২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মান বাঁচাতে লড়ছে দক্ষিণ আফ্রিকা

  • দিল্লী টেস্ট

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ দিল্লী টেস্টে মান বাঁচাতে লড়ছে দক্ষিণ আফ্রিকা। মান বাঁচানো মানে জয় নয়, নিদেন ড্র করে সিরিজে ৩-০’তে হার থেকে রক্ষা পাওয়া। তৃতীয় দিন শেষে ভারত যখন ৪শ’র ওপরে লিড নেয়, কার্যত তখনই সফরকারীদের জয়ের আশা শেষ হয়ে যায়। বাকি থাকে ড্রর স্বপ্ন। যদি তাই হয় তবে রাহানের আরও এক সেঞ্চুরির আশায় সকালে দ্বিতীয় ইনিংস ঘোষণায় বিরাট কোহলির বিলম্বই হাশিম আমলাদের জন্য বর হয়ে দেখা দেবে! প্রস্তর যুগের ব্যাটিং করে সেই আশা আরেকটু জোরালো করে তুলেছে অতিথিরা। ৪৮১ রানের অসম্ভব লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে চতুর্থ দিন শেষে দ্বিতীয় ইনিংসে ২ উইকেট হারিয়ে প্রোটিয়দের সংগ্রহ ৭২ ওভারে ৭২ রান! ২৩ রান নিয়ে অপরাজিত আমলা এরই মধ্যে খেলেছেন ২০৭ বল। ৯১ বলে সঙ্গী এবি ডি ভিলিয়ার্সের নামের পাশে ১১*। প্রথম ইনিংসে তাদের সংগ্রহ ছিল ১২১। আর ভারত করে ৩৩৪ ও ২৬৭/৫ (ডিক্লে.)।

একের পর এক বল এসেছে, আর আমলা কেবল নির্বিকার চিত্তে ঠেকিয়ে গেছেন। এক সময় ১১৩ বল খেলে তার রান ছিল ৬! দিন শেষে ২০৭ বলে অপরাজিত ২৩। সময়ের মারকুটে ব্যাটসম্যান ডি ভিলিয়ার্সও ৯১ বলে অপরাজিত ১১ রানে। ৮৯ বলে এসে প্রথম চার মেরেছেন তিনি। প্রস্তর যুগের ব্যাটিংয়ের শুরুটা করেন আমলাই। ৪৬তম বলে এসে রানের খাতা খোলেন অধিনায়ক! সেটিও ইচ্ছা করে নয়, ব্যাটের কানায় লেগে বল বেরিয়ে যাওয়ায়! কৌশলটা অবশ্য কাজে দিয়েছে। দুই ওপেনার ডিন এলগার ও টেম্বা বাভুমার উইকেট দুটি হারিয়ে দিনটা নিরাপদেই পার করেছে সফরকারী প্রোটিয়ারা। দুটি উইকেটই নিয়েছেন স্পিনার রবিচন্দ্রন অশ্বিন। দেয়াল হয়ে দাঁড়ান আমলাদের বিপক্ষে বাকিরা সফল হচ্ছিলেন না দেখে দুই ওপেনার শিখর ধাওয়ান ও মুরলি বিজয়কে দিয়েও বল করিয়েছেন কোহলি! সিরিজে এই প্রথম উইকেট না হারিয়ে কোন একটি সেশন কাটিয়ে দেয় দক্ষিণ আফ্রিকা, দিনের দ্বিতীয় সেশন। এখনও বাকি শেষ দিনে তিন সেশন। লক্ষ্য পাহাড় সমান, সিরিজে আগের ম্যাচগুলোর ব্যাটিং-স্মৃতি ভীতি জাগানিয়া। তাই ‘কচ্চপ ঘুমানো’ গতির ব্যাটিং ছাড়া আমলার কোন উপায় ছিল কি না সেটি তর্কযোগ্য। টেস্টে কমপক্ষে ২০০ বল খেলা ইনিংসগুলোর মধ্যে এটিই ইতিহাসের সবচেয়ে কম স্ট্রাইক রেটের! তার আগে ৪ উইকেটে ১৯০ রান নিয়ে চতুর্থ দিন দ্বিতীয় ইনিংসের খেলা শুরু করে ভারত। ১ উইকেট হারিয়ে আরও ৭৭ রান যোগ করে স্বাগতিকরা। যেখানে উল্লেখযোগ্য ঘটনা অজিঙ্কা রাহানোর টানা দ্বিতীয় ইনিংসের সেঞ্চুরি। রাহানে ১শ’ রানে পা রাখতেই ইনিংস ঘোষণা করেন কোহলি। পঞ্চম ভারতীয় হিসেবে দুই ইনিংসেই সেঞ্চুরি হাঁকানোর অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন ২৭ বছরের ‘মহারাষ্ট্র হিরো’। প্রথম ইনিংসে করেন ১২৭ রান।