২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

শীর্ষে ম্যানসিটি, লজ্জার হার ম্যানইউর

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ নাটকীয় জয়ে ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগ ফুটবলে শীর্ষে ফিরেছে ম্যানচেস্টার সিটি। শনিবার রাতে ইতিহাদ স্টেডিয়ামে ম্যানসিটি ২-১ গোলে পরাজিত করে সোয়ানসি সিটিকে। তবে লজ্জার হার মেনেছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। বোর্নমাউথের কাছে ম্যানইউর হার ২-১ গোলে।

পরশুর অন্যান্য ম্যাচে ক্রিস্টাল প্যালেস ১-০ গোলে সাউদাম্পটনকে ও ওয়াটফোর্ড একই ব্যবধানে সান্ডারল্যান্ডকে পরাজিত করে। নরউইচ সিটি-এভারটনের ম্যাচ ১-১ গোলে ও ওয়েস্টহ্যাম ইউনাইটেড-স্টোক সিটি ম্যাচ গোলশূন্য ড্র হয়। এদিকে আজ রাতে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে মুখোমুখি হচ্ছে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন চেলসি ও চমক দেখানো লিচেস্টার সিটি। এ ম্যাচটিতে জয় কিংবা ড্র করলেই ফের এককভাবে পয়েন্ট তালিকার এক নম্বরে পৌঁছে যাবে লিচেস্টার।

গত সপ্তাহে স্টোক সিটির মাঠে ২-০ গোলে বাজেভাবে হেরেছিল ম্যানসিটি। সোয়ানসিকে হারিয়ে জয়ের ধারায় ফেরার পাশাপাশি প্রিমিয়ার লীগের পয়েন্ট তালিকায় শীর্ষেও উঠে এসেছে ম্যানুয়েল পেলেগ্রিনির দল। বর্তমানে ১৬ ম্যাচে সিটির পয়েন্ট ৩২। এক ম্যাচ কম খেলা লিচেস্টার সিটির পয়েন্টও ৩২। হার মানা ম্যানইউ ২৯ পয়েন্ট নিয়ে আছে চার নম্বরে। ঘরের মাঠে ম্যাচের ২৬ মিনিটে লিড নেয় স্বাগতিক ম্যানসিটি। জেসুস নাভাসের কর্নার কিক থেকে বল পেয়ে জোরালো শট নিয়ে সোয়ানসির জালে বল জড়ান উইলফ্রেড বোনি। ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় ম্যানসিটি। বিরতির পর ম্যাচের একেবারে শেষ মুহূর্তে সমতায় ফেরে সোয়ানসি। গোমিসের গোলে স্কোরলাইন হয় ১-১। ফেদেরিকো ফার্নান্দেজের সহযোগিতায় ম্যাচের ৯০ মিনিটে গোলটি করেন ফরাসী তারকা। এরপর কিক অফ থেকেই পাল্টা আক্রমণে গোল করে অবিস্মরণীয় জয় তুলে নেয় ম্যানসিটি।

রেফারির শেষ বাঁশি বাজবে বাজবে অবস্থা। এমন সময় চরম নাটকীয়তায় জয়সূচক গোলটির দেখা পায় ম্যানসিটি। গোলবারের ডানদিক থেকে বল পায়ে সোয়ানসির ডি বক্সে প্রবেশ করেন ম্যানসিটির ইয়াইয়া তোরে। কোনাকুনি শটও নেন তিনি, বলও জালে জড়ায়। তবে অফিসিয়ালি গোলটি যায় ম্যানসিটির নাইজিরিয়ান ফুটবলার খেলেচি ইহেনাচোর নামের পাশে। কারণ তোরের নেয়া শটে বলটি ইহেনাচোর পিঠে লেগে কিছুটা বাঁক খেয়ে জালে জড়ায়।

চ্যাম্পিয়ন চেলসিকে বধ করার পর এবার আরেক পরাশক্তি ম্যানইউকে হারিয়ে চমক দেখিয়েছে নবাগত বোর্নমাউথ। যেন তারা এখন জায়ান্ট কিলার। ইংলিশ ফুটবলের সর্বোচ্চ আসর ইপিএলে এবারই প্রথমবারের মতো উঠে আসা বোর্নমাউথের মাঠে ২-১ গোলে হার মানে ম্যানইউ। গত সপ্তাহে চেলসিকে তাদেরই মাঠে ১-০ গোলে হারিয়েছিল বোর্নমাউথ।

প্রিমিয়ার লীগে টানা দুটি ড্রয়ের পর হারল ইউনাইটেড। আর সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে টানা পাঁচ ম্যাচ জয়শূন্য থাকল তারা। জার্মানির ক্লাব উলফলসবার্গের কাছে হেরে উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লীগ থেকে ছিটকে পড়া ইউনাইটেড পরশু রাতে ম্যাচের শুরুতেই অবিশ্বাস্য এক গোলে পিছিয়ে পড়ে। ব্রিটিশ মিডফিল্ডার জুনিয়র স্টানিসলাসের নেয়া কর্নার অনেকটা বাঁক খেয়ে গোলরক্ষক ডেভিড ডি গিয়ার মাথার ওপর দিয়ে দ্বিতীয় পোস্ট ঘেঁষে জালে জড়ায়। ম্যাচের ২৪ মিনিটে মারোয়ানি ফেলাইনি খুব কাছ থেকে ব্যবধান কমিয়ে ইউনাইটেডকে লড়াইয়ে ফেরান। বিরতির পরপরই আবারও এগিয়ে যায় বোর্নমাউথ। ৫৪ মিনিটে ডি বক্সের মধ্যে থেকে বল জালে জড়ান নরওয়ের ফরোয়ার্ড জসুয়া কিং। বাকি সময়ে ম্যানইউ তেমন সুযোগ সৃষ্টি করতে ব্যর্থ হয়। ফলে পয়েন্ট তালিকার নিচের দিকে থাকা দলের কাছে হারের লজ্জায় মাঠ ছাড়ে তারা।