২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

অভিবাসী সঙ্কটে ইইউ ত্যাগে বাধ্য হতে পারে ব্রিটেন

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন বলেছেন, ইউরোপ অভিমুখে অভিবাসী স্রোতের বিরুদ্ধে ব্রিটিশ জনগণ তাদের প্রতিক্রিয়ায় ব্রিটেনের ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) ত্যাগের পক্ষে ভোট দেয়ার কথা ভাবতে পারে। খবর টেলিগ্রাফ অনলাইনের

ক্যামেরন সতর্ক করে দিয়ে বলেন, অভিবাসী সঙ্কটের কারণে ব্রিটেন ইউরোপ থেকে সরে যেতে পারে এবং ভোটাররাও ভাবছেন, ‘এখান থেকে আমাকে বেরিয়ে যেতে হবে।’ ইউরোপীয় ইউনিয়নে অভিবাসী সংখ্যা প্রথমবারের মতো ১০ লাখে উঠেছে। এ প্রেক্ষিতে প্রধানমন্ত্রী বলেন, তাই জনগণ ইউরোপ ত্যাগের পক্ষে ভোট দেয়ার কথা ভাববে। তিনি বলেন, দীর্ঘমেয়াদের প্রতিক্রিয়ায় ইউরোপীয় নেতারা উপলব্ধি করতে পারবেন যে, ক্যামেরন যে সংস্কার চাইছেন তাতে সম্মতি দিতে হবে। ব্রাসেলসের সঙ্গে তার আবারও আলোচনা অনুষ্ঠানের অংশ হিসেবে এ সম্মতি দিতে হবে। ইউরোপীয় কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড টাস্ক বলেছেন যে, যুক্তরাজ্যের কল্যাণ ভাতা ৪ বছরের জন্য ইইউ অভিবাসীদের জন্য বন্ধ রাখার ক্যামেরনের পরিকল্পনার বিরুদ্ধে রয়েছে প্রতিটি ইইউ দেশ। তিনি এ সতর্কবাণী উচ্চারণ করেন যে, নতুন করে আলোচনা সম্পন্ন হওয়ার পরও ক্যামেরন এক শ’ শতাংশ সন্তুষ্ট হবেন না। ক্যামেরনের মন্তব্য থেকে আভাস পাওয়া যায় যে, তিনি আগামী বছর শীঘ্রই গণভোটে অনুষ্ঠানের আশা এখন ত্যাগ করেছেন এবং উপরন্তু তিনি ভোট অনুষ্ঠান বিলম্ব করবেন। এক পরিসংখ্যানে বলা হয়েছে, ইইউভুক্ত দেশগুলোতে ২০১৫ সালে এ পর্যন্ত অন্তত ১০ লাখ ১ হাজার ৯১০ জন অভিবাসী প্রবেশ করেছে। এ সংখ্যা ২০১৪ সালের মোট সংখ্যার চেয়ে ৬০ শতাংশ বেশি। এ সংখ্যা নজিরবিহীন এবং সূচনা করেছে অভিবাসী সঙ্কটের। স্প্যাকটেটর সাময়িকীর সঙ্গে এক সাক্ষাতকারে ক্যামেরন বলেছেন, ব্রিটিশ ভোটাররা ক্রমবর্ধমান চাইছেন অভিবাসী ও ইউরোজোন সঙ্কটের কারণে ইইউ থেকে বেরিয়ে আসতে। তিনি বলেন, ইউরোজোন সঙ্কট ও অভিবাসী সঙ্কটের কারণে স্বল্প মেয়াদের প্রতিক্রিয়ার প্রভাব পড়ছে তা উপলব্ধি করে আমাকে বলতে হচ্ছে, ‘হে প্রভু খ্রিস্ট, ইউরোপকে দূরে নিয়ে যাও আমার কাছ থেকে। এটা আমার জন্য সমস্যা ডেকে আনছে।’ টেলিগ্রাফ গত সপ্তাহে বলেছে, ক্যামেরন একান্ত আলাপে স্বীকার করেছেন, ব্রাসেলস তার প্রতি উপেক্ষা অব্যাহত রাখলে ইইউ ত্যাগের পক্ষে প্রচার অভিযানে নামবেন তিনি।