১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

প্রার্থী চূড়ান্ত যেখানে

  • জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ দেশের কয়েকটি পৌর সভায় মেয়র প্রার্থীর তালিকা চুড়ান্ত করা হয়েছে। খবর স্টাফ রিপোর্টার ও নিজস্ব সংবাদদাতার।

কুষ্টিয়া

জেলা আওয়ামী লীগের পাল্টা কমিটির প্রভাবশালী নেতা বর্তমান মেয়র হাজী আনোয়ার আলী এতদিন মেয়র পদে একক প্রার্থী হিসেবে অংশগ্রহণ করে আসছিলেন এবং টানা ১৫ বছর যাবত তিনি কুষ্টিয়া পৌরসভার কার্যক্রম চালাচ্ছেন। কিন্তু এবার পেক্ষাপট গেছে পাল্টে। আনোয়ার আলীকে টপকে নৌকার টিকেট চূড়ান্ত করে ফেলেছেন জেলা আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী অপর নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা হাজী রবিউল ইসলাম। জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আজগার আলী জানান, কেন্দ্রের নির্দেশনা অনুযায়ী আসন্ন পৌর নির্বাচনে মেয়র পদে এবার হাজী রবিউল ইসলাম নৌকার চূড়ান্ত প্রার্থী । কুষ্টিয়া শহর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক কুতুব উদ্দিন আহমেদ, কুষ্টিয়া সদর থানা বিএনপির সহ-সভাপতি মজমপুর ইউপি চেয়ারম্যান বশিরুল আলম চাঁদ ও জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের আহবায়ক এ্যাডভোকেট শামীমউল হাসান অপু। জেলা বিএনপির সভাপতি সাবেক এমপি সৈয়দ মেহেদী আহমেদ রুমী বলেন, তাদের দলীয় প্রার্থী চূড়ান্তের জন্য একটি তালিকা কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে। এদের মধ্যে ভেড়ামারা পৌরসভায় বর্তমান মেয়র শামিমুল ইসলাম ছানা, মিরপুর পৌরসভায় বর্তমান মেয়র হাজী এনামুল হক, কুমারখালী পৌরসভায় শামসুজ্জামান অরুণ ও খোক্সা পৌরসভায় তারিকুল ইসলাম।

চট্টগ্রাম

নির্বাচনকে ঘিরে সম্ভাব্য মেয়রপ্রার্থী চূড়ান্ত করার ক্ষেত্রে চট্টগ্রামে সুবিধাজনক স্থানে রয়েছে আওয়ামী লীগ। চট্টগ্রামের ১০টি পৌরসভার ৮টিতে ইতোমধ্যে আওয়ামী লীগের প্রার্থী তালিকা চূড়ান্ত হয়েছে। বাকি দুইটিও সোমবারের মধ্যে চূড়ান্ত করা হবে। অপরদিকে, বিএনপিতে চলছে চরম অস্থিরতা। মনোনয়ন পত্র সংগ্রহে আর মাত্র ৩ দিন বাকি থাকলেও এখন পর্যন্ত কোন পৌরসভায় তারা প্রার্থী চূড়ান্ত করতে পারেনি। উল্টো একাধিক প্রার্থী থাকায় সম্ভাব্য প্রার্থী চূড়ান্ত করার ক্ষেত্রে বেকায়দায় রয়েছে তারা। এদিকে, বিএনপির হাইকমান্ড থেকে সংশ্লিষ্ট জেলার সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে সম্ভাব্য প্রার্থী চূড়ান্ত করার নির্দেশ দেয়া হলেও কয়েকটি পৌরসভায় নেতৃবৃন্দের সিদ্ধান্ত উপেক্ষা করে ইতোমধ্যে কয়েকজন স্থানীয় নেতা মনোনয়ন গ্রহণ করেছেন। জানা গেছে, পৌরসভা নির্বাচনে দলীয় প্রার্থী চূড়ান্ত করার ক্ষেত্রে এগিয়ে রয়েছে চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগ। কেন্দ্রীয় সংগঠনের বেঁধে দেয়া সময়সীমার আগেই ৬টি পৌরসভার সম্ভাব্য ২৯ জন প্রার্থীর তালিকা প্রস্তুত করেছে উত্তর জেলার নেতৃবৃন্দ। সোমবার চূড়ান্ত তালিকা কেন্দ্রীয় কমিটির নিকট প্রেরণ করা হবে। অপরদিকে, দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দও পিছিয়ে নেই। তারাও পাঁচটি পৌরসভার মধ্যে ২টি পৌরসভার সম্ভাব্য প্রার্থীদের তালিকা চূড়ান্ত করেছে। অপর দুটি পৌরসভার সম্ভাব্য প্রার্থীদের তালিকা সোমবারের মধ্যে চূড়ান্ত করার আশ্বাস দিয়েছেন।

