২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

পোশাকের রঙে বিজয়ের রঙ

  • মাহবুব শরীফ

বিজয়ের মাস মানে লাল সবুজের প্রকৃত ভালবাসার মাঝে দেশপ্রেম ভাবকে ফুটিয়ে তোলা সবুজের বুকে লাল বা সবুজ ও লালের নিবিড় আলিঙ্গন। বিজয়ের এই মাসে ফ্যাশন হাউসগুলো একটু ভিন্ন রূপের আয়োজন করে থাকে। বিভিন্ন ফ্যাশন হাউস বিভিন্ন ক্যাটাগরির পোশাক দিয়ে তাদের হাউসগুলো সজ্জিত করে। ক্রেতারাও ভিড় করছে এই ফ্যাশন হাউসগুলোতে, বৈচিত্র্য পূর্ণ ডিজাইন আর লাল সবুজ রং দেখে তরুণ দেশপ্রেমিকরা কিছু না কিছু কিনছেই। জনপ্রিয় ফ্যাশন হাউসগুলোর মধ্যে রয়েছে অজ্ঞনস, নগরদোলা, কে-ক্রাফট, নবরূপা, চরকা, বাংলার মেলা, বুনো, ১৯৭১, পৌষ, আড়ং ইত্যাদি।

এইসব ফ্যাশন হাউসগুলো সম্পর্কে ও এর দরদাম সম্পর্কে একটু জেনে নিতে পারেন। ফ্যাশন হাউসগুলো বিজয় দিবস উপলক্ষে দেশীর কাপড় দিয়ে তৈরি করেছে শাড়ি, থ্রি পিচ, টি-শার্ট, পাঞ্জাবি, ফতুয়া ও শিশুদের পোশাক বিভিন্ন ফ্যাশন হাউস বিভিন্ন দামে তাদের পণ্য বিক্রি করছে, প্রত্যেকের আলাদা আলাদা ধরন করেছে।

নবরূপা

রাজধানীতে যতগুলো ফ্যাশন হাউস রয়েছে তার মধ্যে নবরূপা একটি। নবরূপা ও সেজেছে লাল সবুজের রঙ্গে, যতগুলো নবরূপা শো-রুম রয়েছে প্রায়। প্রত্যেকটিতেই পাবেন শাড়ি, ফতুয়া, পাঞ্জাবি, শার্ট, টি-শার্ট, সালোয়ার কামিজ, ওড়না ইত্যাদি। বিজয়ের মাসে প্রায় সব প্রদর্শিত পোশাকই বিজয়ের রঙে রাঙানো। এই ফ্যাশন হাউস তাদের পণ্যের দাম নির্ধারণ করেছে শাড়ি ৭৫০ টাকা থেকে ১৫শ’ টাকা, ফতুয়া ৪৫০ টাকা থেকে ৭৫০ টাকা, সেলোয়ার কামিজ ৮৫০ টাকা থেকে ১২শ’ ৫০ টাকায়।

কে-ক্রাফট্

বছরের শেষ মাস কিন্তু আনন্দের, মহান এই বিজয়ের মাসে অন্য সব ফ্যাশন হাউসের মতো কে-ক্রাফট ফ্যাশনে যুক্ত করেছে বিজয়ের পোশাক। প্রত্যেক ফ্যাশন হাউসগুলো তাদের নিজস্ব ডিজাইনে তৈরি কাপড়ের ধরন ও মূল্যের আকর্ষণ রাখছেই। কেউ সুতি, আবার কেউ বা খাদি, তাঁত, কটনের ওপর বেশি প্রধান্য দিচ্ছে।

কে-ক্রাফট তাদের এক্সক্লুসিভ সব পণ্যের এবারে যে মূল্য নির্ধারণ করেছে তা আপনাদের জানিয়ে দিচ্ছি পাঞ্জাবি ১ হাজার ৩শ’ টাকা, ফতুয়া ৭শ’ থেকে ১২শ’ টাকা, সালোয়ার কামিজ ২ হাজার ৬শ’ টাকা থেকে ৩ হাজার ২শ’ টাকা, শাড়ি ১ হাজার থেকে ১ হাজার ৮শ’ টাকা।

অঞ্জন’স

বিজয়ের এই মাসে অঞ্জন’স সকল শো-রুম লাল সবুজে সাজিয়েছে।

ফ্যাশন জগতে অঞ্জন’স এক পরিচিত নাম। এবার বিজয়ের মাসে অঞ্জন’স আয়োজন করছে বিশাল ফ্যাশন।

