২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

চোরাচালান আর বন্ডের দুর্নীতি বন্ধ করা গেলে দশ হাজার কোটি টাকার অতিরিক্ত রাজস্ব আসবে

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বেপরোয়া চোরাচালান আর বন্ডের দুর্নীতি বন্ধ করা গেলে শুধু লৌহজাত পণ্যের ব্যবসা থেকেই বছরে কমপক্ষে দশ হাজার কোটি টাকা অতিরিক্ত রাজস্ব পাবে সরকার। কিন্তু প্রভাবশালী কয়েকটি কোম্পানির বন্ডের মাধ্যমে আমদানিকৃত লৌহজাত কাঁচামাল খোলাবাজারে বিক্রি হওয়ায় একদিকে সরকার যেমন রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হচ্ছে, অন্যদিকে দেশের লাখ লাখ ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীর অস্তিত্ব আজ হুমকির মুখে পড়ে।

এ ধরনের অভিযোগ করেছেন-বাংলাদেশ আয়রন এ্যান্ড স্টিল ইম্পোর্টার এ্যাসোসিয়েশনের নেতৃবৃন্দ। বুধবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আয়োজিত মানববন্ধনের পর এক সংবাদ সম্মেলনে নেতৃবৃন্দ আগামী ১৯ ডিসেম্বর থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য রাজধানীসহ দেশব্যাপী তাদের দোকান ও ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার ঘোষণা দেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সমিতির সভাপতি সিরাজ ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিন, কোষাধ্যক্ষ আবুজর গিফারি জুয়েল ও যুগ্ম সম্পাদক আমির হোসেন নুরানী।

লিখিত বক্তব্যে আবুজর গিফারি বলেন বন্ডেড সুবিধা নিয়ে পণ্য আমদানি করে খোলাবাজারে বিক্রি করা হচ্ছে সিআর আয়রন। দেশের শীর্ষস্থানীয় তিনটি প্রতিষ্টান এ পন্থায় আমদানি সুবিধা নিয়ে বছরে কমপক্ষে আড়াই হাজার কোটি টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। এতে একদিকে যেমন ক্ষুদ্র ও মাঝারি ব্যবসায়ীরা ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে, তেমনি সরকারও হাজার হাজার কোটি টাকার রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। এ সব বিষয়ে ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা বার বার সরকারের বিভিন্ন দফতরে অভিযোগ করার পরও তদন্তেরও কোন উদ্যোগ নিচ্ছে না। এমনকি গত সপ্তাহে একটি কোম্পানির বন্ডের মাল হাতেনাতে ধরার পর এখনও মামলা হচ্ছে না। তাহলে এসব চোরাকারবারিরা কি এতই প্রভাবশালী যে সরকারও অসহায়।

এক প্রশ্নের জবাবে হাজী নাসির উল্লাহ বলেন সরকার যদি এ বিষয়ে কোন পদক্ষেপ না নেয় তাহলে আগামী ১৯ ডিসেম্বর থেকে ঢাকাসহ সারাদেশের সমস্ত স্টিল ব্যবসায়ীরা তাদের দোকান অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ রাখার মতো কঠোর কর্মসূচী পালন করবে।

শমসের মবিনসহ ১২ জনের বিরুদ্ধে চার্জ গঠন

কোর্ট রিপোর্টার ॥ বিএনপির ভাইস-চেয়ারম্যান শমসের মবিন চৌধুরীসহ ১২ জনের বিরুদ্ধে নাশকতার একটি মামলায় চার্জ গঠন করেছে ঢাকা সিএমএম আদালত।

বুধবার ঢাকার অতিরিক্ত মুখ্য মহানগর ম্যাজিস্ট্রেট লুৎফর রহমান শিশির আসামিদের অব্যাহতির আবেদন নাকচ করে দিয়ে এই আদেশ দেন। আসামিরা অভিযোগ অস্বীকার করে নিজেদের নির্দোষ দাবি করেছিলেন। তাই আদালত আগামী ৩ মার্চ সাক্ষ্য গ্রহণের দিনও ধার্য করেছে।

জীবিকা নির্বাহ

শারীরিক প্রতিবন্ধী আব্দুর রব মিয়া জীবিকা নির্বাহের জন্য খুচরা পান বিক্রি করেন। আর এই পান বিক্রি করে চালান সংসার। যে সামান্য আয় হয়, তা দিয়ে বহু কষ্টে পরিবারের সদস্যদের নিয়ে চলতে হয় তাকে। সংসারে তার স্ত্রী, এক ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে। ওদের নিয়ে থাকেন কাপ্তান বাজার এলাকায় একটি ভাড়া বাসায়। বুধবার মতিঝিল এলাকা থেকে ছবিটি তুলেছেন জনকণ্ঠের নিজস্ব আলোকচিত্রী।

বিড়ালছানার খুনসুটি

বিড়ালের দুটি বাচ্চা। একই মায়ের পেটে জন্ম। এরা একটি আরেকটির পেছনে সারাদিন লেগে থাকে। একটি কিছু খেতে গেলে অন্যটি তা টেনে ধরে। কাড়াকাড়ি করে। আবার দেখা যায়, একটি আরেকটিকে দৌড়ানি দিচ্ছে। বুধবার বিড়ালছানা দুটিকে একটি পরিত্যক্ত টেনিস বল নিয়ে একত্রে খেলা করতে দেখা যায়। হাতিরঝিল এলাকা থেকে ওদের খেলার ছবি তুলেছেন জনকণ্ঠের নিজস্ব আলোকচিত্রী শেখ মামুন।