সিলেট

সিলেটের জকিগঞ্জ, কানাইঘাট ও গোলাপগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে প্রার্থীদের নাম চূড়ান্ত করেছে আওয়ামী লীগ। রবিবার প্রার্থী বাচাই করার জন্য গঠিত উপ-কমিটির সদস্যরা তিনটি পৌরসভার দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে বৈঠক করেন। চূড়ান্ত প্রার্থীদের নামের তালিকা রবিবার রাতেই কেন্দ্রে প্রেরণ করা হয়। অসমর্থিত সূত্রে জানা গেছেÑ তিন পৌরসভায় আওয়ামী লীগের চূড়ান্ত হওয়া প্রার্থীরা হলেনÑ জকিগঞ্জে মুক্তিযোদ্ধা খলিল উদ্দিন, কানাইঘাটে সাবেক মেয়র ও উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক লুৎফুর রহমান এবং গোলাপগঞ্জে পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মিছবাহ উদ্দিন। এদিকে পৌরসভা নির্বাচনে সিলেটের জকিগঞ্জ ও কানাইঘাটে মেয়র প্রার্থী চূড়ান্ত করেছে জাতীয় পার্টি। দলের চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ উভয় পৌরসভায় প্রার্থী মনোনীত করেছেন। মনোনয়নপ্রাপ্ত দু’জন হচ্ছেনÑ জকিগঞ্জ পৌরসভার সাবেক মেয়র ও পৌর জাতীয় পার্টিার সভাপতি আবদুল মালেক ফারুক এবং কানাইঘাট উপজেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক বাবুল আহমদ।

ভৈরব

ভৈরবে বিএনপির এখন পর্যন্ত একক প্রার্থী থাকায় পৌর বিএনপি সভাপতি শাহিন একমাত্র মেয়র প্রার্থী হিসাবে ভোটারদের কাছে ছুটছেন। তিনি ভৈরব পৌরসভার বর্তমান মেয়র। আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী হিসেবে যারা এখন মাঠে প্রচার চালাচ্ছে তারা হলোÑস্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা ও ভৈরব পৌরসভার সাবেক দুই বারের মেয়র এ্যাডভোকেট ফখরুল আলম আক্কাছ ও শহর আওয়ামী লীগের সভাপতি ইফতেখার হোসেন বেনু। এছাড়া নির্দলীয় মেয়র প্রার্থী হিসেবে সোহেল আহমেদ মাঠে নেমেছেন।

রাঙ্গামাটি

রাঙ্গামাটি পৌরসভার মেয়র পদে আওয়ামী লীগ এখনও একক প্রার্থী চূড়ান্ত করতে পারেনি। বিএনপি ও সন্তু লারমার দল জেএসএস তাদের একক প্রার্থীর নাম চূড়ান্ত করেছে। বিএনপি থেকে বর্তমান মেয়র সাইফুর ইসলাম ভুট্টু চৌধুরী ও জেএসএস থেকে ডাঃ গঙ্গা মানিক চাকমার নাম চূড়ান্তভাবে তারা ঘোষণা করেছে। রাঙ্গামাটি পৌরসভা নির্বাচনে ৫ হেভিওয়েট প্রার্থী নিয়ে শাসকদল আওয়ামী লীগ বেকায়দায় পড়েছে। আওয়ামী লীগের পক্ষে সোমবার পর্যন্ত ৫জন মনোনয়নপত্র ক্রয় করেছে বলে জেলা নির্বাচন অফিস জানিয়েছে। এরা হলেন দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবদুল মতিন, পৌর আওয়ামী লীগ সভাপতি সোলাইমান চৌধুরী, যুবলীগ সভাপতি আকবর নেতা হোসেন চৌধুরী, ছাত্রলীগের সাবেক ছাত্র নেতা শহিদুজ্জমান মহোসিন রোমান ও সাবেক মেয়র হাবিবুর রহমান। এছাড়া পূজা উৎযাপন কমিটির সভাপতি অমর কান্তি দে-ও আওয়ামী লীগের পক্ষে মনোনয়নপত্র ক্রয় করেছেন।