বাচ্চাদের জন্য ও অঞ্জন’স দিচ্ছে বিভিন্ন ডিজাইনের পোশাক। বরাবরই ক্রেতারা বলে আসছেন অজ্ঞনসের মূল্য তালিকা ক্রেতা সাধারণ ক্রয় ক্ষমতার মধ্যেই থাকে। বিভিন্ন সূত্রে জানা গেচ্ছে অঞ্জন’স পাঞ্জাবি দাম নির্ধারণ করেছে ১ হাজার ২শ’ টাকা থেকে ২ হাজার টাকার মধ্যে। ছোটদের পাঞ্জাবি ৪শ’ থেকে ২৫শ’ টাকায় এবং ফ্রক ১ হাজার থেকে ৩ হাজার টাকার মধ্যে, টি-শার্ট ৩শ’ থেকে ১ হাজার টাকায়।

চরকা

অন্য সব ফ্যাশন হাউস থেকে পিছিয়ে নেই ফ্যাশন হাউস চরকাও বিজয় দিবস কে সামনে রেখে লাল সবুজের মিশ্রণে চরকা তৈরি করেছে ফতুয়া, পাঞ্জাবি, শাল ও শাড়ি। ফ্যাশন হাউসগুলোর প্রতিযোগিতার কথা মাথায় রেখে চরকা তাদের বিভিন্ন তালিকা ক্রেতা সাধারণের ক্রয় ক্ষমতার মধ্যেই রেখেছে চরকার বিশেষ আকর্ষণ কুর্তা। এই ফ্যাশন হাউসটি কুর্তার দাম নির্ধারণ করেছে ৮শ’ থেকে ১২শ’ টাকার মধ্যে, শাড়ি সালোয়ার তো রয়েছেই। কামিজের দাম ৬৫০ থেকে ৮ হাজার ৫শ’ টাকা পাঞ্জাবি ৬শ’ থেকে ১৮শ’ টাকা শার্ট ৩৫০ থেকে ৫৫০ টাকা আর শাল ২৫০ থেকে ৭৫০ টাকা এবং এই ফ্যাশন হাউসে ২০ হাজার টাকারও বেশি মূল্যের পোশাক পাবেন।

বাংলার মেলা

বাংলার মেলা নামক ফ্যাশন হাউসটি বিজয় দিবস উপলক্ষে এনেছে দেশীয় কাপড়ের তৈরি শাড়ি, ফতুয়া, টি-শার্ট, পাঞ্জাবি, থ্রি-পিস ইত্যাদি। প্রতিটি পোশাকে ফুটিয়ে তুলেছেন বিজয়ের ছাপ। এই ফ্যাশন হাউসে পাঞ্জাবি পাবেন ১ হাজার টাকা থেকে ১ হাাজর ২শ’ টাকায়। ছোটদের পাঞ্জাবি ৬৫০ টাকা থেকে ৭৫০ টাকা ছোটদের ফতুয়া ৪৫০ টাকা থেকে ৫৫০ টাকা। মেয়েদের ফতুয়া ৭৫০ টাকা থেকে ৯৫০ টাকা। টি-শার্ট ২৫০ টাকা থেকে ৩৫০ টাকা, সুতি শাড়ি ১৬৫০ টাকা ১৭৫০ টাকা, সালোয়ার কামিজ ২ হাজার ৫০ টাকা থেকে ২ হাজার ৪৫০ টাকার মধ্যে।

বাংলার ঐতিহ্য আর আনন্দ উপভোগ করার মতো দিবসগুলো আরও বেশি মনে রাখার জন্য পছন্দের পোশাক পরে সুন্দর ও মনোমুগ্ধকর জায়গায় ভ্রমণ করতে পারেন। স্মৃতিকে ধরে রাখতে চাইলে সুন্দর মুহূর্তের কিছু ছবি তুলে রাখতে পারেন। লাল সবুজের মিশ্রিত রঙের পোশাক আপনাকে আরও দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ করুক, আপনাদের মনে আরও বেশি বেশি দেশপ্রেম জাগ্রত হোক। দেশ ও দেশের মানুষকে ভালবাসুন।

ছবি : আরিফ আহমেদ

মডেল : ঝুমুর ও রানা

মেকআপ : পারসোনা

পোশাক : কে-ক্রাফট