২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

নতুন মৌসুম- প্রস্তুত সেরেনা

নতুন মৌসুম- প্রস্তুত সেরেনা

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ অবিশ্বাস্য একটি মৌসুম কাটিয়েছেন সেরেনা উইলিয়ামস। তিন গ্র্যান্ডসøাম টুর্নামেন্ট ছাড়াও বেশ কয়েটি টুর্নামেন্টের শিরোপা নিজের শোকেসে তুলে প্রতিপক্ষের পাশাপাশি বয়সের ভারকেও পরাজিত করেন তিনি। কিন্তু মৌসুমের শেষে এসেই যেন কিছুটা ক্লান্ত হয়ে পড়েন আমেরিকান টেনিসের এই জীবন্ত কিংবদন্তি। যে কারণে সেরেনা উইলিয়ামসের শেষ প্রতিযোগিতামূলক টুর্নামেন্ট ছিল ইউএস ওপেন। যেখানে সেমিফাইনালে ইতালিয়ান তারকা রবার্টা ভিঞ্চির কাছে হেরে ছিটকে পড়েছিলেন তিনি। এরপর চায়না ওপেনসহ ডব্লিউটিএ ফাইনালস থেকেও নিজের নাম প্রত্যাহার করে নেন সেরেনা। তবে চোট-ক্লান্তি দূর করে এই মুহূর্তে সেরেনা কোর্টের লড়াইয়ের জন্য পুরোপুরি প্রস্তুত। বর্তমানে আন্তর্জাতিক প্রিমিয়ার টেনিস লীগ (আইপিটিএল) খেলা সেরেনা তা নিজের মুখেই জানিয়েছেন।

শুধু তাই নয়, সেরেনা আরও জানিয়েছেন কখনই প্রেরণা হারাননি তিনি। এ বিষয়ে সেরেনার মন্তব্য, ‘আমার কখনই প্রেরণার ঘাটতি ছিল না। প্রকৃতপক্ষে ইনজুরিটাই আমাকে পেছনে ঠেলে দিয়েছিল। আমার কনুই ও হাঁটু চূড়ান্ত পর্যায়ে ফ্লাশিং মিডোজে আমার হৃদয়ও ইনজুরিতে পড়ে।’ সেই চোট কাটিয়ে এখন ম্যানিলায় আইপিটিএলে খেলছেন সেরেনা। চোট কাটিয়ে ফিরে দারুণ রোমাঞ্চিত এই আমেরিকান, ‘এখানে ফিরতে পারার অনুভূতিটা অনেক ভাল। নতুন মৌসুম শুরুর আগে প্রস্তুতির জন্য এখানে খেলতে পারাটা আমার জন্য দারুণ এক সুযোগ।’

মৌসুমের শেষদিকে কোর্টের বাইরেও সেরেনাকে নানানভাবে আলোচনায় আসতে দেখা যায়। বিশেষ করে নতুন করে প্রেমে জড়িয়ে। সর্বশেষ শিরোনামে এলেন নগ্ন হয়ে। কারণ টেনিস কোর্টে তার পেশির জোর হরহামেশাই দেখা যায়। কিন্তু সেরেনার নগ্ন শরীরের দেখা খুব কমই মেলে। এবার আমেরিকার এই মহিলা টেনিস তারকা সেরেনা উইলিয়ামসের নগ্ন ছবির দেখা মিলছে ‘পিরেল্লি’ ক্যালেন্ডারে। ইতালীয় টায়ার প্রস্তুতকারী এই কোম্পানির ২০১৬ সালের ক্যালেন্ডারে তার সঙ্গে একই উদোমতা নিয়ে আরও আছেন মার্কিন অভিনেত্রী এ্যামি সুমার, পপস্টার প্যাটি স্মিথ, জাপানী গায়িকা ইয়োকো ওনো, ইরানের ভিজ্যুয়াল আর্টিস্ট শিরিন নেসাত। বিখ্যাত তারকাদের নগ্ন ছবি দিয়ে পিরেল্লির ক্যালেন্ডার প্রকাশ এবারই নতুন নয়। বরাবরই ক্যালেন্ডারে সৃষ্টিশীলতা আর উদ্দাম যৌনতা তুলে আনার জন্য খ্যাতি আছে পিরেল্লির। তাদের দাবি, এই নগ্নতার সঙ্গে যৌনতার সম্পর্ক নেই। ক্যালেন্ডারের দুটি ছবিতে দেখা যায়, উদোম শরীর এ্যামি সুমার কাপ হাতে আবেদনময়ী দৃষ্টি ফেলে রেখেছেন দর্শকের দিকে। আর এক অনন্য ভঙ্গিমায় টপলেস সেরেনা উইলিয়ামসের পেশিবহুল শরীর। এই দুই ছবিতে নারীর আবেদনময়িতা ও পেশিশক্তির প্রকাশ ঘটানো হয়েছে। ক্যালেন্ডারে ব্যবহৃত সাদাকালো ছবিগুলোর চিত্রগ্রাহক এ্যানি লেইভোবিজ এগুলো সম্পর্কে বলেন, ‘পিরেল্লির অর্ডার ছিল, নারী শরীর এমনভাবে ফুটিয়ে তুলতে হবে, যাতে নগ্নতা প্রকট থাকলেও যৌনতা প্রকট না হয়।’

টেনিস কোর্টের পাশাপাশি. ক্যালেন্ডার, বিজ্ঞাপন, র‌্যাম্প শো করে ব্যাপক জনপ্রিয় সেরেনা ইতোমধ্যেই সবকিছু পেয়ে গেছেন। এখন মনের মধ্যে তার একটাই স্বপ্ন, হলিউডে প্রতিষ্ঠিত হওয়ার। অবশ্য এখনই টেনিসের এই খ্যাতিমান তারকা হলিউডে নাম লেখাচ্ছেন না। টেনিস ক্যারিয়ার শেষ করেই হলিউডে নাম লেখাবেন বলে ভেবে রেখেছেন তিনি। তবে সেরেনা যে এই প্রথম অভিনয় করতে যাচ্ছেন তা নয়। এর আগে বিভিন্ন টেলিভিশন নাটকে অভিনয় করার অভিজ্ঞতা রয়েছে তার। ‘ই আর’ শিরোনামের ওই নাটকে মৃত্যু হয় সেরেনার। কৃষ্ণকলি খ্যাত সেরেনা উইলিয়ামস টেনিস ভুবন মাতিয়ে চলেছেন স্বমহিমায়। সর্বশেষ হলিউডের নায়িকা হওয়ার ইচ্ছাটাও প্রকাশ করলেন তিনি। আর নায়িকা হওয়ার সব রকমের যোগ্যতা এবং বৈশিষ্ট্যও রয়েছে বর্তমান যুগের পাওয়ার টেনিসের এ কর্ণধারের। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আমি অভিনয় বেশ উপভোগ করি। ক্যামেরার সামনে যেতে বরাবরই আমি স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করি। আমার ধারণা, এ্যাকশন তারকা হলে আমি বেশি ভাল করব।’ তবে আসলেই কী টেনিস কোর্টের রানীকে রূপালি পর্দায় দেখতে পারবেন ভক্ত-অনুরাগীরা? সেটাই এখন দেখার অপেক্ষা।