২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

গণমাধ্যম যা দেখাচ্ছে বর্তমানে তাই জীবন

জবি সংবাদদাতা ॥ বিশ্ব সাহিত্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যাপক আবদুল্লাহ আবু সায়ীদ বলেছেন, গণমাধ্যম যা দেখাচ্ছে বর্তমানে তাই জীবন। এটি আমাদেরকে যে ভাবে প্রভাবিত করছে আমরা সেভাবে প্রভাবিত হচ্ছি। বর্তমান সমাজ ব্যবস্থাও গণমাধ্যম দ্বারা নির্মিত। ক্ষেত্রবিশেষ তার এই ক্ষমতা আমাদের বিরুদ্ধে দাড়িয়েছে। তাই গণমাধ্যমের উপর নজরদারি বাড়িয়ে এটি গণমানুষের পক্ষে আনতে হবে। বৃহস্পতিবার জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মিলায়তনে ‘গণমাধ্যমের নির্মিত বাস্তবতা’ শীর্ষক এক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন গণযোগযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মীর মোশারেফ হোসেন।

প্রবন্ধে তিনি উল্লেখ করেন, প্রতিনিয়ত আমরা গণমাধ্যমের শিকার হয়। মানুষকে কীভাবে ভাবতে হবে গণমাধ্যম এমন একটি ছক তৈরি করে দেয়। আর আমাদের সেই ছকের মধ্যে ঘুরপাক খেতে হয়। কিন্তু বিশেষ জাতি বা সমাজ ব্যবস্থার পক্ষপাত থেকে মুক্ত থাকাই গণমাধ্যের চরিত্র হওয়া উচিৎ।

অনুষ্ঠানে উদ্বোধকের বক্তব্যে উপাচার্য অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমান বলেন, সবকিছুর মত গণমাধ্যমেরও ইতবাচক এবং নেতিবাচক দুইটি দিক রয়েছে। আর আমাদের এই নেতিবচক দিকটি পরিহার করে চলতে হবে। তাহলে গণমাধ্যম খারাপ হবে না। এসময় তিনি জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগ হতে পাশ করা শিক্ষার্থীরা ভবিষ্যতে গণমাধ্যমে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালন করবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

এছাড়াও সেমিনারে আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন ইউনিভার্সিটি অব লিবারেল আর্টস বাংলাদেশ-এর অধ্যাপক সলিমুল্লাহ খান, একাত্তর টিভি’র বার্ত পরিচালক সৈয়দ ইশতিয়াক রেজা এবং প্রথম আলো’র সহকারী সম্পাদক ফারুক ওয়াসিফ। এসময় বক্তরা গণমাধ্যমের বিভিন্ন সমস্যা ও সম্ভাবনা এবং জাতীয় জীবনে গণমাধ্যমে ভূমিকা তুলে ধরেন।

সেমিনারে শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন গণযোগযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের প্রভাষক তাহমিনা হক এবং সঞ্চালনা করেন প্রভাষক মার্জিয়া রহমান। সভাপতিত্ব করেন সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন এবং গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. হেলেনা ফেরদৌসী। এসময় শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

নির্বাচিত সংবাদ