনোনয়নে ৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত সময় রয়েছে দলগুলোর।