১৫ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

৮ রানের বৃত্তেই আটকে গেইল!

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ অনেক ‘হাঁকডাক’ দিয়েছেন। ঢাকায় পা রাখার আগে ও পরে ‘আরেকটা সেঞ্চুরি ধরে রাখ’, ‘শুধুই ছক্কা হাঁকাব’Ñ এই টাইপের কথা বার্তাও বলেছেন। কিন্তু বরিশালের হয়ে ব্যাট হাতে নামতেই সব উধাও হয়ে যাচ্ছে। কোন কিছুতেই কাজ হচ্ছে না। পিঠের ইনজুরি থেকে মুক্তি পেয়েই বিপিএলে খেলছেন। কিছুতেই যেন জড়তা কাটাতে পারছেন না। আর তাই দুই ম্যাচ খেলেও ৮ রানের বৃত্তেই আটকা পড়ে আছেন ‘ব্যাটিং দানব’ ক্রিস গেইল। তার বেহাল দশার সঙ্গে বরিশালেরও দুর্দশা যেন যুক্ত হয়ে গেছে।

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগের (বিপিএল টি২০) প্রথম আসরে খেলতে নেমে প্রথম ম্যাচেই সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছিলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের গেইল। যা বিপিএলেরই প্রথম সেঞ্চুরি হয়ে আছে। এরপর একই আসরে আরেকটি সেঞ্চুরি করেছেন। দ্বিতীয় আসরে মাত্র একটি ম্যাচ খেলেছিলেন। এক ম্যাচেই সেঞ্চুরি করেছেন! কী ব্যাটিং তার। অথচ তৃতীয় আসরে খেলতে নেমে দুই ম্যাচ এরইমধ্যে খেলে ফেলেছেন। সিলেট সুপার স্টারসের বিপক্ষে প্রথম ও সোমবার কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের বিপক্ষে দ্বিতীয় ম্যাচ খেলেছেন। দুটি ম্যাচেই করেছেন মাত্র ৮ রান! সিলেটের বিপক্ষে তাও একটি ছক্কা হাঁকিয়েছেন। কুমিল্লার বিপক্ষে তাও করে দেখাতে পারেননি। বিপিএলে খেলতে নামার আগে এত বড় বড় কথা বলে তাহলে লাভ কী হলো!

তবুও গেইল গেইলই। বরিশালের অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ রিয়াদই তা স্মরণ করিয়ে দিয়েছেন। বলেছেন, ‘ক্রিস গেইল একটাই। দ্বিতীয় নেই। দুর্ভাগ্যবশত ক্লিক করেনি।’ সঙ্গে যোগ করেন, ‘উনি (গেইল) অনেক দিন পর ইনজুরি থেকে ফিরেছেন। উনি কতটুকু ক্যাপাবল আমরা সবাই জানি। উনার দিনে উনি সব ধ্বংস করে দিতে পারে। ইনশাআল্লাহ উনি ভাল মতোই কামব্যাক করবেন।’ সেই কামব্যাকের আশাতেই আছেন সবাই। দর্শকরা যে গেইলের মারমুখী ব্যাটিং দেখতেই স্টেডিয়ামে আসেন। কিন্তু টানা দুই ম্যাচেই হতাশ হতে হয়েছে। সেই হতাশা দলকেও ঘিরে ধরেছে। সিলেটের বিপক্ষে ৫৮ রানেই অলআউট হয়ে গেছে বরিশাল। আর সোমবার কুমিল্লার বিপক্ষেও ১০৫ রানে গুটিয়ে গিয়ে ৭ উইকেটের বড় ব্যবধানেই হেরেছে। টানা দুই ম্যাচে হেরেছে। ম্যাচটিতে জিতলে সবার আগে টুর্নামেন্টের শেষ চারে উঠে যেতে পারত বরিশাল। কিন্তু উল্টো কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স শেষ চারে খেলা নিশ্চিত করে নিয়েছে। বুধবার চিটাগাং ভাইকিংসের বিপক্ষে যে ম্যাচ রয়েছে বরিশালের, সেই ম্যাচে এখন ‘গেইল তা-ব’ দেখা গেলেই হয়।

গত মার্চে সর্বশেষ আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছেন গেইল। এরপর ইনজুরিতে মাঠের বাইরে থাকেন। অস্ত্রোপচারও করান। এখন ইনজুরি থেকে মুক্ত হয়ে বিপিএল দিয়েই আবার ব্যাট হাতে নিয়েছেন। কিন্তু কোন নৈপুণ্য দেখাতে পারছেন না গেইল। হতাশাই শুধু বাড়াচ্ছেন।

অথচ প্রথম দুই আসরে কী দাপটই না দেখিয়েছেন বিশ্ব কাঁপানো এ ব্যাটসম্যান। বিপিএলে এখন পর্যন্ত ৮ সেঞ্চুরি হয়েছে। এরমধ্যে গেইলই করেছেন ৩টি! তাও আবার সব মিলিয়ে ৮ ম্যাচ খেলে। প্রথম আসরে ৫ ম্যাচ খেলে দুটি সেঞ্চুরি করেছেন। আর দ্বিতীয় আসরে এক ম্যাচ খেলে একটিতেই সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন। এবার খেলে ফেলেছেন ২ ম্যাচ। বিপিএলের প্রথম আসরেই সিলেটের বিপক্ষে ৪৪ বলে ১০১* করেছেন গেইল। সেবারও বরিশালের হয়েই খেলেছেন। একই আসরে ঢাকার বিপক্ষে ৬১ বলে ১১৬ রানের ইনিংস খেলেন। দ্বিতীয় আসরে ঢাকার হয়ে খেলেন গেইল। এবারও সিলেটের বিপক্ষেই শতক করেন। ৫১ বলে ১১৪ রান করেন।

প্রথম দুই আসরে মোট ৬ ম্যাচে গেইলের রান ছিল ৪০২। গড় ১০০.৫০। ৬ ইনিংসে ছক্কা মেরেছেন ৩৮টি! এখন পর্যন্ত যা বিপিএলে সবচেয়ে বেশি ছক্কার রেকর্ড হয়েই আছে। মনে করা হচ্ছিল, গেইল এবার ব্যাট হাতে নামলে শুধু ছক্কাই দেখা যাবে। নিজেও উচ্চৈঃস্বরে সেই কথা বলেছিলেনও। কিন্তু তা আর দেখা যাচ্ছে না। ৮ রানের বৃত্তেই আটকে আছেন গেইল!