২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মাশরাফিকে পেয়ে ভাগ্যবান মালিক

মাশরাফিকে পেয়ে ভাগ্যবান মালিক
  • বাংলাদেশী তরুণ উদীয়মানদের নৈপূণ্যে অভিভূত এ পাক অলরাউন্ডার

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগ (বিপিএল) টি২০ আসরে এবার কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের হয়ে খেলছেন পাকিস্তানী অলরাউন্ডার শোয়েব মালিক। বাংলাদেশের মাটিতে খেলা সবসময়ই বেশ উপভোগ করেন তিনি, তাই যখনই ফুরসত পান খেলতে আসেন। তবে এবার বিপিএলে তরুণ উদীয়মান বাংলাদেশী ক্রিকেটারদের আধিক্য দেখে অভিভূত মালিক। তিনি মনে করেন বাংলাদেশের ক্রিকেট অনেক এগিয়ে গেছে মাশরাফি বিন মর্তুজার মতো দারুণ এক অধিনায়কের কারণে। জাতীয় দলের অধিনায়ক মাশরাফিকে নিজ দল কুমিল্লারও নেতৃত্বে পেয়ে তাই নিজেকে ভাগ্যবান মনে করছেন এ পাক অলরাউন্ডার। কারণ মালিকের দাবি এতে করে দলের তরুণরা অনুপ্রাণিত এবং সব ক্রিকেটারই চাপমুক্ত থাকতে পারে। রবিবার সকালে অনুশীলন শেষে মিরপুর জাতীয় একাডেমি মাঠে এসব কথা বলেন তিনি। জানিয়েছেন ২০১৯ ওয়ানডে বিশ্বকাপ খেলার প্রত্যাশা।

বাংলাদেশে যতই খেলতে এসেছেন দারুণ উপভোগ করেছেন সময়টা। এবারও সুযোগ পেয়েই বিপিএলে খেলার জন্য চলে এসেছেন মালিক। এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশে খেলাটা সবসময়ই আনন্দের। এখন পর্যন্ত বিপিএলে খেলার অভিজ্ঞতাটা দারুণ।’ বিপিএলের সব দলেই এবার বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা অনেক ভাল নৈপুণ্য দেখাচ্ছে। এক ঝাঁক তরুণ উদীয়মান ক্রিকেটার দেখে মুগ্ধ মালিক। তিনি বলেন, ‘এবার টুর্নামেন্টে বেশ কয়েকজন তরুণ দেখেছি যারা অনেক ভাল করছে। বাংলাদেশের ক্রিকেট খুব ভালভাবে এগিয়ে যাচ্ছে। আমি বোঝাতে চাচ্ছি বিদেশী ক্রিকেটার হিসেবেও আমি যখনই সুযোগ পেয়েছি বাংলাদেশে এসেছি। যখনই আমি বাংলাদেশে খেলে নৈপুণ্য দেখানোর সুযোগ পাব তখনই আসব এবং খেলব।’ তরুণ যেসব ক্রিকেটারকে দেখে মুগ্ধ হয়েছেন তাদের নাম অবশ্য নির্দিষ্ট করে বলতে পারেননি মালিক। তবে তিনি মনে করেন শুধু কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সেই নয়, অন্য দলগুলোতেও প্রচুর উদীয়মান ক্রিকেটার আছে। এটা বাংলাদেশ ক্রিকেটের জন্য খুব ভাল একটা দিক বলে মনে করেন তিনি। মালিক বলেন, ‘এত তরুণ এবং ভাল ক্রিকেটার আছে সেটা বাংলাদেশ ক্রিকেটের জন্য খুব ভাল একটা দিক।’

বিপিএলটা বেশ উপভোগ করছেন এবার। কারণ মান এবং দর্শক উপস্থিতির দিক থেকে এ আসরটিকে দারুণ কিছুই মনে করছেন মালিক। তিনি বলেন, ‘আমি সঠিকভাবে এটার সঙ্গে অন্যটার তুলনা করার কেউ না। কিন্তু এর মান এবং এখানকার আতিথ্য খুবই চমৎকার।’ সম্প্রতিই নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ক্রিকেটে ফিরেছেন তরুণ পাক পেসার মোহাম্মদ আমির। চলতি বিপিএলে দারুণ ফর্মেও আছেন। পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডও (পিসিবি) চাইছে তাকে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরাতে। এ বিষয়ে মালিক বলেন, ‘আমরা তার বিপক্ষে খেলেছি। গত ম্যাচে তিনি দুর্দান্ত বোলিং করেছেন এবং খুব চমৎকার নৈপুণ্য দেখাচ্ছেন তিনি। আমি অধিনায়ক কিংবা নির্বাচক নই। এটা আমার দায়িত্ব নয় তাকে নির্বাচন করা। কিন্তু আমি সবসময়ই দেশের হয়ে খেলতে চাই। এটা পুরোপুরি নির্ভর করে নির্বাচকদের ওপর এবং ক্রিকেট বোর্ডের ওপর।’

বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক মাশরাফি মালিকের কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সেরও নেতৃত্বে আছেন। তার নেতৃত্বে টাইগাররা দারুণভাবে এগিয়ে যাচ্ছে বলে মনে করেন মালিক। মাশরাফির ভূয়সী প্রশংসা করে মালিক বলেন, ‘বাংলাদেশ দল গত বছর কি করেছে সেটা নিয়ে আমি কিছু বলতে চাই না, কিন্তু আমি মনে করি ফলাফলটাই সঠিক উত্তর দেবে। তিনি খুব ভাল একজন নেতা। তিনি তরুণদের খুব সহায়তা করছেন। এটা অনেক বড় বিষয়। সত্যি বলতে আমরা খুব ভাগ্যবান যে বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক আমাদের দলেরও অধিনায়ক। সুতরাং আমরা চাপ মুক্ত থাকতে পারছি এবং এখন পর্যন্ত যেভাবে শেষ করেছি সেখান থেকেই বিষয়টা স্পষ্ট হয়ে যায়।’ মালিক জানিয়েছেন টেস্ট থেকে অবসর নিয়েছেন কারণ ওয়ানডে ও টি২০ ক্রিকেটের চেয়ে এখন অনেকটাই সমৃদ্ধ পাকিস্তান টেস্ট ক্রিকেটে। তবে আরও অনেকদিন ওয়ানডে খেলা চালিয়ে যেতে চান। মালিকের দৃষ্টি ২০১৯ সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপে খেলার দিকে।

নির্বাচিত সংবাদ