২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

আওয়ামী লীগের মনোনয়ন বোর্ড বৈঠকে বসছে আজ

  • পৌর নির্বাচন

বিশেষ প্রতিনিধি ॥ আসন্ন পৌরসভা নির্বাচনে দলীয় একক প্রার্থী মনোনয়নে আজ সোমবার বৈঠকে বসছে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের মনোনয়ন বোর্ড। স্থানীয় সরকার/ পৌর নির্বাচনের জন্য নবগঠিত ‘মনোনয়ন সিলেকশন বোর্ড’ নামে এই মনোনয়ন বোর্ডের পরিধি পূর্বের ১১ থেকে বাড়িয়ে ১৮ সদস্যের করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে সন্ধ্যা ৬টায় তার সরকারী বাসভবন গণভবনে এ বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হবে।

দলীয় প্রার্থীতা চূড়ান্ত করতে মনোনয়ন বোর্ডে যুক্ত হচ্ছেন সাত নতুন মুখ। আওয়ামী লীগের সংসদীয় বোর্ডের পূর্বের ১১ সদস্যের সঙ্গে তারা পৌর প্রার্থী মনোনয়নে দায়িত্ব পালন করবেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই নতুন সাতজনকে মনোনীত করেন। নতুন সাতমুখ হচ্ছেনÑ সভাপতিম-লীর সদস্য ও স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম, সাবেক চীফ হুইপ আবুল হাসনাত আবদুল্লাহ, যুগ্মসাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ, ডাঃ দীপু মনি, জাহাঙ্গীর কবির নানক, কৃষি বিষয়ক সম্পাদক ড. আবদুর রাজ্জাক এবং আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক লে. কর্নেল (অব) ফারুক খান।

মনোনয়ন বোর্ডে নতুন সাতজন ছাড়াও আওয়ামী লীগের সভানেত্রী শেখ হাসিনা ছাড়াও আওয়ামী লীগের সংসদীয় বোর্ডে অন্য সদস্যরা হলেনÑ সৈয়দা সাজেদা চৌধুরী, আমির হোসেন আমু, তোফায়েল আহমেদ, সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত, মতিয়া চৌধুরী, ওবায়দুল কাদের, শেখ ফজলুল করিম সেলিম, কাজী জাফরউল্লাহ, ও অধ্যাপক ড. আলাউদ্দিন আহমদ।

এদিকে, রবিবার পর্যন্ত সারাদেশ থেকে প্রায় দুই শতাধিক পৌরসভার মেয়র পদে তৃণমূল থেকে পাঠানো নামের সুপারিশ ধানম-ির আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে জমা পড়েছে। যেসব জেলা প্রার্থী তালিকা পাঠাতে পারেননি তাদের আজ দুপুর ১২টার মধ্যে প্রার্থীর নাম পাঠাতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে কেন্দ্র থেকে।

জানা গেছে, রবিবার দিনভর ধানম-ির কার্যালয়ে বসে আওয়ামী লীগের সিনিয়র নেতারা তৃণমূলের নেতাদের সঙ্গে যোগাযোগ করে মেয়র পদে দলীয় একক প্রার্থীর তালিকা সংগ্রহ করেছেন। এ বিষয়ে জেলার নেতাদের সঙ্গে টেলিফোনে কথা বলেন, বেগম মতিয়া চৌধুরী, এইচ টি ইমাম, ওবায়দুল কাদের, মাহবুব উল আলম হানিফ, ডাঃ দীপু মনি, জাহাঙ্গীর কবির নানক, আহমদ হোসেন, আফম বাহাউদ্দিন নাছিম, খালেদা মাহমুদ চৌধুরী, ড. আবদুর রাজ্জাক প্রমুখ। এ সময় রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক, সাবেকমন্ত্রী আবদুল লতিফ বিশ্বাস, কেন্দ্রীয় নেতা এসএম কামাল হোসেনসহ অন্য নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, কেন্দ্রে জমা পড়া মেয়র পদে প্রার্থী তালিকায় অধিকাংশ পৌরসভাতেই একাধিক প্রার্থীর নাম পাঠানো হয়েছে। অনেক স্থানেই তৃণমূল নেতাদের পাশ কাটিয়ে স্থানীয় এমপি ও জেলার নেতাদের সমর্থনে তাদের আত্মীয়-স্বজন ও ঘনিষ্টদের নাম প্রস্তাব করে কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে। এতে তৃণমূলের ত্যাগী নেতাদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। প্রাধান্য পেয়েছে।

আগামী ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠেয় পৌরসভা নির্বাচনে একক মেয়র প্রার্থী নির্ধারণে তৃণমূলের দেয়া প্রস্তাবে স্থানীয় সংসদ সদস্যবৃন্দ ও জেলা আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী নেতাদের আত্মীয়স্বজনরাই প্রাধান্য পেয়েছেন। তালিকায় তাদের স্ত্রী, ছোট ভাই, ভগ্নিপতি এমনকি বেয়াইও রয়েছেন। এতে তৃণমূলের ত্যাগী নেতাদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। এদিকে তৃণমূলের প্রস্তাব পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে বিশ্লেষণ করে আজ সোমবার ২৩৪ মেয়র প্রার্থী চূড়ান্ত করবে আওয়ামী লীগ। সন্ধ্যা ৬টায় প্রধানমন্ত্রীর সরকারী বাসভবন গণভবনে ‘স্থানীয় সরকার/পৌরসভা নির্বাচন মনোনয়ন বোর্ডের এক সভায় দলের একক প্রার্থী চূড়ান্ত হবে। বৈঠকে সভাপতিত্ব করবেন আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও স্থানীয় সরকার/পৌরসভা নির্বাচন মনোনয়ন বোর্ডের সভাপতি শেখ হাসিনা। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম সংশ্লিষ্ট সকলকে যথাসময়ে উপস্থিত থাকার অনুরোধ জানিয়েছেন।