১৬ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ঢাকা কলেজ ছাত্রাবাসে অভিযান ॥ ২৩ জন আটক, চাপাতি রড উদ্ধার

স্টাফ রিপোর্টার ॥ ঢাকা কলেজের কয়েকটি ছাত্রাবাসে অভিযান চালিয়ে ২৩ জনকে আটক করেছে পুলিশ। এ সময় হলগুলোর বিভিন্ন কক্ষ ও আশপাশের এলাকা থেকে চাপাতি, রড, দাসহ বেশ কিছু দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে। সোমবার রাত পৌনে ১টা থেকে সোয়া ৩টা পর্যন্ত এ অভিযান পরিচালিত হয়।

নিউমার্কেট থানার পরিদর্শক (অপারেশন) আবদুস সালাম জানান, পাঁচদিন আগে ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে বিপণি বিতানের দোকানিদের সংঘর্ষের ঘটনায় এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্রাবাসগুলোতে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়। তবে আটকদের নাম-পরিচয় তিনি জানাতে চাননি। তারা কলেজের ছাত্র নাকি বহিরাগত- তা যাচাই-বাছাই করা হচ্ছে। যাচাই-বাছাই করে তাদের মামলায় অন্তর্ভুক্ত করা হবে। তিনি জানান, বৃহস্পতিবার বিকেলে ওই সংঘর্ষের ঘটনার পর ওই রাতেই মামলা করেন স্থানীয় এক ব্যবসায়ী। ছাত্র রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত দেড় থেকে দুইশ’ জনকে ওই মামলায় আসামি করা হয়েছে। মঙ্গলবার রমনা জোনের ধানম-ি সার্কেলের সহকারী কমিশনার (এসি) রুহুল আমিন সাগর জানান, হলগুলোতে অভিযান চালিয়ে মোট ২৩ জনকে সন্দেহজনকভাবে আটক করা হয়েছে। এদের মধ্যে ১০ জন কলেজের আইডি কার্ড বা কাগজপত্র দেখাতে পারেনি। অন্যরা কলেজের ছাত্র হলেও হলে আবাসিক নয়।

উল্লেখ্য, গত ১৭ ডিসেম্বর ধানম-ি হর্কাস মার্কেটে শাড়ি কেনাকে কেন্দ্র করে ঢাকা কলেজ ও মার্কেটের দোকানিদের মধ্যে সংঘর্ষে ১৩জন আহত হয়। এ সময় নিউমার্কেট ও মিরপুর রোড এলাকায় প্রায় ২০টি মার্কেট বন্ধ হয়ে যায়। সংঘর্ষে ওই দিন মিরপুর সড়কে এক ঘণ্টার বেশি সময় গাড়ি চলাচল বন্ধ থাকে। এক সাংবাদিকের মোটরসাইকেলসহ চারটি বাইকে আগুন দেয়া হয়। এ ঘটনায় ধানম-ি হকার্স মার্কেটের এক ব্যবসায়ী ঢাকা কলেজের প্রায় দুই শতাধিক শিক্ষার্থীর বিরুদ্ধে মামলা করেছে। সংঘর্ষের জন্য শিক্ষার্থী ও ধানম-ি হকার্স মার্কেটের ব্যবসায়ী ও দোকানকর্মীরা পরস্পরকে দায়ী করেছেন।