২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

জাবি ফটোগ্রাফিক সোসাইটি ॥ ছবি যেন কথা বলে

চীনা একটা প্রবাদ আছে, একটি ছবি দশ হাজার শব্দের অধিক শক্তিশালী। গুহাচিত্র, চিত্রশিল্প এবং সর্বশেষ আলোকচিত্রÑ এভাবে মানব সভ্যতায় বিভিন্ন উন্নত থেকে উন্নততর শৈল্পিক দৃষ্ঠিভঙ্গির বিকাশ হয়ে আসছে। তথ্যপ্রযুক্তির চরম উৎকর্ষতার সঙ্গে সঙ্গে ছবির গুরুত্ব বেড়েই চলেছে। মানুষ এখন তার জীবনের কোন মুহূর্ত কিছুতেই হারিয়ে যেতে দিতে চায় না। ছবিই স্মৃতি সংরক্ষণের সর্বশেষ উন্নত পন্থা হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে। একটি ছবিতে অনেক কিছু খুব সহজেই উপস্থাপন করা সম্ভব। যাদের তোলা ছবিতে জীবনের গল্প প্রকাশ পায় তারা ফটোগ্রাফার খেতাব পেয়ে থাকেন।

এই ফটোগ্রাফার খেতাব কিন্তু বর্তমান সময়ে বেশ কৃতিত্বের। কারণ ক্যামেরা হাতে থাকলেই ফটোগ্রাফার হওয়া যায় না। ক্যামেরার পাশাপাশি দরকার পর্যাপ্ত শৈল্পিক দৃষ্টিভঙ্গির উন্নয়ন। কারণ ছবি তুললেই সেটি ছবি হয়ে ওঠে না। যদি সেই ছবি জীবন বা প্রকৃতির কোন অর্থ প্রকাশ না করে।

আর বর্তমান সময়ে ছবি তোলার সর্বশেষ উন্নত প্রযুক্তি হিসেবে ডিএসএলআর ক্যামেরা যোগ হয়েছে মানব সভ্যতায়। এই ক্যামেরার কারিগরি বিষয়গুলো সহজ নয়। এজন্য শৈল্পিক দৃষ্টিভঙ্গির পাশাপাশি কারিগরি বিষয়গুলোও আয়ত্তে থাকা দরকার। যিনি যত বেশি এই দুটো বিষয়ে পটু তিনি তত বেশি অর্থপূর্ণ ছবি তুলতে সক্ষম হবেন। এজন্যই প্রশিক্ষণের বিকল্প নেই।

বিষয়টিকে গুরুত্ব দিয়েই জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ফটোগ্রাফিক সোসাইটি দ্বিতীয়বারের মতো ১৫ অক্টোবর থেকে ১৮ অক্টোবর তিন দিনব্যাপী ‘বেসিক ফটোগ্রাফি কর্মশালা’ আয়োজন করে। ক্যাম্পাস এবং বাইরের মিলিয়ে অর্ধশতাধিক প্রশক্ষিণার্থী অংশগ্রহণ করে, যেখানে প্রশিক্ষক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ওয়াইল্ডলাইফ ফটোগ্রাফার হিসেবে পরিচিত কুদরত-ই খুদা এবং ন্যাচারাল ফটোগ্রাফার হিসেবে পরিচিত আরিফুল ইসলাম সোহাস।

কর্মশালায় ডিএসএলআর ক্যামেরার কারিগরি বিষয়াদি, ফটোগ্রাফি কী এবং কেন, কিভাবে ক্যামেরার একটি ক্লিক ছবি হয়ে ওঠে প্রভৃতি বিষয়ে হাতে-কলমে শেখানো হয়। সব প্রশিক্ষণার্থীকে নিয়ে প্রশিক্ষকদ্বয় একদিন পুরো বিকেল ক্যাম্পাসে ক্যামেরা হাতে বাস্তব প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করেছিলেন। প্রশিক্ষণার্থী সবার হাতে নিজস্ব ক্যামেরা ছিল না বলেই জাবি ফটোগ্রাফিক সোসাইটির সদস্যরা তাদের নিজেদের ক্যামেরা সরবরাহ করেছিলেন। পরে প্রশিক্ষণার্থীদের তোলা ছবি বিশ্লেষণ করা হয় এবং সবচেয়ে সুন্দর দেখে তিনটা ছবিকে পুরস্কৃত করা হয়। সবশেষে সনদ প্রদান করা হয়।

উদ্বোধনী ও সমাপনী অনুষ্ঠানে এবং প্রশিক্ষণ চলাকালীন জাবি ফটোগ্রাফিক সোসাইটির উপদেষ্টা এবং সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। প্রচারণা বিষয়ক সম্পাদক অমিত হাসান বলেন, ‘২০১৩ সালে ছবির প্রতি আগ্রহী কিছু শিক্ষার্থী এই সংগঠন গঠন করেছিলাম নিছক ভাল লাগার জায়গা থেকেই। ছবি বিষয়ক নানান কর্মসূচী অব্যাহত থাকবে। যারা ছবি তুলতে ভালবাসে এবং ছবির সঙ্গে থাকতে চায় তাদের আমন্ত্রণ।’

ওয়ালীউল্লাহ মিঠু