রাজশাহী

রাজশাহী জেলার ১৩টি পৌরসভায় বিএনপির মেয়র প্রার্থী চূড়ান্ত করেছে দলের হাইকমান্ড। ঢাকায় বিএনপির চেয়ারপার্সনের কার্যালয়ে রাজশাহীর নেতাদের সুপারিশে প্রার্থী চূড়ান্ত করা হয়েছে বলে দলের নির্ভরযোগ্য সূত্র জানিয়েছে। এদিকে আওয়ামী লীগও তাদের বেশিরভাগ প্রার্থী চূড়ান্ত করে কেন্দ্রে পাঠিয়েছে। বিএনপি নির্ধারিত প্রার্থী মনোনীত করলেও বিকল্প আরেকজন করে রাখা হয়েছে সব পৌরসভায়। একজনের প্রার্থিতা কোন কারণে বাতিল হলে বিকল্পজন যাতে প্রার্থী হতে পারে। সূত্রমতে, চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকায় যাদের নাম রয়েছে তারা হলেন, গোদাগাড়ী পৌরসভায় আনোয়ারুল ইসলাম, কাকনহাটে ইসমাইল হোসেন খান, তানোরে মিজানুর রহমান, মুন্ডুমালায় মোজ্জাম্মেল হক, কেশরহাটে আলাউদ্দিন আলো, নওহাটায় মোকবুল হোসেন, কাটাখালিতে সিরাজুল ইসলাম, ভবানীগঞ্জে আবদুর রাজ্জাক, তাহেরপুরে আবু নঈম শামসুর রহমান মিন্টু, চারঘাটে বিকুল আলী, আড়ানীতে নজরুল ইসলাম। তবে পুঠিয়া ও দুর্গাপুরের প্রার্থীর নাম জানা যায়নি। এদিকে মেয়র পদে প্রার্থী বাছাইয়ে মতৈক্যে পৌঁছতে পারেনি জেলা, উপজেলা ও পৌর আওয়ামী লীগের নেতারা। ১৩টি পৌরসভার মধ্যে অন্তত ৯টিতেই মেয়র পদে একক প্রার্থী নিয়ে কোন সিদ্ধান্ত এখনও হয়নি। রবিবার রাতে জেলা আ’লীগের কার্যালয়ে প্রার্থী বাছাই ও মনোনয়ন নিয়ে নিজেদের মধ্যে সভা অনুষ্ঠিত হয়। তবে ওই সভায় রাজশাহীর চারঘাটে আ’লীগ নেতা একরামুল হক, তাহেরপুরে আবুল কালাম আজাদ এবং ভবানিগঞ্জে একক প্রার্থী হিসেবে নাম ঘোষণা করা হয়।

নীলফামারী

সৈয়দপুর ও জলঢাকা পৌরসভা নির্বাচনে বিএনপি, জামায়াত ও জাসদ (ইনু) মেয়র পদে তাদের দলীয় একক মেয়রপ্রার্থী চূড়ান্ত করেছে। তবে আওয়ামী লীগ ও জাতীয় পার্টির প্রার্থী নিশ্চিত করতে পারেনি। রবিবার দলীয় সূত্রে জানা যায়, জলঢাকা পৌরসভায় মেয়র পদে বিএনপির দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন উপজেলা বিএনপির সভাপতি ফাহমিদ ফয়সাল চৌধুরী কমেট, জামায়াতের পৌর আমীর মকবুল হোসেন, জেলা জাসদের (ইনু) সভাপতি অধ্যাপক আজিজুল ইসলাম। অপরদিকে, সৈয়দপুর পৌরসভায় বিএনপির মেয়রপ্রার্থী চূড়ান্ত হয়েছে সৈয়দপুর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান পৌরমেয়র আমজাদ হোসেন সরকার ভজে, জামায়াতের পৌর আমীর হাফেজ গোলাম মোস্তাকিম।