২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

স্কুলছাত্রীকে যৌন হয়রানি করা নিয়ে না’গঞ্জে চার গ্রামবাসীর সংঘর্ষ

  • আহত ২০

নিজস্ব সংবাদদাতা, নারায়ণগঞ্জ, ১১ ডিসেম্বর ॥ আড়াইহাজারে এক স্কুলছাত্রীকে যৌন হয়রানি করাকে কেন্দ্র করে দুই ইউনিয়নের চার গ্রামের দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে অন্তত ২০ জন আহত হয়েছে। এ ঘটনার জের ধরে উভয় পক্ষের বাড়িঘর ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার সকালে উপজেলার উচিতপুরা বাজারে।

জানা গেছে, বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার শম্ভুপুরা উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর এক ছাত্রীকে উচিতপুরা এলাকার আসাদ রাস্তায় উত্ত্যক্ত করে। এ ঘটনা সম্পর্কে ঐ ছাত্রীর মামা শরীফ আসাদকে জিজ্ঞাসা করে। এতে তাদের দুই জনের মধ্যে তর্কবিতর্ক হলে আসাদ তার বাড়িতে ফোন করে বিষয়টি জানায়। পরে আসাদের লোকজন এসে শরীফকে মারধর করে। ঐ সময় আগুয়ান্দী এলাকার শাহজালাল শরীফকে ছাড়াতে আসলে তাকেও পিটিয়ে আহত করা হয়। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় উভয় পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করে। খবর পেয়ে থানা পুলিশ সেখানে অবস্থান নেয়ায় বড় কোন ঘটনার সৃষ্টি হয়নি। কিন্তু শুক্রবার সকালে পুনরায় উভয় পক্ষ উচিতপুরা বাজারে উচিতপুরা ইউনিয়নের উচিতপুরা ও রায়পুরা গ্রাম ও মাহমুদপুর ইউনিয়নের আগুয়ান্দী ও গহরদী গ্রামের কয়েক শ’ লোকজন দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে ধাওয়া পাল্টাধাওয়া শুরু করে। এক পর্যায়ে তারা সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এতে করে উভয় পক্ষের অন্তত ২০ জন আহত হয়েছে। এ ঘটনায় জয়নাল (৪০), হারুন (৩০), মিছির আলী (৪৫), হালিম (৫০), কাজল (১৮), মমিন (৪০), আলমগীর (৫০), মনির (৩৫),নবী (৩২), রমিজউদ্দিন (৬৫), সালমা (২২), পারুল (৩০), তাইজুল ইসলাম (৩৫), বাছেদ (৩০) আহত হয়েছে। আহতদের আড়াইহাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। এক পর্যায়ে উচিতপুরা ও রায়পুরা গ্রামের লোকজন পিছু হটলে তাদের বেশকিছু বাড়িঘর ভাংচুর ও লুটপাট করে বলে উচিতপুরা গ্রামের বাবুল জানান।

উচিতপুরা গ্রামের সাবেক কাউসার মেম্বার জানান, আগুয়ান্দী ও গহরদী গ্রামের লোকজন তাদের উচিতপুরা ও রায়পুরা গ্রামের লোকজনের বাড়িঘর, দোকানপাট, ভাংচুর করেছে। এমনকি তারা লুটপাটও চালিয়েছে।

এ ব্যাপারে আড়াইহাজার থানার ওসি সাখাওয়াত হোসেন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, উভয় পক্ষের লোকজনই বাড়িঘর ভাংচুর করেছে। বর্তমানে এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। তবে কোন পক্ষই এখনও পর্যন্ত কোন অভিযোগ দেয়নি।

সন্ধ্যায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত নতুন করে হামলার আশঙ্কায় উচিতপুরা বাজারের অধিকাংশ দোকানপাট ছিল।