২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

চট্টগ্রাম পর্ব শেষ হচ্ছে আজ

স্পোর্টস রিপোর্টার, চট্টগ্রাম থেকে ॥ বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগের (বিপিএল টি২০) তৃতীয় আসরের চট্টগ্রাম পর্ব শেষ হচ্ছে আজ। দুপুর ২টায় রংপুর রাইডার্স ও বরিশাল বুলস এবং সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় চিটাগাং ভাইকিংস ও কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স মুখোমুখি হবে। এ দু’টি ম্যাচ শেষ হতেই টুর্নামেন্টের এবারের আসরের দ্বিতীয় ধাপও শেষ হয়ে যাবে।

প্রথম লেগে রংপুর ও বরিশালের মধ্যকার ম্যাচে জয়ী হয় বরিশালই। রংপুরকে ১৩ রানে হারায় বরিশাল। এ ম্যাচটি তাই রংপুরের জন্য প্রতিশোধের ম্যাচই। শুধু প্রতিশোধ নেয়ার ম্যাচই নয়, পয়েন্ট তালিকায় একদল আরেক দলকে নিচে ফেলার বিষয়ও থাকছে। দুইদল এখন পিঠাপিঠি অবস্থানে আছে। বরিশাল বুলস ৫ ম্যাচে ৪ জয় নিয়ে ৮ পয়েন্ট পেয়েছে। রংপুর রাইডার্সের অবস্থাও একই। দলটি ৬ ম্যাচে ৪ জয়ে ৮ পয়েন্ট পেয়েছে। যে দল জিতবে উপরে উঠে যাবে। চিটাগাংয়ের জন্যও কুমিল্লাকে হারিয়ে প্রতিশোধ নেয়ার পালা। প্রথম লেগে কুমিল্লার কাছে যে ৭ উইকেটের বড় ব্যবধানে হেরেছিল চিটাগাং। আজ চট্টগ্রাম পর্ব যে শেষ হচ্ছে এ দিনটিতে একটি দলই আছে বিপাকে। সে দলটি হচ্ছে চিটাগাং ভাইকিংস। দলটি ঢাকায় খারাপ অবস্থায় ছিল। চট্টগ্রামে ঘরের মাঠে খেলেও সেই অবস্থা দূর করতে পারেনি। তাই দলটিকে টুর্নামেন্টে টিকে থাকতে হলে আজ জিততেই হবে।

চিটাগাংয়ের কোচ শ্রীলঙ্কান মারভান আতাপাত্তু অবশ্য আগেই জানিয়ে দিয়েছেন তাদের আশার কথা। বলেছেন, ‘আশা আছে।’ সেই আশা লীগ পর্বের গ-ি অতিক্রম করার। বলেছেন, ‘এখনও সুযোগ আছে।’ তবে বাস্তবতাও বুঝছেন আতাপাত্তু। বলেছেন, ‘তবে এটার জন্য এখন থেকেই অনেক ভাল খেলতে হবে। আমাদের রানরেটও অনেক বাড়িয়ে নিতে হবে।’ সঙ্গে যোগ করেন ‘টি২০ ফানি গেম। দ্রুত চিন্তা করতে হয়।’ সঙ্গে যোগ করেন, ‘আইপিএল ও সিপিএলেও এমনটি হয়। ডাবললীগ পদ্ধতির টুর্নামেন্টে খারাপ অবস্থা থেকে আবার ফিরে আসে ভাল অবস্থায়। আমাদের আশা, তেমনটিই হবে। গুরুত্বপূর্ণ হল, আমরা কিভাবে নিজেদের উপস্থাপন করতে পারছি। আমরা জানি প্রতিটি ম্যাচই গুরুত্বপূর্ণ। এই গেমটাই হচ্ছে আত্মবিশ্বাসের গেম। এখানে দুই সপ্তাহে জন্টি রোডস বা হার্সেল গিবস বানিয়ে ফেলা যায় না। তবে আশা করছি আত্মবিশ্বাস ফিরবে এবং দলও ভাল অবস্থায় ফিরবে।’ এখন তা হলেই হয়।

চট্টগ্রাম পর্ব শেষে আবার ঢাকা পর্ব শুরু হবে। যে পর্বে তিনটি ধাপ থাকছে। লীগ পর্বের শেষ ধাপ হবে। এরপর প্রথম কোয়ালিফায়ার, এলিমিনেটর ও দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ার ম্যাচ হবে। ৬ থেকে ১০ ডিসেম্বর লীগ পর্বের বাকি খেলাগুলো হবে। এরপর পয়েন্ট তালিকায় যে চারটি দল শীর্ষে থাকবে তারা লীগ পর্বের গ-ি অতিক্রম করবে। পয়েন্ট তালিকার তলানিতে থাকা দুইদলের বিদায় ঘণ্টা বাজবে।

লীগ পর্বের পরে ১২ ডিসেম্বর পয়েন্ট তালিকার শীর্ষ ও দ্বিতীয় দলের মধ্যে প্রথম কোয়ালিফায়ার (প্রথম সেমিফাইনাল) ম্যাচ হবে। যে জিতবে ফাইনালে চলে যাবে। হারা দলের ফাইনালে ওঠার জন্য আরেকটি ম্যাচ খেলার সুযোগ থাকবে। একইদিন সন্ধ্যায় এলিমিনেটর ম্যাচও হবে। পয়েন্ট তালিকার তৃতীয় ও চতুর্থ দলের মধ্যকার ম্যাচ হবে। যে দল হারবে টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় নেবে। জেতা দল পরেরদিন প্রথম কোয়ালিফায়ার ম্যাচের হারা দলের বিপক্ষে লড়াই করবে। এ ম্যাচটি হচ্ছে দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ার (দ্বিতীয় সেমিফাইনাল)। এ ম্যাচটিতে যে দল হারবে বিদায় নেবে। যে দল জিতবে ফাইনালে উঠবে। প্রথম কোয়ালিফায়ার ও দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারের ম্যাচের জেতা দলের মধ্যকার ১৫ ডিসেম্বর ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হবে। যে জিতবে তৃতীয় আসরের শিরোপা তাদেরই হবে। এর আগে আজ চট্টগ্রামে যে একটি পর্বই হচ্ছে সেটি শেষ হয়ে যাবে।