২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ঠাকুরগাঁওয়ে আ’লীগের মনোনীত তাহমিনার প্রার্থিতায় বিস্ময় ও স্বস্তি

নিজস্ব সংবাদদাতা, ঠাকুরগাঁও ॥ ঠাকুরগাঁও পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে আ’লীগের দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন জেলা যুব মহিলা লীগের আহ্বায়ক তাহমিনা মোল্লা। মঙ্গলবার কেন্দ্রীয় মনোনয়ন বোর্ড তাঁকে মনোনয়ন দেয়। এ সিদ্ধান্তে স্থানীয় লোকজনসহ আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা বিস্মিত হলেও দলীয় কোন্দল এড়ানো সম্ভব হওয়ায় তাঁরা স্বস্তি বোধ করছেন বলে জানা গেছে।

শুক্রবার সকালে শহরের চৌরাস্তার চায়ের আড্ডায় রফিকুল ইসলাম নামে আওয়ামীলীগের এক কর্মী হঠাৎ শ্লোগান তোলেন, ‘জয় বাংলা-জয় তাহমিনা মোল্লা/ যারা গ্র“পিংয়ে ব্যস্ত/ তারা নিজ পদ সামলা’। মঙ্গলবার রাত থেকে এভাবে শহরের পাড়া-মহল্লার দোকানপাটে, গলির মোড়ে, আড্ডা-গল্পে এবার আওয়ামীলীগ থেকে তাহমিনা মোল্লার মনোনয়ন পাওয়াটাই নিয়েই চলছে মূল আলোচনার বিষয়।

আওয়ামীলীগের স্থানীয় দলীয় সূত্রে জানা যায়, পৌরসভার বর্তমান মেয়র ও জেলা কমিটির সদস্য এস এম এ মঈন, জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি মকবুল হোসেন, জেলা কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ স ম গোলাম ফারুক, পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক একরামুল হক, পৌরসভার সাবেক চেয়ারম্যান সোলায়মান আলী সরকার, জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল মজিদ ওরফে আপেল, জেলা যুব মহিলা লীগের আহ্বায়ক তাহমিনা মোল্লা, পৌরসভার প্যানেল মেয়র বাবলুর রহমান ও জেলা কমিটির সদস্য আবু জাফর শামসুদ্দিন মেয়র পদে মনোনয়ন প্রত্যাশী হিসেবে আবেদন করেছিলেন।

আওয়ামীলীগের কর্মী ও পুরোনো কাপড় ব্যবসায়ী শেখ মিন্টু বলেন, ‘শহরে আওয়ামীলীগের দুটি পক্ষ আছে। পৌর নির্বাচনে যাঁরা দলের প্রার্থী হতে আবেদন করেছিলেন, তাঁরা সবাই কোনো না কোনো পক্ষের। মেয়র পদে তাঁদের কাউকে মনোনয়ন না দিয়ে এ দুই পক্ষের বাইরে একজন নারীকে প্রার্থী করার কথা শুনে অবাক হয়েছিলাম। তবে এমন প্রার্থী পেয়ে আওয়ামীলীগের সাধারণ কর্মীরা খুশি।’

জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও বর্তমান জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য শফিউল ইসলাম বলেন, কেন্দ্রীয় মনোনয়ন বোর্ডের এ সিদ্ধান্তে তিনি বিস্মিত হননি। জেলা আওয়ামীলীগের নেতৃত্ব নিয়ে যাঁরা কোন্দলে ব্যস্ত, তাহমিনা মোল্লার মনোনয়ন তাঁদের প্রতি দলের সভানেত্রীর একধরনের সংকেত বলে তিনি মন্তব্য করেন।

জেলা কমিটির শিক্ষাবিষয়ক সম্পাদক হাবীব আহমেদ উলুব্বী বলেন, ‘দলে যাঁকেই মনোনয়ন দেওয়া হোক না কেন, আমরা তাঁর পক্ষেই কাজ করে যাব।’ সাবেক মেয়র ও জেলা কমিটির সদস্য এস এম এ মঈনও কেন্দ্রীয় মনোনয়ন বোর্ডের এ সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানান।

মনোনয়ন পাওয়া তাহমিনা মোল্লা বলেন, ‘মেয়র পদে মনোনয়ন দিয়ে দল আমাকে যে সম্মান দিয়েছে, তার প্রতিদান হিসেবে আমি দলকে পৌর আসনটি উপহার দিতে চাই।’

ঠাকুরগাঁও-১ আসনের সাংসদ রমেশ চন্দ্র সেন বলেন, ‘কেন্দ্রীয় মনোনয়ন বোর্ড স্থানীয় নেতাদের সঙ্গে পরামর্শ না করে মেয়র পদে দলের প্রার্থী চূড়ান্ত করেছে। জেলা আওয়ামীলীগের নেতৃত্বের জন্য এ সিদ্ধান্ত সংকেত কি না, বলতে পারছি না। তবে কেন্দ্র বিচার-বিবেচনা করে তাঁকে যোগ্য মনে করেছে বলেই মনোনয়ন দিয়েছে। আমরাও দলের সিদ্ধান্ত মেনে নিয়ে তাঁর পক্ষেই কাজ করব।