২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

রিয়াল মাদ্রিদের ঘাম ঝরানো জয়

  • স্প্যানিশ লা লিগা, তৃতীয় সর্বোচ্চ গোলদাতার রেকর্ড রোনাল্ডোর, এইবার ০-২ রিয়াল মাদ্রিদ

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ হারের বৃত্ত ভেঙ্গে অবশেষে জয়ের ধারায় ফিরেছে রিয়াল মাদ্রিদ। তবে এজন্য তাদের ঘাম ঝরাতে হয়েছে। রবিবার রাতে স্প্যানিশ লা লিগার এ্যাওয়ে ম্যাচে অপেক্ষাকৃত দুর্বল প্রতিপক্ষ এইবারের বিরুদ্ধে ২-০ গোলের কষ্টার্জিত জয় পায় গ্যালাক্টিকোরা। রিয়ালের জয়ে গোল করেন গ্যারেথ বেল ও ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো।

টানা দুই হারের পর জয়ে ফিরলেও তাতে ছিল না স্বস্তি। এরপরও অবশ্য রিয়াল শিবিরে স্বস্তির হাওয়া বইছে। এই ম্যাচে গোল করে আরও একটি গৌরবময় কীর্তি গড়েছেন রোনাল্ডো। এই জয়ে পয়েন্ট তালিকায় সামনে থাকা দুই দল বার্সিলোনা ও এ্যাথলেটিকো মাদ্রিদের সঙ্গে ব্যবধানও কমিয়ে এনেছে ইউরোপের অন্যতম সেরা এই দল। বর্তমানে ১৩ ম্যাচে ৩৩ পয়েন্ট নিয়ে সবার ওপরে আছে বার্সিলোনা। দ্বিতীয় স্থানে থাকা এ্যাথলেটিকোর সংগ্রহশালায় ২৯ পয়েন্ট। আর রিয়ালের ভা-ারে জমা পড়েছে ২৭ পয়েন্ট। সেভিয়া ও বার্সিলোনার কাছে আগের দু’টি ম্যাচে হারের পর অনেকটাই পিছিয়ে পড়েছে রিয়াল। জয় পেলেও ম্যাচে তেমন ভাল পারফর্মেন্স দেখাতে পারেননি রোনাল্ডো, বেল, রড্রিগুয়েজরা। ম্যাচের ১৫ মিনিটে অফসাইডের ফাঁদ ভেঙ্গে চেষ্টা করেছিলেন সি আর সেভেন। কিন্তু পর্তুগিজ এই ফরোয়ার্ডের শট রুখে দেন স্বাগতিক গোলরক্ষক। বিরতির আগে প্রথম পাওয়া কর্নার থেকে গোল আদায় করে নেয় রিয়াল। কর্নার থেকে বল নিয়ে ৪৩ মিনিটে করা লুকা মড্রিচের ক্রসে দারুণ হেডে গোল করেন গ্যারেথ বেল। লা লিগায় তিন মাস পর লক্ষ্যভেদ করলেন তিনি। বিরতির ঠিক আগে ব্যবধান বাড়ানোর সুযোগ পেয়েছিলেন ওয়েলসের এই ফরোয়ার্ড। তবে জটলা থেকে তার শট রুখে দেন গোলরক্ষক। বিরতির পর প্রথম পাঁচ মিনিটে গোল পরিশোধের জন্য দু’টি ভাল আক্রমণ চালায় এইবার। তবে গোলরক্ষক কেইলর নাভাসকে ফাঁকি দিতে পারেনি স্বাগতিক ফুটবলাররা। ৫৫ মিনিটে ডান প্রান্ত থেকে বেলের ক্রসে ওভারহেড কিক নিতে চেয়েছিলেন গোলের সামনে দাঁড়ানো রোনাল্ডো। কিন্তু কাজের কাজ করতে ব্যর্থ হন তিনি। এরপর আক্রমণ চালিয়ে পর পর তিনটি কর্নার পায় এইবার। ৬১ মিনিটে দলটির জাপানি মিডফিল্ডার তাকাশি ইনুইয়ের শট প্রথমে ঠিকমতো রুখতে না পারলেও বিপদ হতে দেননি কোস্টারিকার গোলরক্ষক নাভাস। ৬৩ মিনিটে পেছন থেকে হালকা ধাক্কায় ডি বক্সে রোনাল্ডো পড়ে গেলেও পেনাল্টি দেননি রেফারি। ম্যাচের ৮২ মিনিটে পেনাল্টি থেকে গোল করে রোনাল্ডোর মুখে হাসি ফোটে। স্প্যানিশ মিডফিল্ডার ভাসকেসের বাধায় ডি-বক্সে পড়ে গেলে দর্শকদের দুয়োধ্বনির মধ্যে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। স্পট কিক থেকে রেকর্ড গড়া গোলটি করেন সি আর সেভেন। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী বার্সিলোনার কাছে ৪-০ গোলের লজ্জাজনক হারের পর চাকরি নিয়েই টানাটানি শুরু হয়ে যায় রিয়ালের নতুন কোচ রাফায়েল বেনিতেজের। সভাপতি ফ্লোরেন্টিনো পেরেজের অব্যাহতিও দাবি করেছিলেন অনেক সমর্থক। তবে লা লিগায় আবার জয়ের ধারায় ফিরতে পেরে স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেছেন বেনিতেজ। আর এভাবেই খেলতে থাকলে ঘুরে দাঁড়ানোর ব্যাপারে আশাবাদী এই স্প্যানিশ কোচ। ম্যাচ শেষে তিনি বলেন, সমর্থকরা জানে যে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো খেলোয়াড়দের ভাল পারফর্মেন্স। যেমনটা তারা এই ম্যাচে দেখিয়েছে। ভবিষ্যতে আমরা যদি আরও শক্তিশালী অবস্থানে যেতে চাই তাহলে আমাদের এটাই করে যেতে হবে। পরশুর ম্যাচে গোল করে স্প্যানিশ লা লিগার সর্বোচ্চ গোলদাতার তালিকায় তৃতীয় স্থানে উঠে এসেছেন রোনাল্ডো। এই গোলটির মধ্য দিয়ে প্রায় ৪৫০ মিনিট পর গোলের দেখা পেলেন পর্তুগিজ সুপারস্টার। এইবারের রিরুদ্ধে করা গোলটি লা লিগায় রোনাল্ডোর ২৩৪তম গোল। সাবেক রিয়াল মাদ্রিদ তারকা হুগো সানচেজেরও লা লিগায় গোলসংখ্যা ২৩৪। তবে মেক্সিকান ফরোয়ার্ডের চেয়েও ১৩৪ ম্যাচ কম খেলে সিআর সেভেন এই গোলগুলো করেছেন। লা লিগায় সর্বোচ্চ ২৯০ গোল নিয়ে সবার ওপরে আছেন লিওনেল মেসি। ২৫১ গোল নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছেন সাবেক অ্যাথলেটিক বিলবাও তারকা টেলমো জারা।