২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

স্পন্সর প্রতিষ্ঠানকে সালাউদ্দিনের ধন্যবাদ

  • সুপার মক কাপ ফুটবলে ভাল ফলের লক্ষ্যে বাংলাদেশ অনুর্ধ-১২ ও ১৩ দলের মালয়েশিয়া যাত্রা আজ

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ আগামী ৭ ডিসেম্বর থেকে মালয়েশিয়ায় শুরু হচ্ছে ‘সুপার মক কাপ ফুটবল।’ এই আসরে অংশ নিতে রবিবার সকালে মালয়েশিয়ায় যাচ্ছে ৪২ সদস্যের অনুর্ধ-১২ ও ১৩ বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দল। এ নিয়ে টানা দ্বিতীয়বার এই আসরে অংশ নিচ্ছে বাংলাদেশের ক্ষুদে ফুটবলাররা।

শনিবার বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) কনফারেন্স রুমে এক সংবাদ সম্মেলনে এই তথ্য জানানো হয়। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বাফুফে সভাপতি কাজী মোঃ সালাহউদ্দিন, সিনিয়র সহ-সভাপতি সালাম মুর্শেদী, বাংলাদেশ ফুটবল ডেভেলপমেন্ট কমিটির চেয়ারম্যান এবং বাফুফের সহ-সভাপতি বাদল রায় ও টুর্নামেন্টে বাংলাদেশ দলের পৃষ্ঠপোষক ম্যাক্স গ্রুপের চেয়ারম্যান প্রকৌশলী গোলাম মোঃ আলমগীর। এ ছাড়া আরও উপস্থিত ছিলেন দু’দলের ম্যানেজার ইঞ্জিনিয়ার সিরাজুল ইসলাম ও মানস দাস ধলু, প্রধান প্রশিক্ষক যথাক্রমে মোস্তফা আনোয়ার পারভেজ বাবু ও জাকারিয়া বাবু, দুই অধিনায়ক ইয়াসিন আরাফাত ও ফাহিম মুর্শেদ, বাফুফে সদস্য ফজলুর রহমান বাবুল, সদস্য শামসুল হক চৌধুরী এমপি, সদস্য ইলিয়াছ হোসেন, বাফুফে সাধারণ সম্পাদক আবু নাইম সোহাগ প্রমুখ। সংবাদ সম্মলনে মকের সার-সংক্ষেপ তুলে ধরে বাফুফে জানায়, টুর্নামেন্টে প্রতিদিন প্রতিটি গ্রুপের সব দলকে ২টি খেলায় অংশ নিতে হবে। একটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে সকালে, অপরটি বিকেলে।

এই আসরে অনুর্ধ-১২ বাংলাদেশ খেলবে ‘সি’ গ্রুপে। যেখানে তাদের প্রতিপক্ষ হচ্ছে : সিউল সিন্দাপ (দ. কোরিয়া), জিওজে কিমিজিংইউ (দ. কোরিয়া), মালয়েশিয়া কুগার্স ও জিওনসা (মালয়েশিয়া)। অনুর্ধ-১২ মকে অংশ নেয়া দেশগুলো হচ্ছে : বাংলাদেশ, দ. কোরিয়া, উজবেকিস্তান, থাইল্যান্ড, মালয়েশিয়া, চীন, ইরান ও ফিলিপাইন। অন্যদিকে অনুর্ধ-১৩ আসরে বাংলাদেশ দল খেলবে ‘ডি’ গ্রুপে। যেখানে তাদের বিপক্ষে খেলবে পোহাং স্টিলার্স (দ. কেরিয়া), গামবা ওসাকা (জাপান) ও বুরিরাম ইউনাইটড (থাইল্যান্ড)। অনুর্ধ-১৩তে অংশ নেয়া দেশগুলো হল: বাংলাদেশ, ব্রাজিল, ইংল্যান্ড, জাপান, দ. কোরিয়া, মালয়েশিয়া, ক্রোয়েশিয়া, ইরান, থাইল্যান্ড, স্পেন, উজবেকিস্তান ও ফিলিপাইন। উল্লেখ্য, এই দুই বয়সভিত্তিক আসরে একমাত্র বাংলাদেশই তাদের জাতীয় দল পাঠিয়েছে। আর বাকি দেশগুলো তাদের ক্লাব দল পাঠিয়েছে। এই টুর্নামেন্ট চলবে ১৪ ডিসেম্বর পর্যন্ত। টুর্নামেন্টে ভাল ফলের প্রত্যাশায় প্রতিভাবান ফুটবলার অন্বেষণ করে দলগঠন করেছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)। এ উপলক্ষে গত ৩ ও ৪ নবেম্বর বাফুফে সংলগ্ন আর্টিফিসিয়াল টার্ফে অনুর্ধ-১২ বছর বয়সী ফুটবলারদের ট্রায়াল অনুষ্ঠিত হয়। ট্রায়াল প্রোগ্রামটি পরিচালনা করেন বাফুফের ইয়ুথ ফুটবল প্রশিক্ষক গঞ্জালো সানচেজ মোরেনো। ভালমানের ফুটবলার বাছাই করতে তাকে সহায়তা করেন বাফুফের ১০ ফুটবল কোচ। ট্রায়ালের মাধ্যমে অনুর্ধ-১২ জাতীয় ফুটবল দলের জন্য ২৬ জনকে চূড়ান্তভাবে বাছাই করা হয়। চার সপ্তাহের প্রস্তুতি নিয়ে মক কাপ খেলতে যাচ্ছে বাংলাদেশ দল। অনুর্ধ-১২ দল সিলেট ফুটবল একাডেমিতে অনুশীলন করে। বাফুফে সভাপতি সালাহউদ্দিন বলেন, ‘ম্যাক্স গ্রুপের চেয়ারম্যানকে অশেষ ধন্যবাদ। আলমগীর ভাইয়ের মতো আরও ১০/১২ জন ক্রীড়াপ্রেমী-ব্যবসায়ী থাকলে এদেশের ফুটবল অবশ্যই উন্নতি করবে।’

অনুর্ধ-১২ দলের কোচ পারভেজ বলেন, ‘এই ধরনের টুর্নামেন্টে খেলতে খেলতে এক সময় বাংলাদেশ দলের ভবিষ্যত তারকা ফুটবলার তৈরি হবে। এ আসরে আমরা সম্মানজনক ফল করার চেষ্টা করবো।’ দলের অধিনায়ক-ডিফেন্ডার আরাফাতের ভাষ্য, ‘বাফুফেকে ধন্যবাদ আমাদের এ ধরনের টুর্নামেন্ট খেলতে সুযোগ করে দেয়ার জন্য। ম্যাক্স গ্রুপকেও ধন্যবাদ। আমরা ভাল ট্রেনিং করেছি। শৃংখলার মধ্যেই ছিলাম। আশাকরি ভাল রেজাল্ট বয়ে আনবো।’ অনুর্ধ-১৩ দলের কোচ জাকারিয়া বাবু বলেন, ‘দলটাকে অনুশীনর করাতে সময় পেয়েছি তিন সপ্তাহ। গত টুর্নামেন্টে আমরা একাদশ হয়েছিলাম। এই আসরে সেরা ছয় দলের মধ্যে থাকাই লক্ষ্য।’ অধিনায়ক ফাহিমের ভাষ্য, ‘আমাদের দলটা যথেষ্ট ভাল। ভাল ফল করতে চাই। সবাই দোয়া চাইবেন যেন ভাল করতে পারি।

নির্বাচিত সংবাদ