১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

পার্বতীপুরে ধর্মসভায় জামায়াতপস্থী বক্তা রোষানলে

নিজস্ব সংবাদদাতা, পার্বতীপুর॥ ধর্মসভায় প্রধান বক্তা আপত্তিকর বক্তব্য দেওয়ায় জনতার রোষানলে পড়ে সহযোগীদের সহায়তায় স্থান ত্যাগ করেছেন। পার্বতীপুর শহর থেকে ১৫ কি.মি দূরে খয়েরপুকুর হাটে শুক্রবার রাত ১০ টায় এ ঘটনা ঘটেছে। সূত্রমতে এই হাটে অবস্থিত দারুস সালাম হাফেজিয়া মাদ্রাসার সৌজন্যে অনুষ্ঠিত এ ধর্মসভায় সভাপতি ছিলেন হরিরামপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি শাহাবুদ্দিন শাহ। সভার শুরতে তিনি বক্তাদের সরকার বিরোধী ও আপত্তিকর বক্তব্য না দেওয়ার জন্য ঘোষনা দেন। তারপরও প্রধান বক্তা মওলানা সানওয়ার হোসাইন সাইফি জেহাদী স্টাইলে বক্তব্য দেন। এক পর্যায়ে বলেন বঙ্গবন্ধু ক্ষমা দিয়ে গেছেন। তার দল ক্ষমা করেনা। মোনাজাতে সাঈদীর উদ্দ্যেশে বলেন, হে আল্লাহ আমাদের মোফাচ্ছের ( কোরআন তফসিরকারক) আর কতকাল বন্দি থাকবে। এ অবস্থায় সভাস্থলে বিশৃংঙ্খল অবস্থার সৃষ্টি হয় । জনগন মারমূখী হয়ে উঠে। এর আগে একই ইউনিয়নের খাগড়াবন্দ দারুস সালাম হাফিজিয়া এতিমখানা ও দক্ষিন হরিরাপুর বারঘরিয়ায় কোরআন মাহফিলে জামায়াতী মওলানা বক্তৃতা দিতে উঠলে জনগনের আপত্তির মূখে সভাস্থল ত্যাগ করতে হয়। শীত মওসুম শুরু হতেই এলাকায় ধর্মসভার ধুম পড়েছে। এই সুযোগ নিচ্ছেন জামায়াতীরা । অধিকাংশ ধর্মসভায় জামায়াতপস্থী মওলানারা আমন্ত্রিত হয়ে তাদের মতকরে বক্তব্য দিচ্ছেন। তবে বেশীরভাগ ক্ষেত্রেই বাধার মূখে পড়ছেন বলে জানা গেছে।