১৮ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

শুষ্ক পদ্মায় লোভের থাবা

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী ॥ রাজশাহীর পদ্মা নদীর এপারে (শহর অংশ) এখন প্রায় পানিশূন্য। কোথাও কোথাও হাঁটু কিংবা কোমর পানি। দেখলে মনে হবে অসংখ্য পুকুর কিংবা জলাশয়। এরই মধ্যে ছোট ছোট অংশ জালের বেড়া দিয়ে ঘিরে চলছে দখলের মহোৎসব।

পদ্মার তীর দখল করে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন (রাসিক) যখন কাঁটাতারের বেড়া নির্মাণ করে সেখানে লিজ দেয়ার প্রক্রিয়া শুরু করেছে ঠিক তখনই পদ্মার খ- খ- অংশে বাঁশের বেড়ার সঙ্গে জাল টানিয়ে ঘিরে দখল করে মাছ চাষ করা হচ্ছে। স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতা আপেল মাহমুদ নদী দখলের প্রক্রিয়া শুরু করেছে। ফলে নদীর ওই স্থানটি এখন পুকুরে পরিণত করা হয়েছে। নিজের মতো করে দখলে নিয়ে তিনি সেখানে মাছও ছেড়েছেন। একের পর এক নদীর দখলবাজিতে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন নগরবাসী। পদ্মাকে ঘিরে এমন দখলবাজদের বিরুদ্ধে প্রশাসনের শক্ত পদক্ষেপ দাবি করেছেন তারা। মঙ্গলবার সকালে নগরীর পাঠানপাড়া এলাকায় গিয়ে দেখা যায়, পদ্মার খ-িত অংশে জমে থাকা পানিতে বাঁশের বেড়া ও জাল দিয়ে ঘিরে রাখা হয়েছে। বিশাল জায়গাজুড়ে পানি দখল করে সেখানে মাছ চাষ করছেন। স্থানীয় একব্যক্তি নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, যেভাবে পদ্মা এবং পদ্মার তীর দখলের মহোৎসব চলছে, তাতে পদ্মার আসল সৌন্দর্যই হারিয়ে যাচ্ছে।

প্রসঙ্গত, পদ্মার তীর দখল করে লোহা দিয়ে নির্মাণাধীন বেষ্টনীতে কাঁটাতার যুক্ত করছে রাসিক। প্রায় ৫০০ মিটার এলাকাজুড়ে নির্মাণ করা এ বেষ্টনীটিতে কাঁটাতারযুক্ত করায় পদ্মা তীরের প্রাকৃতিক সৌন্দর্যও নষ্ট হচ্ছে। অন্যদিকে এই বেড়া নির্মাণের কারণে এখন যে কেউ চাইলেও ওইদিক দিয়ে ইচ্ছে মতো পদ্মার সৌন্দর্য উপভোগ করতে পারবেন না। এ নিয়ে ফের রাজশাহীর বিভিন্ন মহলে ব্যাপক ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

নদী রক্ষায় সভা

স্টাফ রিপোর্টার, মুন্সীগঞ্জ থেকে জানান, মুন্সীগঞ্জে মঙ্গলবার নদী রক্ষা সভা হয়েছে। জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে নদী রক্ষা কমিটির প্রথম এ সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত সচিব এবং নদী রক্ষা কমিশনের সার্বক্ষণিক সদস্য মোঃ আলাউদ্দিন।

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) কুদ্দুস আলী সরকারের সভাপতিত্বে আলোচনায় অংশ নেন প্রেসক্লাব সভাপতি মীর নাসিরউদ্দিন উজ্জ্বল, বিআইডব্লিউটিএয়ের পরিচালক শহিদুল্লাহ প্রমুখ।

ফরিদপুরে নিখোঁজ ব্যবসায়ীর ৯ হাড় উদ্ধার ॥ গ্রেফতার ২

নিজস্ব সংবাদদাতা, ফরিদপুর, ১ ডিসেম্বর ॥ সদরপুর উপজেলার আড়াইরশি বিলের মধ্যে থেকে মঙ্গলবার ৬ মাস আগে নিখোঁজ ব্যবসায়ী মিজানুর রহমান ওরফে মিন্টুর ব্যাপারীর (২৮) নয়টি হাড় উদ্ধার করেছে পুলিশ। গত ২৪ জুন রাত ১০টায় সদরপুর ইউনিয়নের নয়রশি গ্রামের মৃত দুলাল বেপারীর ছেলে মিজানুর রহমান অপহৃত হয়েছিল।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, মিন্টুর মোবাইল ট্যাকিংয়ের মাধ্যমে শনিবার রাতে সদরপুরের আটরশি এলাকা থেকে সদরপুর ইউনিয়নের আড়াইরশি গ্রামের মৃত রব মাতুব্বরের ছেলে আমিনুল ইসলাম মুন্নু, আমজেদ সরদারের ছেলে সাকিব সরদারকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তাদের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী মঙ্গলবার সকাল ৯টার দিকে আড়াইরশি বিল থেকে এ হাড়গুলো উদ্ধার করা হয়।