২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

পরকীয়ার সন্দেহে গরম পানিতে মুখমণ্ডল ঝলসে দিল পাষণ্ড স্বামী

  • বিদ্যুতস্পৃষ্ট হয়ে প্রবাসীর মৃত্যু ॥ অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পুলিশসহ ৩ জন

স্টাফ রিপোর্টার ॥ রাজধানীর কদমতলী ও চকবাজারে বিদ্যুতস্পৃষ্ট হয়ে এক প্রবাসীসহ দু’জনের মৃত্যু হয়েছে। পরকীয়ার সন্দেহে গরম পানি দিয়ে স্ত্রীর মুখম-ল ঝলসে দিয়েছে মাদকাসক্ত স্বামী। এ ঘটনার পর পাষ- স্বামী ইউসুফ মোহন (৩৫) পালিয়েছে। পৃথক স্থানে অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পড়ে পুলিশ কনস্টেবলসহ তিনজন সর্বস্ব খুইয়েছেন। এছাড়া গ্রিন রোড এলাকায় একটি বহুতল ভবনে অগ্নিকা-ের ঘটনা ঘটেছে। রবিবার পুলিশ ও মেডিক্যাল সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, রাজধানীর কদমতলীতে বিদ্যুতস্পৃষ্ট হয়ে মঞ্জুরুল আলম (৪৫) নামে এক সৌদি প্রবাসীর মৃত্যু হয়েছে। এ সময় তাকে বাঁচাতে গিয়ে মোঃ শাহজাহান (৩৮) নামে এক শ্রমিক গুরুতর আহত হয়েছে। নিহতের শ্যালক মোঃ আরিফ জানান, দুলাভাই মঞ্জুরুল আলম সৌদি আরব থেকে ছুটিতে দেশে এসেছিলেন। দেশে এসে তিনি নতুন বাড়ি নির্মাণের কাজ শুরু করেন। তিনি জানান, রবিবার সকালে কদমতলীর সাদ্দাম মার্কেটের পাশে নির্মাণাধীন বাড়িটিতে রড নিয়ে কাজ করছিলেন। ওই রডের সঙ্গে বৈদ্যুতিক তারের স্পর্শ লাগে। এতে মঞ্জুরুল বিদ্যুতস্পৃষ্ট হন। তাকে বাঁচাতে গিয়ে শ্রমিক শাহজাহানও বিদ্যুতস্পৃষ্ট হন। তাদের উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে আনা হয়। এ সময় কর্তব্যরত চিকিৎসক মঞ্জুরুলকে মৃত ঘোষণা করেন। ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটের আবাসিক চিকিৎসক পার্থ শংকর পাল জানান, শাহজাহানের শরীরের ৫৫ শতাংশ পুড়ে গেছে। তার চিকিৎসা চলছে। এদিকে রাজধানীর চকবাজার থানার উর্দু রোড এলাকায় বিদ্যুতস্পৃষ্ট হয়ে কবির হোসেন (৩০) নামে আরেক শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। তিনি গ্লাস মিস্ত্রির কাজ করেন। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, রবিবার বিকেলে চকবাজার থানাধীন উর্দু রোডস্থ বায়তুল আমান মসজিদের পাশের বাড়িতে জানালার গ্লাস ফিটিং করতে ছিলেন কবির। এ সময় একটি গ্লাস পড়ে যাওয়ার সময় তিনি তা ধরার চেষ্টা করলে বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে বিদ্যুতস্পৃষ্ট হয়ে নিচে পড়ে যান। পরে তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে জরুরী বিভাগে আনেন তার সহকর্মীরা। এ সময় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। ঢামেক হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির দায়িত্বরত পুলিশ কর্মকর্তা ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, তার লাশের ময়নাতদন্তের জন্য ঢামেক মর্গে নেয়া হয়েছে।

গরম পানিতে ঝলসানো গৃহবধূ ॥ বাড়ির মালিকের সঙ্গে পরকীয়ার সন্দেহে গরম পানি দিয়ে স্ত্রীর মুখম-ল ঝলসে দিয়েছে মাদকাসক্ত স্বামী। পরে তাকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে ঢামেক হাসপাতালে বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়। রবিবার সকালে রাজধানীর হাজারীবাগ থানার এনায়েতগঞ্জ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ জানায়, ঘটনার পর আহতের স্বামী পালিয়েছেন।

হাসপাতালের বেডে যন্ত্রণা কাতর সারা আক্তার (২৫) জানান, রবিবার বেলা ১১টার দিকে স্বামী ইউসুফ মোহন (৩৫) চুলা থেকে গরম পানি নিয়ে তার মুখম-লসহ শরীর ঝলসে দিয়েছে। তিনি জানান, তারা হাজারীবাগ এনায়েতগঞ্জ ৫৪/১ বাসার পঞ্চম তলায় ভাড়া থাকেন। ওই বাসার মালিক আসাদের সঙ্গে তার পরকীয়া চলছে এই সন্দেহে শনিবার তাদের মধ্যে ঝগড়া হয়। এরই জের ধরে রবিবার সকালে তার স্বামী গরম পানি তার মুখম-লে ঢেলে দেয়। ঢামেক হাসপাতালের বার্ন ইউনিটের আবাসিক চিকিৎসক পার্থ শংকর পাল জানান, গরম পানিতে ওই গৃহবধূর শরীরের ২০ শতাংশ পুড়ে গেছে।

অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে তিনজন ॥ রাজধানীর শাহবাগের আব্দুস সালাম (৩৭) নামের এক পুলিশ কনস্টেবল অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পড়েছেন। পরে তাকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে ঢামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। জানা গেছে, রবিবার বিকেলে শাহবাগ থানাধীন এবিএল ক্রসিংয়ে পুলিশ কনস্টেবল আব্দুস সালামকে অচেতন অবস্থায় পথচারী দেখতে পান। পরে উপস্থিত দায়িত্বরত পুলিশ সদস্যদের বিষয়টি জানানো হয়। এ সময় শাহবাগ থানার সহকারী পরিদর্শক (এসআই) শফিয়ার রহমান তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করেন। এদিকে একই সময় গুলিস্তান ফুলবাড়িয়া এলাকায় অজ্ঞাত (৩২) এক ব্যক্তিকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে ঢামেক হাসপাতালে ভর্তি করেন খালেদ নামের এক পথচারী। অচেতন ওই ব্যক্তির পরনে খয়েরি রংয়ের চেক শার্ট ও জিন্সের প্যান্ট রয়েছে। অন্যদিকে ল্যাবএইড হাসপাতালের সামনে থেকে ডাবের পানি খেয়ে ফরাসী দূতাবাস স্কুলের ট্রেজারার অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পড়েছেন। শনিবার গভীররাতে তাকে অচেতন অবস্থায় ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আগুন ॥ রাজধানীর গ্রিন রোড এলাকায় একটি বহুতল ভবনে অগ্নিকা- ঘটেছে। ফায়ার সার্ভিসের কেন্দ্রীয় নিয়ন্ত্রণ কক্ষের ডিউটি অফিসার মিজানুর রহমান জানান, রবিবার দুপুর পৌনে ১২টার দিকে গ্রিন রোডের ৭০ নম্বর হোল্ডিংয়ে একটি আটতলা ভবনের দ্বিতীয় তলায় এ অগ্নিকা- ঘটে। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছানোর আগেই ভবনের বাসিন্দারা নিজেদের চেষ্টায় আগুন নিভিয়ে ফেলেন। মিজানুর জানান, ওই ভবনের দ্বিতীয় তলায় রাখা কিছু কাগজের কার্টনে আগুন লেগেছিল।