২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

গণধর্ষন: শেরপুরে ভিডিও দেখে শনাক্ত ২ ধর্ষক কারাগারে

নিজস্ব সংবাদদাতা, শেরপুর ॥ শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে এক প্রতিবন্ধী কিশোরীকে গণধর্ষণ এবং ধর্ষণের ভিডিওচিত্র মোবাইলে ছড়িয়ে দেওয়ার চাঞ্চল্যকর ঘটনায় গ্রেফতার দুই ধর্ষক আলাউদ্দিন (২৫) ও শাহীন (২৬) কে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। ৯ ডিসেম্বর বুধবার দুপুরে ৫ দিনের পুলিশ রিমান্ডের আবেদনসহ আদালতে সোপর্দ করা হলে সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট জিনিয়া জাহান বৃহস্পতিবার রিমান্ড শুনানীর তারিখ নির্ধারণ করে তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

উল্লেখ্য, প্রায় ৫ মাস আগে ঝিনাইগাতী উপজেলার বড়ডুবি গ্রামের নানীর বাড়ি থেকে নালিতাবাড়ী উপজেলার নন্নী গ্রামের দাদীর বাড়িতে যাওয়ার পথে টেংরাখালি এলাকায় লম্পট আলাউদ্দিন ও শাহীনসহ ২/৩ জনের গণধর্ষণের শিকার হয় ওই প্রতিবন্ধী কিশোরী। এক পর্যায়ে ধর্ষকরা তাদের মোবাইলে ধর্ষণের দৃশ্য ভিডিও ধারণ করে বিভিন্ন মোবাইলে ছড়িয়ে দেয়। বিষয়টি ধর্ষিতা চেপে গেলেও কয়েকদিন আগে এলাকায় বিভিন্ন যুবকের মোবাইলে ওই ধর্ষণের ভিডিওচিত্র ছড়িয়ে পড়ায় তা ফাঁস হয়ে যায়। পরে অভিযোগের প্রেক্ষিতে সোমবার রাতে ভিডিও ফুটেজ দেখে ধর্ষকদের শনাক্ত এবং মঙ্গলবার তাদের গ্রেফতার করে পুলিশ। ওই ঘটনায় ওই প্রতিবন্ধী মেয়ের নানী বাদী হয়ে গ্রেফতারকৃত ২ ধর্ষকসহ অজ্ঞাতনামা ২/৩ জনের বিরুদ্ধে ঝিনাইগাতী থানায় গণধর্ষণ ও পর্ণোগ্রাফী নিয়ন্ত্রণ আইনে একটি মামলা দায়ের করেন।

এ ব্যাপারে ঝিনাইগাতী থানার ওসি (তদন্ত) ও মামলাটির তদন্ত কর্মকর্তা বিপ্লব কুমার বিশ্বাস জানান, গ্রেফতারকৃত ২ জনকে রিমান্ডের আবেদনসহ আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদে মামলাসংক্রান্ত গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।