২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

নৌকা-ধানের শীষে উদ্বেলিত রাজশাহীর ভোটার

মামুন-অর-রশিদ, রাজশাহী ॥ নৌকা ও ধানের শীষ প্রতীকের ভোটের লড়াই শেষ কবে হয়েছিল তা প্রায় ভুলতেই বসেছিল প্রার্থীরা। সর্বশেষ নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের দীর্ঘদিন পর বেশ কয়েক দফা নির্বাচন হয়েছে। তবে প্রতীক হিসেবে নৌকা ও ধানের শীষের লড়াই হয়নি। এবার সেই স্বাদ পেতে চলেছেন ভোটাররা। এবারই প্রথম স্থানীয় নির্বাচন নৌকা ও ধানের শীষে ভোটযুদ্ধে নামার আগে ভোটাররাও উদ্বেলিত।

আগামী ৩০ ডিসেম্বর আসন্ন পৌর নির্বাচনে দুই প্রতীক আবার মুখোমুখি হচ্ছে ভোট যুদ্ধে। তাই এ ভোটে প্রার্থী থেকে শুরু করে সাধারণ ভোটারদের মধ্যে অন্য রকমের উৎসাহ দেখা দিয়েছে। ভোটের মাঠে আর একদিন পরই দেখা যাবে প্রতীকের ছড়াছড়ি। তবে প্রতীক ছাড়াই নির্বাচনের প্রচারণায় প্রার্থীরা নেমেছেন এরই মধ্যে। শীতের সকালে সূর্য ওঠার আলোকচ্ছটার আগেই প্রার্থীরা চষে বেড়াচ্ছেন পৌর এলাকার গ্রাম-গঞ্জে। ভোটের হাওয়া বইতে শুরু করেছে এখন সবখানে। রাজশাহীর মু-ুমালা পৌর এলাকার সাদীপুর গ্রামের মনিরুল ইসলাম, ‘মেল্যাদিন পরে ভোটের মাঠত নামমু বারে। খেলা এবার জমে গেলছে। নৌকা আর ধানের শীষের যুদ্ধটাই আলাদা। মোহনপুর উপজেলার কেশরহাট পৌর এলাকার ভ্যানচালক সাদরুল ইসলাম জানান, নৌকা ও ধানের শীষ প্রতীক পায়া ভালোইতো লাগিত্তে। ন্যাতারা খালি স্যালাম দেত্তে। ভালই লাগিত্তে। চারিদেক খ্যালি ভুটভুট করিত্তে। পুঠিয়া পৌরসভায় আওয়ামী লীগ মেয়রপ্রার্থী রবিউল ইসলাম রবি জানান, দীর্ঘদিন পরে দুই প্রতীক ভোট যুদ্ধে মাঠে নামার কারণে সাধারণ ভোটারদের মধ্যে আগ্রহ কিছুটা বেশি। সাধারণ ভোটারদের কাছ থেকে নির্বাচনকে ঘিরে ব্যাপক আগ্রহ দেখা দিয়েছে।

দলীয় প্রতীকের বিষয়ে মেয়রপ্রার্থী রবিউল ইসলাম রবি বলেন, দেশের মানুষ আগের মতো নেই। এখন মানুষ জানে নৌকা প্রতীক ছাড়া তাদের ভাগ্যের উন্নয়ন সম্ভব নয়। সে কারণে সাধারণ ভোটারদের ব্যাপক উৎসাহ আছে নৌকা প্রতীককে ঘিরে। রাজশাহীর তানোর পৌরসভায় বিএনপি মনোনীত মেয়রপ্রার্থী মিজানুর রহমান। তিনি বলেন, সাধারণ ভোটার ধানের শীষ প্রতীক পেয়ে দারুণ খুশিতে আছে। প্রতীক নিয়ে নির্বাচনের মাঠে নামার জন্য অপেক্ষায় আছে তারা। প্রতীক ছাড়া যদিও প্রচার শুরু হয়ে গেছে। তারপরেও প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করার জন্য বিএনপির নেতাকর্মীরা মুখিয়ে আছে। তবে স্বতন্ত্র প্রার্থীদের কথা অন্যরকম। রাজশাহীর আড়ানী পৌরসভার স্বতন্ত্র মেয়রপ্রার্থী নজরুল ইসলাম বলেন, এটি সংসদ নির্বাচন নয়, যে দলীয় প্রতীক প্রার্থীর পক্ষে বিজয়ী হতে অনেক বড় ভূমিকা রাখবে।