২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

আওয়ামী লীগ প্রার্থীদের প্রত্যয়নপত্র হস্তান্তর

  • মনোনয়ন সম্পন্ন

বিশেষ প্রতিনিধি ॥ অবশেষে ২৩৫টি পৌরসভা নির্বাচনে সবগুলোতে আওয়ামী লীগ নিজেদের একক প্রার্থিতা চূড়ান্ত করেছে। টানা দুই দিন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে ‘স্থানীয় সরকার/পৌর মেয়র মনোনয়ন বোর্ড’ চুলচেরা বিশ্লেষণ শেষে পৌরসভায় মেয়র পদে দলীয় প্রার্থিতা চূড়ান্ত করে।

চূড়ান্ত প্রার্থীদের অনুকূলে দলীয় সভানেত্রী শেখ হাসিনা স্বাক্ষরিত চিঠি মঙ্গলবার রাত থেকেই হস্তান্তর শুরু হয়েছে। প্রায় অর্ধ শতাধিক চূড়ান্ত প্রার্থী গভীর রাত পর্যন্ত ধানম-ির আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয় থেকে প্রত্যয়নপত্র সংগ্রহ করে নিজ এলাকায় ফিরে গেছেন। অবশিষ্টদের আজ বুধবার সকালের মধ্যেই প্রত্যয়নপত্র হস্তান্তর করা হবে।

তবে চূড়ান্ত প্রার্থিতা প্রকাশের ক্ষেত্রে বিএনপির মতো আওয়ামী লীগও কৌশলগত অবস্থান নিয়েছে। বৈঠকে প্রথম দিকে চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকা আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণার কথা থাকলেও রাত সাড়ে দশটায় বৈঠক শেষে মনোনয়ন বোর্ডের সদস্যরা জানান, কৌশলগত কারণে এখনই চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকা গণমাধ্যমে দেয়া হবে না। তবে মঙ্গলবার রাত থেকেই চূড়ান্ত প্রার্থীদের অনুকূলে প্রতীক বরাদ্দের চিঠি হস্তান্তর শুরু হয়েছে, যা আজ বুধবার সকালের মধ্যেই সম্পন্ন করা হবে। যাতে আজ বিকেল পাঁচটার মধ্যেই চূড়ান্ত প্রার্থীরা প্রত্যয়নপত্রসহ মনোনয়ন জমা দিতে পারে।

বৈঠক সূত্র জানায়, দলীয় কোন্দল ও নেতৃত্বের প্রতিযোগিতার কারণে অধিকাংশ পৌরসভাতে একক প্রার্থী প্রস্তাবে তৃণমূল আওয়ামী লীগ এক রকম ব্যর্থ হওয়ার পর সব দায় এসে পড়ে কেন্দ্রের ওপর। এমনটা আঁচ করতে পেরে আগে থেকেই সব পৌরসভায় সম্ভাব্য প্রার্থী, কে জনপ্রিয় তার জরিপ করিয়ে রাখেন প্রধানমন্ত্রী। গত দু’দিনের বৈঠকে তৃণমূলের সুপারিশ এবং নিজস্ব জরিপ মিলিয়ে অধিক জনপ্রিয় এবং ত্যাগী নেতাদেরই শেষ পর্যন্ত চূড়ান্ত মনোনয়ন দেয়া হয়। চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকা এবং তাদের অনুকূলে দেয়া প্রতীক বরাদ্দের প্রত্যয়নপত্র দলের পক্ষ থেকে নির্বাচন কমিশনেও জমা দেয়া হবে বলে জানা গেছে।

বৈঠক শেষে যোগাযোগ করা হলে মনোনয়ন বোর্ডের সদস্য এবং আওয়ামী লীগের সভাপতিম-লীর সদস্য মোহাম্মদ নাসিম জনকণ্ঠকে জানান, দু’দিনের বৈঠকে সারাদেশের পৌরসভার মেয়র পদে তৃণমূলের পাঠানো সুপারিশ চুলচেরা বিশ্লেষণ শেষে প্রার্থী তালিকা চূড়ান্ত করা হয়েছে। চূড়ান্ত প্রার্থীদের বরাবরে দলীয় সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা স্বাক্ষরিত প্রত্যয়নপত্র বিতরণ করা হবে। তিনি জানান, মাঠ পর্যায়ের জরিপ এবং তৃণমূল নেতাদের সুপারিশ যাচাই-বাছাই করেই সব প্রার্থীতা চূড়ান্ত করেছে মনোনয়ন বোর্ড।

