১৯ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

রাণীনগরে কবি গুরুর স্মৃতি বিজড়িত কাচারি বাড়িটি ধ্বংসের মুখে

রাণীনগরে কবি গুরুর স্মৃতি বিজড়িত কাচারি বাড়িটি ধ্বংসের মুখে

নিজম্ব সংবাদদাতা, নওগাঁ॥ নওগাঁর রাণীনগর উপজেলার ভান্ডারগ্রামে কবি গুরু রবীন্দ্র নাথ ঠাকুরের স্মৃতি বিজড়িত কাচারি বাড়িটি বর্তমানে ধ্বংসের মুখে। ্ওই কাচারি বাড়ির শত বছরের পুরনো মাটির তৈরি প্রধান ভবনটি পরবর্তীতে ভা-ারগ্রাম ইউনিয়ন ভূমি অফিস হিসেবে কার্যক্রম শুরু করা হয়। বর্তমানে ধ্বংস প্রায় এই মাটির তৈরি ঘরেই ভূমি অফিসের যাবতীয় গুরুত্বপূর্ণ কাজ করতে বাধ্য হচ্ছেন সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।

জানা গেছে, তদানীন্তন বৃটিশ শাসনামলে ১৮৩০ খ্রিস্টাব্দে বিশ্বকবি রবীন্দ্র নাথ ঠাকুরের পিতামহ দ্বারকানাথ ঠাকুর এই কালিগ্রাম পরগনাকে ক্রয় করে ঠাকুর পরিবারের জমিদারীর অংশ হিসেবে আত্রাইয়ের পতিসরের সঙ্গে অর্ন্তভুক্ত করেন। এরপর বিশ্বকবি ১৮৯১ খ্রিস্টাব্দের ১৩ জানুয়ারি প্রথম আসেন তার এই পতিসরের কাচারি বাড়িতে। এখানে তিনি জমিদারী দেখাশোনা ও খাজনা আদায় করতেন। ভা-ারগ্রাম ইউনিয়ন ভূমি অফিসের (কাচারি বাড়ি) ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নাহাদুল হক জানান, একাধিকবার ঊর্ধ্বতন বিভাগ বরাবর কবি গুরুর স্মৃতি বিজড়িত এই ঝুঁকিপূর্ণ কাচারিটি সংস্কার করে সংরক্ষণ করার এবং পাশে আধুনিক মানসম্মত ভবন তৈরির জন্য সংশ্লিষ্ট উর্ধতন কর্তৃপক্ষ বরাবর লিখিত আবেদন করা হলেও আজ পর্যন্ত কোন ফল পাওয়া যায়নি।

এব্যাপারে রানীনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সোনিয়া বিনতে তাবিব জানান, কাচারির সকল সমস্যা ও বিশ্বকবির স্মৃতি রক্ষার্থে অতিদ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণ করার জন্য ওপড়মহল বরাবর ফের লিখিত আবেদন