২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ক্যান্সার আকস্মিক কেড়ে নিল এক দক্ষ সচিবের জীবন

ক্যান্সার আকস্মিক কেড়ে নিল এক দক্ষ সচিবের জীবন

স্টাফ রিপোর্টার ॥ ক্যান্সারের কাছে হেরে গেলেন জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগের সচিব মোঃ আবুবকর সিদ্দিক। সোমবার ভোররাতে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন সদা মিষ্টভাষী, সৎ ও দক্ষ এ কর্মকর্তা (ইন্নালিল্লাহে... রাজিউন)। শরীরে ক্যান্সার লুকিয়েও নিয়মিতই অফিস করতেন তিনি। একটু অসুস্থ জানলেও ভেতরে ভেতরে এত বড় রোগপুষে রাখার খবর কর্মস্থলের অনেকেই আঁচ করতে পারেননি। দিন পনেরো আগে শেষবার এসেছিলেন কর্মস্থলে। আর গত ২৪ নবেম্বর শরীরটা একটু বাড়াবাড়ি রকমের অবাধ্য হলে ভর্তি হন রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে। সেখান থেকে আর বাড়ি ফেরা হলো না, ফেরা হলো না প্রিয় কর্মস্থলে।

সোমবার মন্ত্রীপরিষদ বৈঠকের পর সচিবালয় কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ প্রাঙ্গণে আবুবকর সিদ্দিকের জানাজার পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মরদেহ দেখতে গিয়ে তার আত্মার শান্তি কামনা করেন। এ সময় তিনি মরহুমের স্ত্রী এবং দুই সন্তানকে সান্ত¡না দেন। এদিকে জ্বালানি সচিবের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি মোঃ আব্দুল হামিদ এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ছাড়ও বিদ্যুত জ্বালানি এবং খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী পৃথকভাবে শোক প্রকাশ করেছেন।

রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ জ্বালানি এবং খনিজ সম্পদ বিভাগের সচিবের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করে বিবৃতি দেন। শোক বার্তায় রাষ্ট্রপতি, আবুবকরসিদ্দিকের রুহের মাফিরাত কামনা করেন এবং তার শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

প্রধানমন্ত্রীর শোক বার্তায় আবুবকর সিদ্দিকের মত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করে পৃথক বার্তায় বলেন, প্রতিভাবান কর্মকর্তা ছিলেন আবুবকর সিদ্দিক। তার ওপর অর্পিত দায়িত্ব খুব আন্তরিক ও দক্ষতার সঙ্গে পালন করেছেন। সরকারের উন্নয়ন কর্মসূচীকে এগিয়ে নিতে জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ খাতে তার অবদানের কথা জাতি সব সময় স্মরণ করবে। শেখ হাসিনা আরও বলেন, তার মৃত্যুতে দেশ একজন অভিজ্ঞ ও প্রতিভাবান উর্ধতন কর্মকর্তাকে হারালো। প্রধানমন্ত্রী, আবুবকর সিদ্দিকের রুহের মাগফিরাত কামনা করেন এবং তার শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

১৯৫৮ সালের ৩ মার্চ শরিয়তপুর জেলার নড়িয়া উপজেলার কেদারপুর গ্রামের এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে আবুবকর সিদ্দিক জন্মগ্রহণ করেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবস্থাপনা বিভাগ থেকে পড়ালেখা শেষ করে বিনয়ী, স্পষ্টভাষী ও সদালাপী আবুবকর ১৯৮২ স্পেশাল ব্যাচে বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস (প্রশাসন) ক্যাডারে যোগদান করেন। তিনি মন্ত্রী পরিষদ বিভাগ, স্থানীয় সরকার বিভাগ, তথ্য মন্ত্রণালয়, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন পদে, বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশনের (বিপিসি) চেয়ারম্যান এবং ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়ে সচিব হিসেবে সততা ও নিষ্ঠার সঙ্গে দায়িত্ব পালন শেষে ২০ জুলাই ২০১৪ থেকে জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগের সচিব হিসেবে দক্ষতার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করেছেন। মৃত্যুকালে তিনি দুই সন্তানসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী ও সিভিল সার্ভিসে অনুসারী রেখে গেছেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৫৮ বছর।

বিদ্যুত, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগের সচিব মোঃ আবুবকর সিদ্দিকের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন।

প্রতিমন্ত্রী আজ এক শোকবার্তায় বলেন, তার মৃত্যুতে একজন মিষ্টভাষী, সৎ ও দক্ষ কর্মকর্তাকে হারালো। তিনি তার বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

এদিকে দুপুরে সচিবালয় কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ প্রাঙ্গণে আবুবকর সিদ্দিকের জানাজায় অংশ নেন মন্ত্রিপরিষদ সদস্য, বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের সচিব এবং সচিবালয়ের সর্বস্তরের সাধারণ মানুষ। সোমবার বাদ আছর বনানীতে শেষ জানাজার পর বনানী কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়।