২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সুন্দরবনে র‌্যাবের বন্দুকযুদ্ধে দুই বনদস্যু নিহত

স্টাফ রিপোর্টার, বাগেরহাট ॥ পূর্ব সুন্দরবনের চাঁদপাই রেঞ্জে র‌্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে মনির বাহিনীর প্রধান মনির (৩৫) ও তার সহযোগী নুর মোহম্মদ ওরফে ভোলা (৪০) নিহত হয়েছেন। সোমবার সকালে চাঁদপাই রেঞ্জের উড়ুবুনিয়া খাল এলাকায় এই বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। এ সময় দেশী-বিদেশী ১৮টি আগ্নেয়াস্ত্র ও বিপুল পরিমাণ গুলি উদ্ধার করা হয়েছে। র‌্যাব-৮ এর অধিনায়ক মেজর ফরিদুল আলম এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

র‌্যাব-৮ এর অপারেশন অফিসার মেজর হাসিবুল হক জানান, সুন্দরবনে নিয়মিত টহলদানকালে জেলেদের মাধ্যমে উড়ুবুনিয়া এলাকায় বনদস্যু মনির বাহিনীর সদস্যরা অবস্থান করছে জানতে পেরে র‌্যাব অভিযান চালায়। সকাল সাড়ে ৭টার দিকে র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে বনদস্যুরা র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। এ সময় উভয় পক্ষের মধ্যে গুলিবিনিময়ের ঘটনা ঘটে। এক পর্যায়ে ঘণ্টাব্যাপী বন্দুক যুদ্ধের পর বনদস্যুরা রণে ভঙ্গ দিয়ে সুন্দরবনের গহীন অরণ্যে পালিয়ে যায়। পরে ঘটনাস্থল তল্লøাশি চালিয়ে দুই বনদস্যুর মৃতদেহসহ দেশী-বিদেশী ১৮টি আগ্নোয়াস্ত্র ও বিপুল পরিমাণ গুলি উদ্ধার করা হয়। উদ্ধারকৃত আগ্নেয়াস্ত্রের মধ্যে রয়েছে একনলা বন্দুক ৫টি, ৭টি ওয়ান শুটার গান, ৪টি কাঁটা রাইফেল, ১টি দোনালা বন্দুক, ১টি পয়েন্ট টুটু বোর রাইফেল, ৪০৬ রাউন্ড গুলি ও ৩৩ রাউন্ড গুলির খোসা রয়েছে।

নিহত বনদস্যু মনির বাহিনীর প্রধান মনির ও তার সহযোগী নুর মোহম্মদ ওরফে ভোলা বলে নিশ্চিত করেছেন স্থানীয় জেলেরা। নিহত বনদস্যু মনিরের বাড়ি বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জ উপজেলায়। তবে নিহত ভোলার বাড়ির ঠিকানা জানা যায়নি। নিহত দুই বনদস্যুর লাশ ও উদ্ধারকৃত দেশী-বিদেশী ১৮টি আগ্নেয়াস্ত্র ও বিপুল পরিমাণ গুলি মংলা থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ বিষয়ে থানায় মামলা হয়েছে।