২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

নিখোঁজদের সন্ধান পেতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চাইল ১৯ পরিবার

বিডিনিউজ ॥ নিখোঁজের দুই বছরে সন্ধান না মিললেও তারা ‘নেই’ তা বিশ্বাস করতে পারছেন না স্বজনরা, তাই প্রিয়জনের ফেরার অপেক্ষায় প্রতিটি মুহূর্ত কাটার কথা জানালেন ঢাকার ১৯ পরিবারের সদস্যরা।

তত্ত্বাবধায়ক সরকার পুনর্বহাল ও দশম সংসদ নির্বাচন ঠেকাতে বিএনপি নেতৃত্বাধীন জোটের আন্দোলনের মধ্যে দুই বছর আগে ঢাকা থেকে এই ১৯ জন নিখোঁজ হয়েছিলেন বলে তাদের স্বজনরা জানিয়েছেন। শুক্রবার জাতীয় প্রেসক্লাব এক সংবাদ সম্মেলনে হাজির হয়ে নিখোঁজদের খুঁজে পেতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ চাইলেন তারা।

নিখোঁজরা হলেন বিএনপির ঢাকা মহানগরের ২৫ নম্বর ওয়ার্ডের সাধারণ সম্পাদক সাজেদুল ইসলাম সুমন, জাহিদুল করিম তানভীর, পূর্ব নাখালপাড়ার আব্দুল কাদের ভূইয়া ওরফে মাসুম, মাজহারুল ইসলাম রাসেল, কমলাপুরের আসাদুজ্জামান রানা, আল-আমিন, এমএ আদনান চৌধুরী, কাউসার, সেলিম রেজা পিন্টু, খালিদ হাসান সোহেল, সম্রাট মোল্লা, জহিরুল ইসলাম ওরফে হাবিবুর বাশার জহির, মোঃ পারভেজ হোসেন, মোঃ সোহেল, মোঃ সোহেল চঞ্চল, নিজাম উদ্দিন মুন্না, তরিকুল ইসলাম ঝন্টু, মাহবুব হাসান সুজন ও কাজী ফরহাদ। এদের অধিকাংশই ঢাকার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্র ছিলেন বলে স্বজনরা জানিয়েছেন। তাদের অভিযোগ, ২০১৩ সালের নবেম্বর থেকে ডিসেম্বর মাসে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা থেকে গোয়েন্দা পুলিশ ও র‌্যাব পরিচয়ে ওই ১৯ জনকে ধরে নেয়া হয়। পরে থানায় খেঁাঁজ নিয়ে তাদের বিষয়ে কোন তথ্য পাওয়া যায়নি। নিখোঁজ সাজেদুল ইসলাম ওরফে সুমনের মা হাজেরা খাতুন সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পড়েন।

সন্তানের সন্ধান পেতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চেয়ে তিনি বলেন, ‘আর পারি না, বাবা। দুই বছর হয়ে গেল। তার পরেও আমরা এখনও আশায় আছি।’ নিখোঁজদের কারও মা, কারও বাবা, ভাই-বোন এবং কারও কারও স্ত্রী সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন। স্বামী, সন্তান বা ভাই ফিরে আসবেন বলে অপেক্ষায় থাকার কথা জানান তারা। নিখোঁজ একজনের সন্তান অরোয়া; বাবা উধাও হওয়ার সময় দুই বছরের ছেলেটি এখন অনেক কিছু বোঝে। ‘ও বাবার ছবির দিকে তাকিয়ে থাকে এবং তার ফিরে আসার অপেক্ষা করে,’ বলেন শিশুটির মা।