২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ডুনেডিনে চালকের আসনে নিউজিল্যান্ড

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ডুনেডিন টেস্টে চালকের আসনে স্বাগতিক নিউজিল্যান্ড। প্রথম ইনিংসে নিজেদের ৪৩১ রানের জবাবে শ্রীলঙ্কাকে ২৯৪ রানে অলআউট করার পর দ্বিতীয় ইনিংসে ১ উইকেটে ১৭১ রান করে ইতোমধ্যে ৩০৮ রানের বড় লিড নিয়েছে ব্রেন্ডন ম্যাককুলামের দল। ৭২ রান নিয়ে ব্যাট করছেন ওপেনার টম লাথাম, ব্যক্তিগত ৪৮ রানে তার সঙ্গে আছেন তুখোড় কেন উইলিয়ামসন। আজ চতুর্থ দিনে ধুমধাম পিটিয়ে সহসা লিড ৪শ’তে তুলে নেয়ার সুযোগ কিউইদের। অতিথি লঙ্কানদের ব্যাটিংয়ের যা অবস্থা তাতে এ্যাঞ্জেলো ম্যাথুসের দল দুই ম্যাচ সিরিজের প্রথম টেস্ট শেষ পর্যন্ত বাঁচাতে পারবে কি না, তা নিয়ে প্রশ্ন থাকছেই। প্রতিকূল পরিবেশে ব্যাট হাতে মোটেই সুবিধা করতে পারছে না অতিথিরা। সব মিলিয়ে তিনদিনেই ডুনেডিনের নিয়ন্ত্রণে নিউজিল্যান্ড। ৪ উইকেটে ১৯৭ রান নিয়ে শনিবার তৃতীয় দিনের খেলা শুরু করেছিল শ্রীলঙ্কা। কিন্তু বাকি ৬ উইকেট হারিয়ে কিউইদের ধারে কাছেও যেতে পারেনি লঙ্কানরা। স্কোর বোর্ডে ৯৭ রান যোগ করতে শেষ ৬ ব্যাটসম্যানকে হারায় অতিথিরা। শ্রীলঙ্কার প্রথম ইনিংসে দিমুথ করুণারতেœ আর দীনেশ চান্দিমাল ছাড়া কেউই বলার মতো স্কোর করতে পারেননি। আগেরদিন সর্বোচ্চ ৮৪ রান আসে ওপেনার করুণারতেœর ব্যাট থেকে। ৮৩ রান নিয়ে নেমে কাল আর এক রানও যোগ করতে পারেননি ফর্মের তুঙ্গে থাকা চান্দিমাল। টিম সাউদির শিকারে পরিণত হয়ে ফিরেছেন ৮৩ রানেই। অবশ্য এর মধ্য দিয়ে একটা ব্যক্তিগত অর্জন হয়ে গেছে চান্দিমালের। ২০১৫ সালে এশিয়ান খেলোয়াড়দের মধ্যে সবচেয়ে বেশি রান এখন তারই। ১৭ টেস্টে ৭৯২। চান্দিমাল রানের সংখ্যায় পেছনে ফেলে দিয়েছেন ইউনিস খানকে। ১৪ টেস্টে ইউনিসের রান ৭৮৯।

কিন্তু দলীয় রক্ষা হয়নি। কিথরুয়ান ভিতানাগে ২২, মিলিন্দা শ্রীবর্ধনে ৩৫Ñ আশা জাগালেও শ্রীলঙ্কাকে বেশিদূর নিতে পারেননি। শেষের দিকে রঙ্গনা হেরাথের ১৫, দুশমান্থা চামিরার ১৪ আর সুরাঙ্গা লাকমলের ১৮ শ্রীলঙ্কার সংগ্রহকে তিন শ’র কাছাকাছি নিয়ে যায়। নিউজিল্যান্ডের হয়ে পেসার টিম সাউদি আর নেইল ওয়াগনার দু’জনেই নিয়েছেন ৩টি করে উইকেট। ২টি করে শিকার ট্রেন্ড বোল্ট আর মিচেল স্যান্টনারের। ১৩৭ রানে এগিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংসেও দারুণ ব্যাটিং করছে কিউইরা। তৃতীয় দিনে ৪৮ ওভারে ১ উইকেটে ১৭১ রান করে ৩০৮ রানের চ্যালেঞ্জিং লিড নিয়ে নিয়েছে ম্যাককুলামের দল। ২০০৯ সালের পর এই প্রথম কোন টেস্টের দ্বিতীয় ইনিংসেও ওপেনিং জুটিতে হাফ সেঞ্চুরি নিউজিল্যান্ডের। দুর্দান্ত খেলছেন টম লাথাম, তিনি অপরাজিত ৭২ রান করেন। প্রথম ইনিংসের সেঞ্চুরিয়ান মার্টিন গাপটিল অবশ্য ৪৬ রান করে স্পিনার রঙ্গনা হেরাথের বলে বোল্ড হন। তবে লাথামের যোগ্য সঙ্গী হিসেবে সুপার উইলিয়ামসন অপরাজিত আছেন ৪৮ রানে। এর মধ্যদিয়ে মাত্র দ্বিতীয় নিউজিল্যান্ড ব্যাটসম্যান হিসেবে এক বছরে ১ হাজারের (১০৪০) ওপরে রান সংগ্রহ করেন তিনি। দু’জনের অবিচ্ছিন্ন ৯২ রানের জুটি কিউদের লিডটাকে শ্রীলঙ্কার ধরাছোঁয়ার বাইরেই নিয়ে যাচ্ছে।

স্কোর ॥ নিউজিল্যান্ড প্রথম ইনিংস ৪৩১/১০ ৯৬.১ ওভার (গাপটিল ১৫৬, উইলিয়ামসন ৮৮, ম্যাককুলাম ৭৫, ব্রেসওয়েল ৪৭, লাথাম ২২, স্যান্টনার ১২, ওয়াগনার ৭; প্রদীপ ৪/১১২, লাকমল ২/৬৯, চামিরা ২/১১২, শ্রীবর্ধনে ১/২৪) ও দ্বিতীয় ইনিংস ১৭১/১ ৪৮ ওভার (লাথাম ৭২*, উইলিয়ামসন ৪৮*, গাপটিল ৪৬; হেরাথ ১/৩৯)

শ্রীলঙ্কা প্রথম ইনিংস ২৯৪/১০ ১১৭.১ ওভার (করুণারতেœ ৮৪, চান্দিমাল ৮৩, শ্রীবর্ধনে ৩৫, ভিতানাগে ২২, লাকমল ১৮*, হেরাথ ১৫, মেন্ডিস ৮, জয়সুন্দর ১; সাউদি ৩/৭১, ওয়াগনার ৩/৮১, স্যান্টনার ২/৩৬, বোল্ট ২/৫২)। ** তৃতীয় দিন শেষে