২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ক্যাম্পাসে শীতের ছোঁয়া

ফসলের মাঠজুড়ে কুয়াশার সাদা চাদর, নিস্তব্ধ রাতে টিনের চালে শিশির পড়ার মৃদু টপ টপ শব্দÑ এ সবই বলে দেয় শীত আসছে। ঋতু পরিক্রমায় আবহমান বাংলায় এভাবেই প্রতিবছর আসে শীত। বর্ষপঞ্জিকার ছকে এখন হেমন্তকাল।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস জীবনে শীত উপভোগ কিছুটা দুষ্কর। শীত আসে ক্যাম্পাস জীবনে কনকনে উত্তুরে হাওয়া আর ঝরাপাতার গান শুনিয়ে। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরাও শীত ঋতু উপভোগ করার চেষ্টা করে নিজেদের মতো করে। সন্ধ্যায় ক্যাম্পাসের পিঠার দোকানে, মদিনা মার্কেটের চায়ের টঙে বা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের রেস্টুরেন্টের আড্ডায় চায়ের কাপে ঝড় তুলে কাটে তাদের শীত। কখনও বা শহীদ মিনারের পাদদেশে ক্যাম্প ফায়ার করে আড্ডা দিয়ে কেটে যায় উষ্ণতামাখা শীতের রাত। শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের শিক্ষার্থী সুজন বলেন, গোল হয়ে বসে বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা দিয়ে সময় কাটানোর উপযুক্ত সময় শীতকাল। চেতনা-৭১ চত্বর, শহীদ মিনার কিংবা গ্রন্থাগার ভবনের সামনে পড়ন্ত বিকেল অথবা সকালের নরম রোদে আড্ডা উপভোগ্য। শীতের সকালে সবচেয়ে কষ্টদায়ক ব্যাপার ক্লাস। অনেককেই সকাল সাতটায় ঘুম থেকে উঠতে হয় আটটার ক্লাস করার প্রস্তুতি নেয়ার জন্য। অনেকেই আরামের ঘুম হারাম করে ক্লাসে যেতে চায় না। প্রায় হলের শিক্ষার্থীদেরই শীতে ঘুম থেকে দেরিতে উঠতে দেখা যায়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের হলগুলোর চিত্র প্রায় একই রকম। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নৃবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী আল-মামুন বলেন, শীতের সকালে ঘুম থেকে উঠে ক্লাস করা প্রায়ই সম্ভব হয় না। বছরের অন্যান্য সময় যেখানে সারা রাত আড্ডা দিয়ে প্রায় দিনই সকালের ক্লাস মিস দেই সেখানে শীত সকালের আরামে ঘুম হারাম করা কেমনে সম্ভব ভাই? অনেক শিক্ষার্থীই এখন আর রাত দশটার পর খুব বেশি হলের বাইরে থাকে না। সন্ধ্যা হলেই হলের গেমরুমে সময় কাটায়। শীতের কারণে শিক্ষার্থীরা টেবিল টেনিস, ক্যারম, দাবা, কার্ড খেলার প্রতি ঝুঁকে পড়ছে। মেয়েদের হলেও দাবা ক্যারম বা লুডুর মতো বিভিন্ন ইনডোর গেম চলে সময় কাটানোর ব্যবস্থা হিসেবে। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষার্থী জয়া বলেন, ক্যাম্পাসের সবুজ গালিচায় বিকেলের আড্ডা আর সন্ধ্যায় শীতের পিঠা খেয়ে হলে ফেরার পর বান্ধবীদের সঙ্গে কিছুক্ষণ সময় কাটাই। অনেক সময় বিভিন্ন গেম খেলে কেটে যায় শীতের রাতের কিছুটা অংশ। অনেক শিক্ষার্থীর কাছেই শীত মানে ফ্যাশন। রং-বেরঙের ড্রেস পরে সময় কাটানোর সুযোগ বছরের অন্য কোন ঋতুতে সম্ভব হয়ে ওঠে না। কেউ কেউ আবার ঘুরতে চলে যান একেবারে নেটওয়ার্কের বাইরে। শীতকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষার্থীরা ব্যাচমেটদের সঙ্গে নিয়ে দেশের নানা দর্শনীয় স্থানে ভ্রমণ করেন। এর ফলে সুন্দর কিছু সময় কাটানোর পাশাপাশি হয়ে যায় নিজের দেশকে জানা ও দেখার কাজটি।

সব কিছুর পরও শাবিতে শীত আসে প্রকৃতির নিয়মে। ক্যাম্পাসে শীত মানেই আলস্য, দেরি করে ক্লাসে যাওয়া, বন্ধুদের নিয়ে পিঠা খাওয়া আর রং-বেরঙের পোশাক পরে দলবেঁধে আড্ডাবাজি, বনভোজন আরও কত কী!

মাঈন উদ্দিন

নির্বাচিত সংবাদ
এই মাত্রা পাওয়া