২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

শিল্পকলায় থিয়েটার সপ্তাহ

শিল্পকলায় থিয়েটার সপ্তাহ

সংস্কৃতি ডেস্ক ॥ ‘সবার উপরে জীবন সত্য’ সেøাগানে সপ্তাহব্যাপী নাট্যোৎসবের আয়োজন করতে যাচ্ছে দেশের অন্যতম নাট্য সংগঠন ‘থিয়েটার’। আগামী ৪ ডিসেম্বর রাজধানীর সেগুনবাগিচার জাতীয় নাট্যশালায় ‘থিয়েটার সপ্তাহ-২০১৫’ নামের এ উৎসব শুরু হবে। উৎসবের উদ্বোধন করবেন ইমেরিটাস অধ্যাপক আনিসুজ্জামান। এ ছাড়াও অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন নাট্যব্যক্তিত্ব আতাউর রহমান ও শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত লাকী। থিয়েটার সূত্রে জানা গেছে, উৎসবে থিয়েটারের নিজস্ব ৭টি নাট্য প্রযোজনার মঞ্চায়ন হবে। এর মধ্যে উৎসবকে ঘিরে একটি নতুন নাটক মঞ্চে নিয়ে আসছে থিয়েটার। এ ছাড়া সমাপনী আয়োজনের অংশ হিসেবে ১০ ডিসেম্বর বিকেল ৪টায় অনুষ্ঠিত হবে ‘থিয়েটার পত্রিকার চল্লিশ বছর’ শীর্ষক সেমিনার। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর। জাতীয় নাট্যশালায় প্রতিদিন সন্ধ্যা ৭টায় টিকেটের বিনিময়ে নাটকের মঞ্চায়ন হবে। সেমিনার সবার জন্য উন্মক্ত থাকবে। জানা গেছে, উৎসবের উদ্বোধনী সন্ধ্যায় মঞ্চায়ন হবে আবদুল্লাহ আল মামুন রচিত ও নির্দেশিত নাটক ‘কোকিলারা’। নাটকটির নব-রূপায়ন করেছেন সুদীপ চক্রবর্তী। ৫ ডিসেম্বর দলের ‘মায়া নদী’ নাটকের উদ্বোধনী মঞ্চায়ন হবে। নাটকটি রচনা ও নির্দেশনা দিয়েছেন মারুফ কবির। ৬ ডিসেম্বর মঞ্চায়ন হবে ‘কুহুকজাল’। এটি রচনা করেছেন মাসুম রেজা এবং নির্দেশনা দিয়েছেন ত্রপা মজুমদার। ৭ ডিসেম্বর মঞ্চায়ন হবে নাটক ‘মুক্তধারা’। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর রচিত এ নাটকটির নির্দেশনা দিয়েছেন নায়লা আজাদ। ৮ ডিসেম্বর মঞ্চায়ন হবে ‘পায়ের আওয়াজ পাওয়া যায়’। সৈয়দ শামসুল হক রচিত এ নাটকটি নির্দেশনা দিয়েছেন আবদুল্লাহ আল মামুন। নব-রূপায়ন করেছেন সুদীপ চক্রবর্তী। ৯ ডিসেম্বর মঞ্চায়ন হবে ‘বারামখানা’। পান্থ শাহরিয়ারের রচনায় নাটকটির নির্দেশনা দিয়েছেন ত্রপা মজুমদার। ১০ ডিসেম্বর উৎসবের সমাপনী সন্ধ্যায় মঞ্চায়ন হবে নাটক ‘মেরাজ ফকিরের মা’। নাটকটির রচনা ও নির্দেশনা দিয়েছেন আবদুল্লাহ আল মামুন।

ঢাবিতে কেন্দ্রীয় বার্ষিক নাট্যোৎসব : ‘১০ম কেন্দ্রীয় বার্ষিক নাট্যোৎসব-২০১৫’ শিরোনামে সপ্তাহব্যাপী উৎসবের আয়োজন করছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের থিয়েটার এ্যান্ড পারফর্মেন্স স্টাডিজ বিভাগ। ‘শিল্পের মুক্ত ভাষা অভিমুখে’Ñ সেøাগান নিয়ে আগামী ৩ ডিসেম্বর সন্ধ্যা ৭টায় এ উৎসব শুরু হবে। চলবে ৮ ডিসেম্বর পর্যন্ত। ঢাবির ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্র মিলনায়তনে উৎসবের উদ্বোধনী দিন সন্ধ্যায় মঞ্চস্থ হবে মার্টিন শেরম্যানের নাটক ‘দ্য বেন্ট’। নাটকটি অনুবাদ ও নির্দেশনায় রয়েছেন শাহারুল ইসলাম। এ ছাড়া পর্যায়ক্রমে প্রতি সন্ধ্যায় মঞ্চস্থ হবে আরও ছয়টি নাটক। এর মধ্যে রয়েছে সাইমা ফারজানার নির্দেশনায় ‘কালের যাপনরঙ্গ’, নাজমুল হুদা সাকীর নির্দেশনায় ‘ডেথ নকস্’, কামরুল ইসলামের রচনা ও নির্দেশনায় ‘ভস্ম’, সাওগাতুল ইসলাম হিমেলের নির্দেশনায় ‘৪.৪৮ সাইকোসিস’, ইশতিয়াক খান পাঠানের নির্দেশনায় ‘ক্রেভ এ্যান্ড নট ক্রেভ’ ও ধীমান চন্দ্র বর্মনের নির্দেশনায় ‘ব্র্যাত’। ‘১০ম কেন্দ্রীয় বার্ষিক নাট্যোৎসব’ এর পৃষ্ঠপোষকতা করছে বাংলাদেশ সরকারের সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়।