২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ফরিদপুরে সন্ত্রাসী হাতকাটা শাহিনের গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার

নিজস্ব সংবাদদাতা, ফরিদপুর, ৬ ডিসেম্বর ॥ ফরিদপুর শহরের একসময়ের শীর্ষ সন্ত্রাসী আফজাল হোসেন (৩৮)ওরফে হাতকাটা শাহিনের গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শনিবার রাত সোয়া ১টার দিকে ফরিদপুর নুরু মিয়া বাইপাস সড়কের কৈজুরী ইউনিয়নের পিয়ারপুর নতুন বাজারের কাছ থেকে তার লাশটি উদ্ধার করে কোতোয়ালি থানা পুলিশ।

কোতোয়ালি থানার এসআই অভিজিৎ জানান, নুরু মিয়া বাইপাস সড়কের কৈজুরী ইউনিয়নের পিয়ারপুর নামক স্থানে গোলাগুলির শব্দ শুনে টহল পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে যায়। পরে সেখান থেকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় একজনের লাশ উদ্ধার করে ফরিদপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। এসময় ঘটনাস্থল থেকে একটি কাটা রাইফেল উদ্ধার করা হয়।

ফরিদপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডাঃ সিরাজুল ইসলাম জানান, রাত দেড়টার দিকে পুলিশের কয়েকজন সদস্য গুলিবিদ্ধ অবস্থায় একজনকে নিয়ে আসে। হাসপাতালে আনার আগেই তার মৃত্যু হয়েছে। নিহতের মাথার বাম দিকে গুলির ক্ষত রয়েছে। পরে নিহতের স্বজনরা হাসপাতালে এসে লাশটি শাহিনের বলে শনাক্ত করেন।

কোতোয়ালি থানা পুলিশ জানিয়েছে, হাতকাটা শাহিনের বিরুদ্ধে হত্যা, ডাকাতি, ছিনতাইসহ ১৮টি মামলা রয়েছে। সে বিভিন্ন মামলায় ৫৪ বছরের সাজাপ্রাপ্ত আসামি। শাহিনের বাড়ি ফরিদপুর শহরের কমলাপুর বটতলা এলাকায়। সে এই এলাকার মৃত মোতাহার হোসেন বিশ্বাসের ছেলে। গত আওয়ামী লীগ আমলে (৯৬-২০০১) শহরের শীর্ষ সন্ত্রাসী হিসেবে পরিচিতি লাভ করে। একজনের হাত কেটে নেয়ায় সে হাতকাটা শাহিন হিসেবে পরিচিত ছিল।

নিহত শাহিনের মা রোকেয়া বেগম দাবি করে বলেন, শনিবার ভোরে ফরিদপুরের আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পরিচয় দিয়ে শাহিনকে যশোরের ছাইতানতলার এক আত্মীয় বাড়ি থেকে তুলে আনা হয়। আগে সে খারাপ থাকলেও বর্তমানে সে ভাল হয়ে গিয়েছিল।

নির্বাচিত সংবাদ