২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বরিশালের ছয় পৌরসভায় দু’দলের প্রার্থী চুড়ান্ত

বরিশালের ছয় পৌরসভায় দু’দলের প্রার্থী চুড়ান্ত

স্টাফ রিপোর্টার, বরিশাল ॥ ভোটের আগেই দলীয় নেতৃবৃন্দদের ভোটের মাধ্যমে জেলার ছয়টি পৌরসভায় মেয়র প্রার্থী চুড়ান্ত করেছেন আওয়ামী লীগ ও বিএনপির মনোনয়ন বোর্ডের দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতারা। উভয়দলের জেলা, উপজেলা ও পৌর সভাপতি এবং সাধারন সম্পাদকদের ভোটের মাধ্যমে মেয়র প্রার্থীদের দলীয় মনোনয়ন দিয়ে নাম ঘোষণা করা হয়।

সূত্রমতে, জেলার ছয়টি পৌরসভার মধ্যে সর্বপ্রথম পৌর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে উজিরপুরে। ওই পৌরসভায় আ’লীগের মনোনীত মেয়র প্রার্থী হিসেবে উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মো. গিয়াস উদ্দিনকে, বাকেরগঞ্জ পৌরসভার বর্তমান মেয়র ও আ’লীগ নেতা লোকমান হোসেন ডাকুয়াকে দ্বিতীয়বারের ন্যায়, গৌরনদী পৌরসভার বর্তমান মেয়র ও উপজেলা আ’লীগের সাধারন সম্পাদক মো. হারিছুর রহমানকে দ্বিতীয়বারের ন্যায়, মেহেন্দীগঞ্জের বর্তমান মেয়র আ’লীগ নেতা আলহাজ্ব কামাল উদ্দিনকে দ্বিতীয়বারের ন্যায়, মুলাদী পৌরসভার বর্তমান মেয়র আ’লীগ নেতা সফিক উজ্জামান রুবেলকে দ্বিতীয়বারের ন্যায় ও বানারীপাড়া পৌরসভার বর্তমান মেয়র গোলাম সালেহ মঞ্জু মোল্লার পরিবর্তে উপজেলা আ’লীগের সভাপতি এ্যাডভোকেট সুভাষ চন্দ্র শীলকে দলীয় মেয়র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন দেয়া হয়েছে।

অপরদিকে একই পন্থায় মুলাদী পৌরসভায় বিএনপির মনোনীত মেয়র প্রার্থী হিসেবে বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. হারুন-অর রশিদ খান, বানারীপাড়া উপজেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক মাহবুবুর রহমান মাষ্টার, উজিরপুর পৌর বিএনপির যুগ্ন আহবায়ক শহীদুল ইসলাম খান শহিদ, মেহেন্দিগঞ্জ পৌরসভায় উপজেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক গিয়াস উদ্দিন দীপেন, বাকেরগঞ্জ পৌর বিএনপির আহবায়ক মতিন মোল্লা, গৌরনদী পৌর বিএনপির সাধারন সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. শাহেআলম ফকিরকে দলীয় মনোনয়ন দেয়া হয়েছে। উভয়দলের নির্ভরযোগ্য একাধিক সূত্রে জানা গেছে, কেন্দ্রীয় মনোনয়ন বোর্ডের সভাপতি চাইলে ঘোষিত প্রার্থীদের মধ্যে ২/১জন পরিবর্তনও হতে পারেন।

জেলা নির্বাচন অফিসার আব্দুল হালিম খান বলেন, এখন পর্যন্ত তাদের ঘোষিত ৩ তারিখ মনোনয়নপত্র জমা দেয়া এবং ৩০ ডিসেম্বর ভোট গ্রহণের সিদ্ধান্ত অপরিবর্তিত রয়েছে। তিনি আরও জানান, পৌর নির্বাচনে জেলার বানারীপাড়া পৌরসভায় ৭ হাজার ৪৪৬ জন, নবগঠিত উজিরপুর পৌরসভায় ১০ হাজার ২৯৭ জন, বাকেরগঞ্জে ১২ হাজার ৫০১ জন, মুলাদীতে ১৪ হাজার ৮৪০ জন, মেহেন্দিগঞ্জে ২১ হাজার ৬৬৭ জন এবং গৌরনদীতে ২৭ হাজার ৮৯৮ জন ভোটার মিলিয়ে মোট ৯৪ হাজার ৬৪৯ জন ভোটার তাদের ভোট প্রয়োগ করতে পারবেন।