১৮ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বনখোকো ওসমানের সাজা বহাল

অনলাইন রিপোর্টার ॥ বনখেকো হিসেবে পরিচিত সাবেক প্রধান বনরক্ষক ড. ওসমান গনির বিরুদ্ধে নিম্ন আদালতের দেওয়া ১২ বছরের সাজা বহাল রেখেছেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে ১০ লাখ টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও এক বছরের কারাদণ্ডের সাজাও বহাল রাখা হয়েছে।

মঙ্গলবার বিচারপতি রুহুল কুদ্দুস বাবু ও বিচারপতি ভীষ্মদেব চক্রবর্তীর সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রায় দেন।

দুদকের আইনজীবী মো. খুরশিদ আলম খান জানান, জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের মামলার সাজার বিরুদ্ধে খালাস চেয়ে ওসমান গনির আবেদন খারিজ করে এ আদেশ দেন আদালত।

২০০৮ সালের ৫ জুন একটি বিশেষ আদালত ড. ওসমান গনিকে জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জন এবং দুদকে দাখিল করা সম্পদের হিসাবে সঠিক তথ্য গোপন করার অভিযোগে ১২ বছরের কারাদণ্ড দেন।

এ ছাড়াও ১০ লাখ টাকা জরিমানাসহ তার এক কোটি ৮০ লাখ টাকার সম্পদ এবং তার স্ত্রীর দুই কোটি ৮০ লাখ টাকার সম্পদ এবং ২৭০ তোলা সোনার গহনা বাজেয়াপ্ত করার আদেশ দেন আদালত।

২০০৬ সালের ২৬ জুলাই দুদকের উপ-পরিচালক গোলাম শাহরিয়ার চৌধুরী উত্তরা থানায় এ মামলাটি দায়ের করেন। ওসমান গনি এবং তার স্ত্রী মোট চার কোটি ৩০ লাখ টাকার সম্পদের তথ্য গোপন করেছেন বলে মামলার অভিযোগে বলা হয়।

প্রসঙ্গত, ২০০৭ সালের ২৯ মে প্রধান বনরক্ষক ড. ওসমান গনিকে তার উত্তরার বাসা থেকে গ্রেফতার করে যৌথবাহিনী। তখন তার বাড়ির চালের ড্রাম ও জাজিমের নিচে লুকিয়ে রাখা নগদ এক কোটি টাকা উদ্ধার করা হয়।