মনোনয়ন বোর্ডের অপর সদস্য কেন্দ্রীয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফও জনকণ্ঠকে জানান, সব পৌরসভায় দলীয় একক প্রার্থী তালিকা চূড়ান্ত করা হয়েছে। চূড়ান্ত প্রার্থীদের অনুকূলে দলীয় প্রতীক বরাদ্দের প্রত্যয়নপত্রেও প্রধানমন্ত্রী স্বাক্ষর দিয়েছেন। যা প্রার্থীদের কাছে হস্তান্তর করা হবে। চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করা হবে কি না, জানতে চাইলে শুধু এটুকু জানান, এখনই চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করা হবে না।

প্রথম দফায় সোমবার রাতে ‘স্থানীয় সরকার/পৌর মেয়র মনোনয়ন বোর্ড’ প্রথমবারের মতো বৈঠকে বসে। বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ২৩৬ পৌরসভার প্রায় অর্ধেকের বেশি মনোনয়ন প্রাথমিক চূড়ান্ত হয় এ বৈঠকে। পরে মঙ্গলবার রাত অবধি দ্বিতীয় দফা দীর্ঘ বৈঠকে সব প্রার্থীদের নাম চূড়ান্ত শেষে প্রধানমন্ত্রী প্রার্থীদের অনুকূলে প্রতীক বরাদ্দের প্রত্যয়নপত্রে স্বাক্ষর করেন। এরপরই চূড়ান্ত প্রার্থীদের অনুকূলে প্রত্যয়নপত্র বিতরণের প্রক্রিয়া শুরু হয়। বৈঠক শেষে ধানম-ির দলীয় সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে আনুষ্ঠানিক ব্রিফিংয়ের কথা থাকলেও রাত ১১টায় জানানো হয়, কোন ব্রিফিং কিংবা গণমাধ্যমে এখন চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকা দেয়া হবে না। চূড়ান্ত প্রার্থীদের দলীয় প্রত্যয়নপত্রের চিঠি আজ দুপুরের মধ্যেই হস্তান্তর করা হবে। তবে মঙ্গলবার রাতেই বেশিরভাগ প্রার্থী দলীয় মনোনয়ন সংগ্রহ করেছেন।

নানা সূত্র থেকে নিশ্চিত হওয়া গেছে- সিলেট বিভাগে চূড়ান্ত মনোনয়ন পেয়েছেন সুনামগঞ্জ সদর পৌরসভায় আইয়ুব ইসলাম জগলুল, জগন্নাথপুরে আবদুল মান্নান, ছাতকে আবুল কালাম চৌধুরী, দিরাইতে মোশাররফ মিয়া, মৌলভীবাজার সদরে ফজলুর রহমান, কুলাউড়ায় শাহ আলম ইউনুস, বড়লেখায় আবু ইমাম মোঃ কামরান চৌধুরী, কমলগঞ্জে জুয়েল আহমেদ, হবিগঞ্জ সদরে আতাউর রহমান সেলিম, নবীগঞ্জে অধ্যাপক তোফাজ্জল ইসলাম, চুনারুঘাটে সাইফুল ইসলাম, মাধবপুরে হীরেন্দ্র নাথা সাহা, শায়েস্তাগঞ্জে ছালেক মিয়া, জকিগঞ্জে হাজী মোঃ খলিল উদ্দিন, সিলেটের গোপালগঞ্জে সৈয়দ মেজবাহ উদ্দিন।

