২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ব্রহ্মপুত্রের উজান থেকে পানি সরিয়ে নেয়ার পরিকল্পনা নেই চীনের

  • যৌথ নদী কমিশনের সঙ্গে প্রতিনিধি দলের বৈঠক

কূটনৈতিক রিপোর্টার ॥ ব্রহ্মপুত্র নদের উজান থেকে পানি সরিয়ে নেয়ার কোন পরিকল্পনা নেই বলে জানিয়েছে চীন। দেশটির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, দুই দেশের মধ্যে প্রবাহিত ইয়ালুজংবু ও ব্রহ্মপুত্রের পানি প্রবাহের যাবতীয় তথ্যবিনিময় করা হবে। এছাড়া আন্তঃনদী ব্যবস্থাপনায় বাংলাদেশ ও চীন একযোগে কাজ করবে।

চীনের উচ্চ পর্যায়ের একটি প্রতিনিধি দল এখন বাংলাদেশ সফরে রয়েছেন। সেদেশের পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের আন্তর্জাতিক অর্থনৈতিক ও প্রযুক্তি সহায়তা কেন্দ্রের মহাপরিচালক ইউ জিংজুন সাত সদস্যের প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন। চীনের প্রতিনিধি দল বুধবার রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন মেঘনায় বাংলাদেশ যৌথ নদী কমিশনের সঙ্গে বৈঠক করেছেন।

বৈঠক সূত্র জানায়, বাংলাদেশ ও চীনের প্রতিনিধি দলের মধ্যে ব্রহ্মপুত্র ও ইয়ালুজংবু নদীর পানি প্রবাহ নিয়ে আলোচনা হয়েছে। উভয় দেশের প্রতিনিধিরা আন্তঃনদী ব্যবস্থাপনায় একমত হয়েছেন। এছাড়া বন্যা নিয়ন্ত্রণের লক্ষ্যে উভয় দেশ তথ্যবিনিময় করবে বলে জানিয়েছে। এছাড়া ব্রহ্মপুত্র নদের উজান থেকে পানি সরিয়ে নেয়ার কোন পরিকল্পনা নেই বলে জানিয়েছে চীন।

সূত্র জানায়, বাংলাদেশের ব্রহ্মপুত্রের উৎস নদী চীনের তিব্বতের ইয়ালুজংবু। এটি চীনের পঞ্চম বৃহত্তম নদী। এই নদীটিই ভারতের অরুণাচল প্রদেশ হয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে। চীন, ভারত ও বাংলাদেশের মধ্য দিয়ে প্রবাহিত ২ হাজার ৫৭ কিলোমিটার দীর্ঘ ব্রহ্মপুত্র নদ। হিমালয় থেকে উৎপত্তি হয়ে তিব্বতের ভেতর দিয়ে তা ব্রহ্মপুত্র নামে অরুণাচল হয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে। তিব্বতের অংশের ইয়ালুজংবু নদীতে চীন সম্প্রতি জলবিদ্যুৎ উৎপাদনের জন্য নদীর ওপর আড়াআড়ি বাঁধ দেয়ার উদ্যোগ নিয়েছে। এই নদীর ওপর বাঁধ দিলে ভাটিতে পানির প্রবাহ কমে যাবে বলে এই আশঙ্কা করে ইতোমধ্যেই প্রতিবাদ জানিয়েছে ভারত।