২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

হাইকোর্টের আদেশ আসামিকে কোর্টে তোলার আগে মিডিয়ার সামনে আনা যাবে না

স্টাফ রিপোর্টার ॥ আদালতে হাজির করার আগে কোন আসামিকে প্রচার বা প্রদর্শনের উদ্দেশ্যে গণমাধ্যমের (মিডিয়া) সামনে উপস্থাপন করা যাবে না, এ বিষয়ে পদক্ষেপ নিতে পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজির) প্রতি আদেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। এ বিষয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী যেন বিরত থাকে সে জন্য আইজিপিকে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে বলা হয়েছে। এদিকে রাষ্ট্রদ্রোহের মামলায় নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্নাকে সাতদিনের রিমান্ডে নেয়ার আদেশ বাতিল করে তাকে জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদের অনুমতি দিয়েছে হাইকোর্ট। অন্যদিকে যুদ্ধাপরাধের দায়ে ফাঁসি কার্যকর হওয়া বিএনপি নেতা সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর আইনজীবী ব্যারিস্টার ফখরুল ইসলামকে হাইকোর্টের দেয়া জামিন আদেশ বহাল রেখেছে চেম্বার বিচারপতি। ফলে তার মুক্তিতে আর কোন বাধা নেই। আসন্ন পৌরসভা নির্বাচনে ‘লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড’ বজায় রাখতে সেনা মোতায়েনের জন্য প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) বরাবর একটি লিগ্যাল নোটিস পাঠানো হয়েছে। নোটিসে বলা হয়, ৭২ ঘণ্টার মধ্যে সেনা মোতায়েনের সিদ্ধান্ত না নিলে হাইকোর্টে রিট করা হবে। হাইকোর্টের বিচারপতি নজরুল ইসলাম চৌধুরী আইনজীবীদের উদ্দেশে বলেছেন, মুনাফা অর্জনের উদ্দেশে নয়, সেবার মানসিকতা নিয়ে পেশায় থাকতে হবে। বৃহস্পতিবার চেম্বার জজ ও হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট বেঞ্চ এসব আদেশ প্রদান করেছেন।

আসামিকে গ্রেফতারের পর তাকে আদালতে হাজির করার আগে সংবাদমাধ্যমের সামনে আনা বন্ধে পুলিশ প্রধানকে নির্দেশনা দিতে বলেছে হাইকোর্ট। ছয় বছর আগে গাজীপুর পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনের সময় গ্রেফতারকৃত জেএমবি সদস্যের বোমা বিস্ফোরণ ঘটানোর এক মামলার রায়ে বৃহস্পতিবার বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি আমির হোসেনের বেঞ্চ এই অভিমতসহ রায় দেয়।

২০০৯ সালে গাজীপুরে বোমাসহ আটক জঙ্গী মামুন ওরফে জাহিদকে বিচারিক আদালতের দেয়া মৃত্যুদ-ের রায় কমিয়ে যাবজ্জীবন দ- দিয়েছেন হাইকোর্ট। এ রায়ের পর্যবেক্ষণে আদালত আশা প্রকাশ করে বলেন, কোন আসামিকে প্রচার বা প্রদর্শনের উদ্দেশ্যে আদালতে হাজির করার আগে গণমাধ্যমে উপস্থিত করা থেকে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী যেন বিরত থাকে, এ জন্য পুলিশের মহাপরিদর্শক প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেবেন। মামুনের মামলায় তদন্তে উদাসীনতার কারণে, তদন্ত কর্মকর্তার বিরুদ্ধে পুলিশ মহাপরিদর্শক বিভাগীয় ব্যবস্থা নেবেন আশা হাইকোর্টের।

