২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

রাবিতেও দ্বিতীয়বার ভর্তি পরীক্ষার সুযোগ থাকছে না

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী ॥ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পর এবার রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়েও (রাবি) দ্বিতীয়বার ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের সুযোগ বাতিল করা হয়েছে। শনিবার সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কাউন্সিলের সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার প্রফেসর এন্তাজুল হক এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

প্রফেসর এন্তাজুল হক জানান, একাডেমিক কাউন্সিলের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আগামী ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষ থেকে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতক (সম্মান) শ্রেণীতে প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষায় শুধুমাত্র ২০১৬ সালে পাস করা শিক্ষার্থীরাই অংশগ্রহণ করতে পারবে। ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষে যারা ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছে তারা আর ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিতে পারবে না। বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, শনিবার বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর মুহম্মদ মিজানউদ্দিনের সভাপতিত্বে একাডেমিক কাউন্সিলের সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সর্বসম্মতিক্রমে দ্বিতীয়বার ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের সুযোগ বাতিলের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজনেস স্টাডিজ অনুষদের ডিন ও একাডেমিক কাউন্সিলের সদস্য প্রফেসর আমজাদ হোসেন বলেন, ‘এর আগে ডিনস কমিটিতে এটা আলোচনা হয়েছিল। অনেকে দ্বিতীয়বার পরীক্ষায় অংশগ্রহণের সুযোগ নিয়ে অন্যের হয়ে পরীক্ষা দেয়। এছাড়া এর আগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এ বিষয়ক সিদ্ধান্ত নিয়ে হাইকোর্টে করা রিট খারিজ হওয়ার বিষয়টিও বিবেচনা করা হয়েছে। সার্বিক বিষয় চিন্তা করে একাডেমিক কাউন্সিলে সর্বসম্মতিক্রমে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।’

প্রসঙ্গত, রাবিতে ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষে দ্বিতীয়বার ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের সুযোগ পেয়েছিলেন শিক্ষার্থীরা। এর আগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষায় দ্বিতীয়বার অংশগ্রহণের সুযোগ বাতিল করা হয়। এ নিয়ে আন্দোলন করেন ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীরা। ঢাবির সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে রিটও করা হয়। তবে তা খারিজ হয়ে যায়।

গভীর রাতে গুলির শব্দ ॥ রাবির বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলে গভীর রাতে গুলির শব্দ পাওয়া গেছে। শুক্রবার রাত পৌনে ১টার দিকে হলের দক্ষিণ ব্লক থেকে পর পর কয়েকটি গুলির আওয়াজ পাওয়া যায়। তবে এ ঘটনায় হতাহতের কোন খবর পাওয়া যায়নি।

হলের আবাসিক শিক্ষার্থীরা জানান, শুক্রবার রাত পৌনে ১টার দিকে মাত্র পাঁচ মিনিটের মধ্যে হলের দক্ষিণ ব্লকে পর পর কয়েকটি গুলির শব্দ শোনা যায়। এ ঘটনায় কেউ হতাহত হয়নি। তবে কে বা কারা এ গুলি চালিয়েছে তাও জানা যায়নি। গুলির শব্দে সাধারণ শিক্ষার্থীরা রাতে আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। বঙ্গবন্ধু হলের প্রাধ্যক্ষ প্রফেসর এসএম জাহিদ হোসেন বলেন, এরকম কোনো ঘটনার কথা তিনি শোনেননি।