২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সাউথ চায়না মর্নিং পোস্ট কিনছে আলিবাবা

  • চীন সম্পর্কে বহির্বিশ্বে নেতিবাচক ধারণায় পরিবর্তন আনাই লক্ষ্য

সাউথ চায়না মর্নিং পোস্ট (এসসিএমপি) কিনে নেয়ার উচ্চাভিলাষী পরিকল্পনা করছে চীনের ইন্টারনেট জায়ান্ট আলী বাবা গ্রুপ। পশ্চিমা গণমাধ্যমে চীন সম্পর্কে যে ‘ ‘নেতিবাচক’ ধারণা রয়েছে তাতে পরিবর্তন আনাই মূলত আলিবাবার এই উচ্চাভিলাষী পরিকল্পনার লক্ষ্য।

পরিকল্পনার বাস্তবায়নের মূল কাজ হিসেবে আলিবাবা শুক্রবার এসসিএমপি গ্রুপের সম্পত্তি কিনে নিতে সম্মত হয়েছে। এর মধ্যে হংকংয়ের সবচেয়ে প্রভাবশালী ইংরেজী দৈনিকটিও অন্তর্র্ভুক্ত রয়েছে। আলীবাবা এমন একটি পত্রিকা কিনে নিতে চলেছে যেটি দশকের পর দশক ধরে চীনের রাষ্ট্র নিয়ন্ত্রিত গণমাধ্যমে যেসব সংবাদ পরিবেশনের ওপর নিষেধাজ্ঞা ছিল সেই খবরগুলো পত্রিকাটি অতি আগ্রহের সঙ্গে প্রকাশ করেছে। যার মধ্যে রয়েছে রাজনৈতিক কেলেঙ্কারি ও মানবাধিকার লঙ্ঘনের মতো ঘটনাগুলো। আলিবাবা জানিয়েছে, পশ্চিমা গণমাধ্যমগুলোতে চীনকে প্রায়ই যে নেতিবাচকভাবে তুলে ধরা হয় সেটি তাদের এসসিএমপি গ্রুপের সম্পত্তি কিনে নিতে উদ্বুদ্ধ করেছে। চীনের ক্ষমতাসীন কমিউনিস্ট পার্টির সঙ্গে আলিবাবা গ্রুপের সুসম্পর্ক রয়েছে। তবে এসসিএমপি কিনে নেয়ার ক্ষেত্রে কমিউনিস্ট পার্টির কোন ভূমিকা নেই বলে জানান হয়েছে। কোম্পানিটি জানিয়েছে চীন সম্পর্কে নেতিবাচক ধারণা ছড়ানোর ফলে তারা নিউইয়র্ক স্টক এক্সচেঞ্জে তালিকাভুক্ত হওয়া সত্ত্বেও তাদের শেয়ারের দর পড়ে যাচ্ছে। শুক্রবারই কোম্পানির শেয়ার দর ৫.৪ শতাংশ পতন ঘটেছে। আলিবাবার এক্সিকিউটিভ ভাইস চেয়ারম্যান জোসেফ সি সাই বলেছেন, আমাদের ব্যবসার মূল ভিত্তি হলো চীনে। চীনা অর্থনীতির নানা দিক আমাদের কর্মকা-কে প্রভাবিত করে। মানুষ যদি চীন সম্পর্কে সঠিক ধারণাটি না পায় অথবা তারা ভুল বোঝে তখন সেটি আমাদের ব্যবসাকেও প্রভাবিত করে। ‘চীনের জন্য যেটি মঙ্গলজনক আলিবাবার জন্যও সেটি মঙ্গলজনক।’ কথাটি তিনি বলেন বৃহৎ মার্কিন গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান জেনারেল মোটর্সের সাবেক প্রধানের একটি বক্তব্যের অনুকরণে। জেনারেল মোটর্সের সাবেক প্রধান বলেছিলেন, ‘জিএমের জন্য যেটি ভাল সেটি আমেরিকার জন্যও ভাল।

প্রায় ১০ কোটি ডলারে এসসিএমপি গ্রুপকে কিনছে আলিবাবা। কোম্পানির বার্ষিক রাজস্ব আয় ১ হাজার ২শ’ কোটি ডলারের তুলনায় পরিমাণটি নেহায়েত সামান্য। এক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো কোম্পানির সুনাম। প্রতিষ্ঠানটি এখন রাজনীতির সঙ্গেও জড়াতে শুরু করেছে। এসসিএমপি অধিগ্রহণের মাধ্যমে আলিবাবা একই সঙ্গে দুটো পৃথক অঞ্চলে দুভাবে ব্যবসার সুযোগ পাচ্ছে। একটি হলো হংকংয়ে যেখানে মত প্রকাশের পুরো স্বাধীনতা রয়েছে। অপরটি চীনের মূলখ- যেখানে অত্যন্ত কড়া সেন্সরশিপ রয়েছে। সাউথ চায়না মর্নিং পোস্টের সাবেক সম্পাদক ও রাজনৈতিক বিশ্লেষক উইলি ল্যাম বলেছেন, পত্রিকাটি যে স্পর্শকাতর রাজনৈতিক বিষয়ে সেল্ফ সেন্সরশিপের পথ বেছে নিতে চলেছে আলিবাবার পত্রিকা কেনার পরিকল্পনা থেকে তার ধারণা পাওয়া যাচ্ছে। আলিবাবা অবশ্য জানিয়েছে যে, সাউথ চায়না মর্নিং পোস্টের দৈনন্দিন কর্মকা-ে হস্তক্ষেপের কোন ইচ্ছা তাদের নেই। পত্রিকাটি যেভাবে চলছে, কোন বিষয় যাবে বা যাবে না সেটি এডিটোরিয়াল বোর্ড এখন যেভাবে সিদ্ধান্ত নিচ্ছে সেভাবেই চলবে। তবে পত্রিকাটিকে আগের মতো চলতে দিলে চীন সম্পর্কিত ইতিবাচক ধারণা কিভাবে তৈরি করা হবে সে ব্যাপারে আলিবাবা স্পষ্ট করে কিছু জানায়নি।-ইন্টারন্যাশনাল নিউইয়র্ক টাইমস