২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

পটিয়ায় এক মেয়র প্রার্থীর শিক্ষাগত যোগ্যতা নেই

নিজস্ব সংবাদদাতা, পটিয়া, ৯ ডিসেম্বর ॥ প্রথম শ্রেণীর পৌরসভার মেয়রের পদমর্যাদা জেলা প্রশাসকের সমমানের। অথচ চট্টগ্রামের পটিয়া পৌরসভা নির্বাচনের বিএনপির একক মেয়র প্রার্থী ফল ব্যবসায়ী তৌহিদুল আলমের শিক্ষাগত যোগ্যতা নেই। আগামী ৩০ ডিসেম্বর পৌরসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এই নির্বাচনকে ঘিরে মেয়র প্রার্থীদের শিক্ষাগত যোগ্যতা ও ব্যক্তি ইমেজ নিয়ে শুরু হয়েছে আলোচনা ও সমালোচনা। এবারের নির্বাচন আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জাতীয় পার্টি, ইসলামী ফ্রন্ট ছাড়াও একজন স্বতন্ত্র প্রার্থী রয়েছেন। এসব প্রার্থীরা হলেন, আওয়ামী লীগের অধ্যাপক হারুনুর রশিদ, জাতীয় পার্টির শামশুল আলম মাস্টার, বিএনপির তৌহিদুল আলম, ইসলামী ফ্রন্টে আবু তাহের মুজাহিদী ও বিএনপির বিদ্রোহী প্রার্থী মুহাম্মদ ইব্রাহিম। তাদের মধ্যে উচ্চ শিক্ষিত এম কম (ব্যবস্থাপনা) বর্তমান মেয়র ও পৌরসভা আ’লীগ সভাপতি অধ্যাপক হারুনুর রশিদ। কিন্তু বিএনপির মেয়র প্রার্থী তৌহিদুল আলম হলফনামায় লিখেছেন শিক্ষাগত যোগ্যতা ‘প্রযোজ্য নহে’। প্রথম শ্রেণীর পৌরসভার একজন মেয়র প্রার্থী হলফনামায় শিক্ষাগত যোগ্যতা ‘প্রযোজ্য নহে’ লেখায় ভোটারসহ বিভিন্ন রাজনীতিক দলের মধ্যে সমালোচনার ঝড় উঠেছে। তবে জাতীয় পার্টির শামশুল আলম মাস্টার এসএসসি, ইসলামী ফ্রন্টের আবু তাহের মুজাহিদী এইচএসসি ও স্বতন্ত্র প্রার্থী বিএনপি নেতা মুহাম্মদ ইব্রাহিম এসএসসি। নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে, ১৯৯০ সালে পটিয়া পৌরসভা প্রতিষ্ঠিত হয়। সর্বশেষ মেয়র পদে দায়িত্বে রয়েছেন পটিয়া পৌরসভা আওয়ামী লীগ সভাপতি অধ্যাপক হারুনুর রশিদ। মেয়র পদে-৫, কাউন্সিলর-৪৫ ও মহিলা কাউন্সিলর পদে ১০সহ ৬০ প্রার্থী মনোনয়ন ফরম জমা দিলেও বাছাই পর্বে বিভিন্ন ত্রুটির কারণে মহিলা কাউন্সিলর জ্যোৎ¯œা আকতার ও ৬ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী শফিউল আলম পটলের মনোনয়ন ফরম বাতিল হয়েছে। স্বতন্ত্র প্রার্থী বিএনপি নেতা মুহাম্মদ ইব্রাহিম নিজেও ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, বিএনপির একক মেয়র প্রার্থী তৌহিদুল আলমের কোন শিক্ষাগত যোগ্যতা নেই যা খুবই দুঃখজনক।

পৌরসভার বর্তমান মেয়র ও আওয়ামী লীগ মনোনীত একক মেয়র প্রার্থী অধ্যাপক হারুনুর রশিদ বলেন, প্রথম শ্রেণীর পৌরসভার মেয়রের পদমর্যাদা জেলা প্রশাসকের সমমানের। পৌরসভার উন্নয়নের স্বার্থে শিক্ষিত একজন মেয়র অবশ্যই প্রয়োজন। তিনি আশাবাদী, দলের সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে তৃণমূল আওয়ামী লীগ তার বিজয়ের ক্ষেত্রে নৌকা প্রতীকের পক্ষে কাজ করবেন।

শিক্ষাগত যোগ্যতা সম্পর্কে জানতে বিএনপির একক মেয়র প্রার্থী তৌহিদুল আলমের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বিষয়টি নিয়ে উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক খোরশেদ আলমের সঙ্গে প্রতিবেদককে যোগাযোগ করার পরামর্শ দেন এবং শিক্ষাগত যোগ্যতার বিষয়টি তিনি এড়িয়ে চলেন।

নির্বাচিত সংবাদ