২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

রামগঞ্জ ট্র্যাজেডির দুই বছর ॥ আজও বিচার হয়নি

স্টাফ রিপোর্টার, নীলফামারী ॥ আজ সোমবার। দুই বছর আগের এই দিনে নীলফামারী সদরের টুপামারী ইউনিয়নের রামগঞ্জ হাটে সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূরের গাড়িবহরে হামলা চালিয়ে আওয়ামী লীগের চার নেতা ও এক পথচারীসহ পাঁচজনকে হত্যা করেছিল জামায়াত-শিবির।

জামায়াত-শিবিরের হামলায় নিহত ওই পাঁচ পরিবারের মাঝে ইতোমধ্যে সরকারের পক্ষে ৪৫ লাখ টাকার অনুদান প্রদান করা হয়। রামগঞ্জ ট্র্যাজেডির দুই বছর স্মরণে সোমবার টুপামারী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ও তার সকল অঙ্গসংগঠন রামগঞ্জ হাট এলাকায় বিভিন্ন কর্মসূচী গ্রহণ করেছে।

কর্মসূচীর মধ্যে রয়েছে কোরানখানি, মিলাদ মাহফিল ও দোয়া, মৌনমিছিল স্মরণসভা। এসব কর্মসূচীতে অংশ নেবেন সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর এমপিসহ জেলা উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ, সকল অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মী। এছাড়া হত্যার শিকার পাঁচ পরিবারের পক্ষেও নিজ নিজ বাসভবনে দ্বিতীয় মৃত্যুবার্ষিকী পালন করা হবে।

রবিবার দুপুরে নিহত মুরাদ ও ফরহাদের বাড়িতে গিয়ে দেখা যায় ওই বাড়িতে চলছে দ্বিতীয় মৃত্যুবার্ষিকীর প্রস্তুতি। এই দুই ভাইয়ের মা মেরিনা বেগম দুই ছেলের শোকে এখনও কাতর। দুই ছেলের ছবি হাতে নিয়ে চলছে তার আহাজারি। কান্নাজড়িত কণ্ঠে তিনি বলেন, একটা মুরগী মারলে বিচার হয়, আমার দুইটা ছেলেকে জামায়াত-শিবির মেরে ফেলল কিন্তু দুই বছরেও কোন বিচার পাইলাম না। আসামিরা প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছে পুলিশ বলে তাদের খুঁজে পায় না। আমি সরকারের কাছে আমার দুই ছেলের হত্যার বিচার চাই।