১৭ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

নোট বাছাইয়ের নির্দেশনা না মানলে অর্থদন্ড

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ যথাযতভাবে নোট বাছাই (সর্টিং) করে বাংলাদেশ ব্যাংকে জমা দেয়ার নির্দেশনা মানছে না দেশের তফসীলি ব্যাংকগুলো। নতুন, পুরনো, ছেঁড়া, ফাটা সব নোটের ক্ষেত্রেই হযবরল পাকিয়ে কেন্দ্রীয় ব্যাংকে জমা করছে ব্যাংকগুলো। এতে ঝামেলায় পড়তে হচ্ছে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নোট পরীক্ষার সঙ্গে যুক্ত কর্মকর্তাদের। ব্যাংকগুলোর এমন আচরণে ক্ষুব্ধ বাংলাদেশ ব্যাংক। এমন অবস্থায় ব্যাংকগুলোকে তিনভাগে বিভক্ত করে নোট জমার নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। ফলে এখন থেকে কেন্দ্রীয় ব্যাংকে নোট জমাদানকালে ব্যাংকগুলোকে পুনঃপ্রচলযোগ্য, অপ্রচলনযোগ্য ও মিউটিলেটেড নোট আলাদাভাবে জমা দিতে হবে। এ নির্দেশনা না মানলে সংশ্লিস্ট ব্যাংকে নেগেটিভ পয়েন্টের ওপর ভিত্তি করে অর্থদন্ডে দন্ডিত করবে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। অর্থদন্ড করার ক্ষেত্রে ব্যাংক কোম্পানি আইন অনুসরন করা হবে। সোমবার কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কারেন্সি ম্যানেজম্যান্ট বিভাগ থেকে এমন নির্দেশনা দিয়ে সার্কুলার জারি করা হয়েছে। যা দেশের সব তফসীলি ব্যাংকের প্রধান নির্বাহীদের কাছে পাঠানো হয়েছে।

জানা গেছে, যথাযথভাবে নোট বাছাই, বাংলাদেশ ব্যাংকে নোট জমা দেয়া ও নেয়া, নোটে তোড়া বাঁধার নিয়ম-কানুন, জালনোট প্রচলন প্রতিরোধে করণীয়, ব্যাংকের শাখায় গ্রাহকদের জন্য পর্যাপ্ত ধাতব মুদ্রার ব্যবস্থা রাখাসহ বিভিন্ন বিষয়ে নির্দেশনা দিয়ে চলতি বছরের শুরুতে কারেন্সি ম্যানেজম্যান্ট বিভাগ থেকে একটি মাস্টার সার্কুলার জারি করা হয়।