২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মানবতাবিধেীদের সম্পত্তিও বাজেয়াপ্ত করতে হবে - ড. মুনতাসীর মামুন

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী ॥ মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক গবেষক ও বিশিষ্ট ইতিহাসবিদ অধ্যাপক ড. মুনতাসীর মামুন বলেছেন, মুক্তিযুদ্ধকালে মানবতবিরোধী অপরাধের দায়ে যাদের বিচার হচ্ছে এবং যাদের দ- কার্যকর করা হয়েছে তাদের সম্পত্তিও বাজেয়াপ্ত করে মুক্তিযুদ্ধ কল্যাণ ট্রাস্টে দিতে হবে। আমাদের দ্বিতীয় পর্যায়ের লড়াই হবে মৌলবাদ ও জঙ্গীবাদের বিরুদ্ধে। এই লড়াইয়ে রাজনীতিবিদরা পাশে না দাঁড়ালেও আমাদেরকে এগিয়ে যেতে হবে।

শনিবার দুপুরে একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির রাজশাহী জেলা, মহনগর ও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মেলনে প্রধান আলোচকের বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। নগরীর ভূবন মোহন পার্ক কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে সকাল সাড়ে ১১টায় পতাকা উত্তোলনের মাধ্যমে সম্মেলনের উদ্বোধন করেন একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সাধারণ সম্পাদক কাজী মুকুল এবং শহীদ পরিবারের সন্তান শাহীনা বেগম।

সম্মেলনে বাংলাদেশ ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাংসদ ফজলে হোসেন বাদশা এমপি বলেন, একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটিকে ভিত্তি করেই আমাদের এগিয়ে যেতে হবে। শহীদ জননী জাহানারা ইমামের দেখানো পথে সকল যুদ্ধাপরাধীর বিচার করতে হবে।

সম্মেলনের প্রতিপাদ্য ছিলো ‘জাগো, জাগাও, ঐক্যবদ্ধ হও, সাম্প্রদায়িক রাজনীতি নিষিদ্ধ কর’। ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির রাজশাহী মহানগর শাখার সভাপতি ভাষা সৈনিক আবুল হোসেনের সভাপতিত্বে এতে অন্যদের মধ্যে আরো বক্তব্য দেন, নর্থ বেঙ্গল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির উপাচার্য প্রফেসর আব্দুল খালেক, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য প্রফেসর সাইদুর রহমান খান, ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির মহানগর শাখার সাধারণ সম্পাদক কামরুজ্জামন, রাজশাহী মুক্তিযেদ্ধা সংসদের মহানগর কমান্ডার ডা. আব্দুল মান্নান, মুক্তিযুদ্ধ পাঠাগারের সভাপতি তাজুল ইসলাম, রাবি শিক্ষক সমিতির সভাপতি প্রফেসর আনন্দ কুমার সাহা, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সহ-সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান খান আলম, কবিকুঞ্জের সাধারণ সম্পাদক কবি আরিফুল হক কুমার, রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ, উদীচী শিল্পগোষ্ঠীর রাজশাহী শাখার সাধারণ সম্পাদক আলমগীর মালেক প্রমুখ।

নির্বাচিত সংবাদ