রংপুর বিভাগে চূড়ান্ত মনোনয়ন পেয়েছেন- পঞ্চগড় সদরে জাকিয়া আক্তার, ঠাকুরগাঁও সদরে তাহমিনা মোল্লা, পীরগঞ্জে তরিকুল মিয়া, রানিশংকৈলে আলমগীর হোসেন, বীরগঞ্জে মোশাররফ হোসেন বাবলু, বিরামপুরে আক্কাছ আলী, হাকিমপুরে জামিল হোসেন চলন্ত, সৈয়দপুর সদরে সাখাওয়াত হোসেন খোকন, জলঢাকায় আবদুল ওয়াহেদ বাহাদুর, গাইবান্ধা সদরে শাহ মাসুদ, গোবিন্দগঞ্জে আতাউর রহমান, সুন্দরগঞ্জে আবদুল্লাহ আল মামুন, কুড়িগ্রামে আবদুল জলিল, লালমনিরহাট সদরে রিয়াজুল ইসলাম মন্টু, পাটগ্রামে শমসের আলী, নীলফামারী সদরে আকতার হোসেন খোকন ও জলঢাকায় বাহাদুর।

এছাড়া কুমিল্লার দাউদকান্দিতে নাইম ইউসুফ, চাঁদপুরের কচুয়ায় নাজমুল হাসান স্বপন, ফরিদগঞ্জে জিল্লুর রহমান, চৌদ্দগ্রামে মিজানুর রহমান, হোমনায় নজরুল ইসলাম, হাজীগঞ্জে মাহবুবুল আলম লিপন, সীতাকু-ে নায়েক (অব.) শফিউর রহমান, রাঙ্গুনিয়ায় শাহজাহান শিকদার, সাতকানিয়ায় জুবায়ের আহমেদ, বগুড়া সদরে রেজাউল করিম মন্টু, শিবগঞ্জে মানিক, সিরাজগঞ্জ সদরে মুক্তা সিরাজী, নন্দীগ্রামে রফিকুল ইসলাম পিন্টু, ভাঙ্গুরায় গোলাম আহসান রাসেল, শরিয়তপুরে আমিন কোতোয়াল, কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচরে আবুল হাসান, ঝিনাইদহের কোর্ট চাঁদপুরে শহীদুজ্জামান, পাবনার চাটমোহরে সাখাওয়াত হোসেন সরকার, সুজানগরে আবদুল ওহাব, রাজশাহীর চারঘাটে নার্গিস খাতুন, তানোরে ইমরুল হক চূড়ান্ত মনোনয়ন পেয়েছেন।

অপর একটি সূত্র শতভাগ নিশ্চিত না করলেও জানিয়েছেন চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ে নিজামউদ্দিন চৌধুরী, রাউজানে দেবাশীষ পালিত, পটিয়ায় হারুন অর রশিদ, সন্দ্বীপে জাফরুল্লাহ, বাঁশখালীতে সেলিমুল হক, ফেনী সদরে হাজী আলাউদ্দিন, কুমিল্লার বরুড়াতে বাহারুজ্জামান, ঢাকার সাভারে আবদুল গণি, মুন্সীগঞ্জ সদরে হাজী ফয়সাল আহমেদ বিপ্লব, মীরকাদিমে শহীদুল ইসলাম শাহিন, মাদারীপুর সদরে খালিদ হাসান ইয়াদ, টাঙ্গাইল সদরে জামিলুর রহমান মিরন, কালীহাতিতে আনসার আলী, নেত্রকোনা সদরে নজরুল ইসলাম খান, মোহনগঞ্জে এ্যাডভোকেট লতিফুর রহমান রতন, মদনে আবদুল হান্নান, কেন্দুয়ায় আসাদুল হক ভুঁইয়া, দুর্গাপুরে আবদুস সালাম, মেহেরপুরের গাংনী পৌরসভায় আহমেদ আলী, কুষ্টিয়া সদরে আনোয়ার আলী, বরিশালের বাকেরগঞ্জে লোকমান হোসেন ডাকুয়া, উজিরপুরে হারিস, বেতাগীতে গোলাম কবির, পিরোজপুর সদরে হাবিবুর রহমান মালেক, বানারীপাড়ায় সুভাষ চন্দ্র শীল, গৌরনদীতে হারিছুর রহমান, তারাবো পৌরসভায় হাসিনা গাজী চূড়ান্ত মনোনয়ন পেতে যাচ্ছেন। রাত একটায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত সারাদেশ থেকে আসা আওয়ামী লীগের চূড়ান্ত মনোনয়ন পাওয়া প্রার্থীরা ধানম-ির কার্যালয় থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা স্বাক্ষরিত চূড়ান্ত মনোনয়নের প্রত্যয়নপত্র সংগ্রহ করছেন।

নির্বাচিত সংবাদ