২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ঘুষ-কেলেঙ্কারিতে ফিফায় গ্রেফতার চলছেই

  • এবার পেরুভিয়ান ফুটবল ফেডারেশনের সাবেক সভাপতি গ্রেফতার, ১৬ থেকে ১৮ ডিসেম্বরের মধ্যে প্লাতিনিকে ডাকবে এথিকস কমিটি

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ গত মে মাসে জুরিখের হোটেলে কাকডাকা ভোরে হানা দিয়ে ফিফার শীর্ষ সারির সাত কর্মকর্তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। সেই ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই আবারও গ্রেফতার কা-! বৃহস্পতিবার ফিফার দুই শীর্ষ কর্মকর্তাকে গ্রেফতার করা হয় জুরিখের সেই একই হোটেল (বাউর আউ লাক) থেকে। এবারও পুলিশ হানা দেয় সূর্যোদয়ের আগেই। তার একদিন পর পেরুভিয়ান ফুটবল ফেডারেশনের সাবেক সভাপতি ম্যানুয়েল বুর্গাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। আন্তর্জাতিক ওয়ারেন্টের ভিত্তিতেই তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলেই এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে। দুইদিন আগেই ফিফার ঘুষ কেলেঙ্কারির নতুন ১৬ কর্মকর্তার নাম প্রকাশ করে এথিকস কমিটি। আর ম্যানুয়েল বুর্গা সেই ষোলোজনেরই একজন। তবে ঘুষ কেলেঙ্কারির সঙ্গে নিজে যুক্ত নয় বলেই দাবি করছেন বুর্গা। এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘আমি শান্ত... আমি কোন ঘুষ গ্রহণ করিনি।’

এদিকে আগামী ১৬ থেকে ১৮ ডিসেম্বরের মধ্যে ফিফার এথিকস কমিটি মিশেল প্লাতিনিকে জেরা করবেন। ফুটবলের বিশ্ব সংস্থার একটি ঘনিষ্ঠ সূত্র থেকে শুক্রবার এ তথ্য জানা গেছে। ফিফার এথিকস কমিটির ইনভেস্টিগেটরি চেম্বার উয়েফা প্রধানের আজীবন নিষেধাজ্ঞা চায় বলে গত মাসের শেষ ভাগে দাবি করেছিলেন প্লাতিনির আইনজীবী। বর্তমানে তিন মাসের জন্য নিষিদ্ধ ফিফা সভাপতি সেপ ব্লাটারের কাছ থেকে ২ মিলিয়ন মার্কিন ডলার গ্রহণের দায়ে তার ওপর এই শাস্তি আরোপিত হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। ফিফার ঘনিষ্ঠ ওই সূত্র বলছে, ‘ফিফা যে প্লাতিনি ও ব্লাটারকে শুনানির জন্য ডাকবে সেটি নিশ্চিত। খুব সম্ভবত ১৬ থেকে ১৮ ডিসেম্বরের মধ্যে মিশেল প্লাতিনিকে ডাকা হবে।’

ফিফার পরবর্তী প্রধানের দায়িত্ব গ্রহণের ব্যাপারে ফেভারিটের তালিকায় থাকা ৬০ বছর বয়সী ফরাসী তারকার ফিফা এথিকস কমিটির এ্যাডজুডিকেটরি চেম্বারের সামনে উপস্থিতির বিষয়টি অনেকটাই নিশ্চিত। কিন্তু সাবেক সভাপতি সেপ ব্লাটারের শুনানি গ্রহণের বিষয়টি সম্পর্কে এখন পর্যন্ত কোন তথ্য প্রকাশ করেনি তার লিগ্যাল টিম। গত ৮ অক্টোবর প্লাতিনির মত ব্লাটারের ওপর ও ৯০ দিনের অন্তর্বর্তীকালীন নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছিল ফিফার এথিকস কমিটি। এ সময় সন্দেহজনক আর্থিক লেনদেনের বিষয়েও তদন্ত পরিচালিত হয়। এর ফলে ফ্রান্সের সাবেক আন্তর্জাতিক তারকা ফিফার পরবর্তী সভাপতি নির্বাচনের দৌড় থেকে ছিটকে পড়েন। আগামী নতুন বছরের ২৬ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে বহুল আলোচিত এই ফিফার নির্বাচন।

মার্কিন একটি তদন্ত দল ও সুইস কর্তৃপক্ষ ২০১৮ ও ২০২২ বিশ্বকাপ ফুটবলের আয়োজক দেশ নির্বাচনে দুর্নীতির সন্ধান পাওয়ার পর থেকেই সৃষ্টি হয় ফিফার ইতিহাসের সবচেয়ে বড় সঙ্কটের। সুইস কর্তৃপক্ষের ‘ক্রিমিনাল মিসম্যানেজমেন্ট’ বিষয়েও তদন্তের মুখে রয়েছেন ব্লাটার। নয় বছর আগে পরামর্শক হিসেবে কাজের বিপরীতে প্লাতিনিকে মোটা অঙ্কের অর্থ প্রদানের দায়ে তার ওপর অভিযোগটি উত্থাপিত হয়েছে। তবে সন্দেহভাজন না বলে সুইস কর্তৃপক্ষ এ মামলায় একজন সাক্ষী হিসেবে দেখছে প্লাতিনিকে। দুজনই অবশ্য দাবি করেছেন যে তারা অনৈতিক কিছু করেননি। এই কাজ ও অর্থ প্রদান বিষয়ে কোন প্রমাণ নেই বলে তারা স্বীকার করেছেন। নিজের নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে প্লাতিনি কোর্ট অব আরবিট্রেশন ফর স্পোর্টসে (সিএএস) আপীল করেছেন। ওই মামলার সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে জড়িত একটি সূত্র বলছে, কয়েকদিনের মধ্যেই এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত জানা যাবে।