২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা আগামী ১ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু

স্টাফ রিপোর্টার ॥ আগামী বছরের এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার সময়সূচী প্রকাশ করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। প্রতিবারের মতো এবারও ১ ফেব্রুয়ারি থেকেই শুরু হবে ১০ শিক্ষা বোর্ডের অধীন এ পরীক্ষা। তবে গত কদিন ধরেই পরীক্ষা এগিয়ে আনা হচ্ছে বলে গুজব ছড়িয়েছিল। আগামী বছরের মাধ্যমিক পরীক্ষা থেকেই শিক্ষার্থীদের বহুনির্বাচনী (এমসিকিউ) অংশের উত্তর আগে দিতে হবে। পরে নেয়া হবে সৃজনশীল/রচনামূলক অংশের পরীক্ষা। এখন পরীক্ষার শুরুতে সৃজনশীল/রচনামূলক এবং পরে এমসিকিউ অংশের উত্তর দিতে হয়।

পরীক্ষার সময়সূচী শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে (িি.িসড়বফঁ.মড়া.নফ) পাওয়া যাচ্ছে। পরীক্ষায় পরিবর্তন প্রসঙ্গে শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও বোর্ডের কর্মকর্তারা বলেছেন, পরীক্ষা শুরুর পরপরই এমসিকিউ প্রশ্নের প্যাকেট খুলে তার সমাধান করে কিছু শিক্ষক শিক্ষার্থীদের উত্তর জানিয়ে দিচ্ছিলেন বলে প্রমাণ পাওয়া গেছে। পরীক্ষা শুরুর পরই এমসিকিউ প্রশ্ন কেন্দ্রের বাইরে পাঠিয়ে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের উত্তর জানিয়ে দেয়া হচ্ছে। গত এক বছরে এমন বেশ বিছু ঘটনার পর বিশেষজ্ঞরা পরিবর্তন আনার পরামর্শ দিয়েছেন। এরপরই পরীক্ষায় এ পরিবর্তন আনার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এমসিকিউ এবং সৃজনশীল/রচনামূলক পরীক্ষার মধ্যে ১০ মিনিট বিরতি থাকবে। সময়সূচী অনুযায়ী আগামী ১ ফেব্রুয়ারি থেকে ৮ মার্চ পর্যন্ত এসএসসির তত্ত্বীয় বিষয়ের পরীক্ষা হবে। ৯ থেকে ১৪ মার্চ হবে ব্যবহারিক পরীক্ষা। পরীক্ষার্থীরা সাধারণ ক্যালকুলেটর ব্যবহার করতে পারবেন। কেন্দ্রসচিব ছাড়া অন্য কেউ পরীক্ষা কেন্দ্রে মোবাইল ফোন নিয়ে প্রবেশ করতে পারবেন না।

আগামী ২০১৭ সাল থেকে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার প্রশ্নে বহুনির্বাচনী (এমসিকিউ) অংশ থেকে ১০ নম্বর কমিয়ে তা সৃজনশীল অংশে যুক্ত করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। ২০১৭ সাল থেকে এই সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে। এখন যেসব বিষয়ে ৪০ নম্বরের এমসিকিউ পরীক্ষা হয়, নতুন সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ২০১৭ সালের পরীক্ষায় সেসব বিষয়ে ৩০ নম্বরের এমসিকিউ প্রশ্নের উত্তর দিতে হবে। আর যেসব বিষয়ে এখন ৩৫ নম্বরের এমসিকিউ প্রশ্নের উত্তর দিতে হয়, তা কমে হবে ২৫ নম্বরের। এই ১০ নম্বর যুক্ত হবে সৃজনশীল প্রশ্নের অংশে। ফলে সৃজনশীল অংশের নম্বর আনুপাতিক হারে বেড়ে যাবে।