এ ছাড়াও এ ঘটনায় তখনকার গাজীপুরের পুলিশ সুপার কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে বোমা বা গ্রেনেডসহ জাহিদকে হাজির করে সংবাদ সম্মেলন করা, দায়িত্বজ্ঞানহীন কাজ ছিল বলে অভিহিত করে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে হাইকোর্ট। ২০০৯ সালে ফেব্রুয়ারি মাসে নিষিদ্ধ ঘোষিত সংগঠন জেএমবির সদস্য মামুনুর রশিদ ওরফে জাহিদকে টঙ্গীর হরতইল গ্রামের একটি ভাড়া বাসা থেকে ৫টি হ্যান্ড গ্রেনেড, ডেটোনেটর ও বোমা তৈরির সরঞ্জামসহ আটক করে পুলিশ। পরে গাজীপুরের তৎকালীন পুলিশ সুপার আব্দুল বাতেনের কার্যালয়ে গ্রেনেডসহ মামুনকে সংবাদ সম্মেলনে হাজির করা হয়। সম্মেলনের শেষ পর্যায়ে টেবিলে থাকা গ্রেনেড মামুন ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেন। এ সময় গ্রেনেড বিস্ফোরণে সাংবাদিক, পুলিশসহ বেশ কয়েকজন আহত হন। এ ঘটনায় করা মামলায় ২০১৩ সালে ১৩ মার্চ ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল-৪ মামুনকে মৃত্যুদ- দেন। পরে ডেথ রেফারেন্স ও জেল আপীলের শুনানি শেষে হাইকোর্ট মামুনের মৃত্যুদ- কমিয়ে যাবজ্জীবন সাজা দেন।

রিমান্ডের আদেশ বাতিল ॥ রাষ্ট্রদ্রোহের মামলায় নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্নাকে সাতদিনের রিমান্ডে নেয়ার আদেশ বাতিল করে তাকে জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদের অনুমতি দিয়েছে হাইকোর্ট। মান্নাকে রিমান্ডে নেয়া কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করা হাইকোর্টের রুলের নিষ্পত্তি করে বৃহস্পতিবার এ রায় ঘোষণা করে আদালত। বিষয়টি জানিয়েছেন মান্নার আইনজীবী। রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ডেপুটি এ্যাটর্নি জেনারেল ফজলুর রহমান খান বলেন, ‘আদালত তার রায়ে মান্নাকে জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদের অনুমতি দিয়েছে, পুলিশী হেফাজতে নয়।’ এ বিষয়ে মান্নার করা এক আবেদনের শুনানি করে বিচারপতি মোঃ রেজাউল হক ও বিচারপতি মোঃ খসরুজ্জামানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রায় দেয়।

সাকার রায় ফাঁস : ফখরুলের মুক্তিতে বাধা নেই ॥ যুদ্ধাপরাধের দায়ে ফাঁসি কার্যকর হওয়া বিএনপি নেতা সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর আইনজীবী ব্যারিস্টার ফখরুল ইসলামকে হাই কোর্টের দেয়া জামিন আদেশ বহাল রেখেছে চেম্বার বিচারপতি। ফলে তার মুক্তিতে আর কোন বাধা নেই। বিষয়টি জানিয়েছেন, ফখরুলের আইনজীবী জহিরুল ইসলাম সুমন। তিনি বলেন, গত ৭ ডিসেম্বর ‘সাকার যুদ্ধাপরাধের রায় ফাঁসির ঘটনায় দায়ের হওয়া মামলার হাই কোর্ট থেকে জামিন নিয়েছিলেন ফখরুল। সেই জামিন আদেশ স্থগিত চেয়ে রাষ্ট্রপক্ষ বৃহস্পতিবার চেম্বার বিচারপতির আদালতে গেলে শুনানি শেষে বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন তার আদেশে বলেন, ‘নো অর্ডার’। অর্থাৎ হাই কোর্টের জামিন আদেশ বহাল। তার বিরুদ্ধে অন্য কোন মামলা না থাকায় তার মুক্তিতে আইনগত আর কোন বাধা রইল না।

পৌর নির্বাচনে সেনা মোতায়েনে ইসিকে উকিল নোটি ॥ আসন্ন পৌরসভা নির্বাচনে ‘লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড’ বজায় রাখতে সেনা মোতায়েনের জন্য প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) বরাবর একটি লিগ্যাল নোটিস পাঠানো হয়েছে। নোটিসে বলা হয়, ৭২ ঘণ্টার মধ্যে সেনা মোতায়েনের সিদ্ধান্ত না নিলে হাইকোর্টে রিট করা হবে। সর্বসাধারণের পক্ষে বৃহস্পতিবার প্রধান নির্বাচন কমিশনার বরাবর সুপ্রীমকোর্টের আইনজীবী এ্যাডভোকেট জুলফিকার আলী জুনু ডাকযোগে ও ফ্যাক্সের মাধ্যমে এই নোটিস পাঠান বলে জানিয়েছেন আইনজীবী নিজে।