২১ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

পৌর নির্বাচন পুঁজি করে মাঠ গোছাচ্ছে বিএনপি

  • টার্গেট সরকারবিরোধী আন্দোলন

খোকন আহম্মেদ হীরা, বরিশাল ॥ সরকারবিরোধী আন্দোলনে ব্যর্থ হয়ে নাশকতার একাধিক মামলায় গ্রেফতার কিংবা আতঙ্কে পালিয়ে বেড়ানো ছন্নছাড়া বিএনপি এবার নতুন করে দল গোছাতে পৌর নির্বাচনকে পুঁজি করেছেন। নির্বাচনে দলের মনোনীত প্রার্থীকে বিজয়ী করা তাদের মূল উদ্দেশ্য নয়; টার্গেট নির্বাচনের শেষভাগে নাটকীয়ভাবে নির্বাচন বর্জন করেই সরকারবিরোধী আন্দোলনে তারা মাঠে থাকবে। আর এ জন্যই দলের সক্রিয় নেতাদের দূরে রেখে নিষ্ক্রিয় নেতাকর্মীদের দলীয় মনোনয়ন দেয়া হয়েছে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে দলের নীতিনির্ধারক পর্যায়ের বিশ্বস্ত একাধিক সূত্র থেকে এসব তথ্য পাওয়া গেছে। সূত্রে আরও জানা গেছে, সরকারবিরোধী আন্দোলনই তাদের কাছে মুখ্য বিষয়। তাই আন্দোলনে সক্রিয় নেতাদের জোড়ালো ভূমিকা রাখতে হবে। সে জন্যই কৌশলে তাদের নির্বাচনে না জড়িয়ে (মনোনয়ন না দিয়ে) মাঠ গোছানোর দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। পৌর নির্বাচনকে পুঁজি করে প্রতিটি বিভাগে দলের চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার সফরেরও কথা রয়েছে। সূত্রমতে, মাঠ গোছানো থেকে শুরু করে এবারের আন্দোলনে রাজপথে অগ্রণী ভূমিকা পালন করার কথা রয়েছে সংস্কারপন্থী হিসেবে দীর্ঘদিন দল থেকে দূরে সরিয়ে রাখা বিএনপির সাবেক মন্ত্রী ও এমপিদের। সূত্রগুলো আরও জানিয়েছে, দলের চেয়ারপার্সন লন্ডন থেকে ফিরে সংস্কারপন্থী নেতাদের দলে ফিরিয়ে আনার জন্য অতি গোপনে যোগাযোগ শুরু করেছেন। যে কারণে এবারের পৌর নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন বোর্ডের গুরুতপূর্ণ পদের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে একসময়ে প্রভাবশালী সংস্কারপন্থী নেতা মোঃ শাহজাহানকে। সে অনুযায়ী প্রকাশ্যেই দলীয় কর্মসূচীতে অংশগ্রহণ করা শুরু করেছেন বরিশালের এক সময়ের প্রভাবশালী সংস্কারপন্থী নেতা ও বিএনপিদলীয় সাবেক সাংসদ মোশারফ হোসেন মঙ্গুসহ তার অনুসারীরা।

এ বিষয়ে বৃহস্পতিবার বিকেলে জেলার গৌরনদী পৌর এলাকায় দলীয় প্রার্থীর পক্ষে গণসংযোগে অংশ নেয়া বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য ইঞ্জিনিয়ার আব্দুস সোবাহান বলেন, অন্য কোন কারণে নয়। শুধু দলের চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার নির্দেশনা পেয়ে দলের মনোনীত প্রার্থীর বিজয়ের লক্ষ্যে তারা মাঠপর্যায়ে কাজ শুরু করেছেন। অন্য কোন ব্যাপারে তিনি মন্তব্য করতে রাজি হননি।