১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

হাতিলের ‘পাজল সল্ভ ফর এভার’

আফসানা ও রুহিন দম্পতি। দুজনেই ব্যাংক কর্মকর্তা। চাকরি করছেন একটি বেসরকারী ব্যাংকে। সারাদিনের পরিশ্রম শেষে বাসায় ফিরে ঘরটা দেখতে চান পরিপাটি ও মনের মতো সুন্দর। ঘরের আসবাব তাই কেনেন অনেক চিন্তা করে, সময়ের সঙ্গে রুচির মিল রেখে। দু’চার বছর পরপর ঘরের আসবাবপত্রে পরিবর্তন আনেন। আজকাল অনেক মধ্যবিত্ত পরিবারেই এটা দেখা যায়। সমস্যা অন্য জায়গায়, বিক্ষিপ্তভাবে কেনাকাটা করে অনেক গৃহিণী ঘর সাজিয়েও পরিতৃপ্ত হতে পারেন না। যেমনটি ঘটেছে আফসানা রুহিন দম্পতির ক্ষেত্রেও।

আর এ ধরনের পরিবারের পছন্দের রহস্য অনুসন্ধানে মাঠে নেমেছে দেশের শীর্ষস্থানীয় আসবাবপত্র তৈরির প্রতিষ্ঠান হাতিল কমপ্লেক্স লিমিটেড। তারা এ সমস্যার একটি সমাধানও বের করেছে। নাম দিয়েছে পাজল সলভড। অর্থাৎ কেনাকাটার অতৃপ্তিকে পাজল বলে আখ্যা দিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

আফসানা বলেন, ‘পাজল না হয়ে উপায় কী! শতভাগ মনের মতো আসবাবপত্র তো কেউ বানিয়ে দেবে না। সময়মতো নিজের প্রয়োজনের বিষয়টি ঠিকমতো প্রকাশও করতে পারি না। তাই কেনাকাটা করতে গিয়ে অনেকটা এলোমেলো হয়ে পড়তে হয় আমাদের। একটার সঙ্গে আরেকটি জিনিসের ডিজাইন, রং, মাপের মিল না থাকলেও অনেক সময় বাধ্য হয়ে কিনতে হয়, ঠিক চাহিদামতো জিনিসটির অভাবে।’

এসব বিষয়ে জানতে চাইলে হাতিলের হেড অব মার্কেটিং ফিরোজ আল মামুন জানান, ‘এ সমস্যার সহজ সমাধানে হাতিল নিয়ে এসেছে ‘পাজল সলভ ফর এভার’ নামে একটি অভিনব প্যাকেজ। এর ফলে ভোক্তা অনায়াসে তার চাহিদামতো আসবাবপত্র দিয়ে ঘর সাজাতে পারবে। আমাদের প্রতিষ্ঠান বিশ্বাস করে, যে সব ভোক্তা বেশি দাম দিয়ে আসবাবপত্র ক্রয় করেও শেষ পর্যন্ত মনের মতো ঘর সাজতে পারছেন না, তাদের জন্যই কাক্সিক্ষত ঘর সাজাতে পাজল সলভ ফর এভার একটি অনন্য প্যাকেজ।’

এই প্যাকেজে থাকছে ঘর সাজানোর সব নতুন নতুন নকশা এবং শৈল্পিক ধারণা। ফার্নিচারের ক্ষেত্রে ক্রেতার বায়িং বিহেবিয়ার পর্যালোচনা করে দেখা যায়, বেশিরভাগ ক্ষেত্রে ক্রেতা তার পণ্য ক্রয় করার সময় ভিন্নভিন্ন পণ্য ভিন্নভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে ক্রয় করে। ফলে সময়, অর্থ এবং শ্রম সবই অতিরিক্ত ব্যয় হয়, কিন্তু কাক্সিক্ষত পণ্যটি ঠিক ঠিক মেলে না। ফলে মনের মতো আসবাবপত্র দিয়ে ঘর সাজাতে পারে না। ভিন্ন ভিন্ন পণ্য হওয়ায় নকশা এবং পণ্যের সঠিক রূপ ফুটে ওঠে না।

এসব সমস্যা থেকে ভোক্তাকে বের করে আনার জন্য হাতিলের এই নতুন ক্যাম্পেন। এই প্যাকেজের আওতায় একজন ভোক্তা মাত্র ৭৮ হাজার টাকা থেকে এক লাখ ৫০ হাজার ৩২২ টাকায় তার বেডরুম সাজাতে পারবেন। এ জন্য প্রতিষ্ঠানটির রয়েছে ১১টি প্যাকেজ। একই প্যাকেজে আরও আটটি বিকল্প থাকছে ভোক্তার জন্য। এর ফলে ঘরের আকার ও চাহিদা অনুযায়ী আসবাবপত্র ক্রয় করা যাবে। একেকটি ডিজাইনের নামকরণেও রয়েছে সৃশনশীলতা। তিনটি আইটেম দিয়ে প্যাকেজ শুরুÑ একটি খাট, একটি ওয়ার্ডরোব এবং একটি ড্রেসিং টেবিল। এর সঙ্গে প্রয়োজন অনুসারে আসবাবপত্র বাড়ানো যাবে। একটি সেট ক্রয় করা হলে এমনিতেই একজন ক্রেতা ৭ শতাংশ মূল্য ছাড় পাবেন। এ ছাড়া রয়েছে শূন্য শতাংশ সুদে ছয়টি সমান কিস্তিতে পণ্য ক্রয়ের সুযোগ।